বিনামূল্যের ইন্টারনেট নিয়ে সতর্ক করলেন গুগল সিইও
jugantor
বিনামূল্যের ইন্টারনেট নিয়ে সতর্ক করলেন গুগল সিইও

  আইটি ডেস্ক  

১৫ জুলাই ২০২১, ০১:২১:২০  |  অনলাইন সংস্করণ

বিনামূল্যে ইন্টারনেট ব্যবহারের ফলে প্রায়ই সাইবার হামলার শিকার হচ্ছেন ব্যাবহারকারীরা। ইন্টারনেট ব্যবহারে এসব হুমকি ও হামলার বিষয়ে সতর্ক করেছেন মার্কিন প্রযুক্তি জায়ান্ট গুগলের সিইও সুন্দর পিচাই।

এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, অনেক দেশ তথ্যের প্রবাহ আটকে দিচ্ছে। আগামী দিনে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা পৃথিবীতে রাজত্ব করবে। তবে তার আগে স্বাধীনতা দরকার।

পিচাইয় দাবি করেন, গুগল গত ২৩ বছর ধরে মুক্ত এবং স্বাধীন ইন্টারনেটের জন্য সবচেয়ে বেশি ভূমিকা রেখেছে।
প্রতিদিনের রুটিনে নিজের প্রযুক্তিগত অভ্যাস নিয়ে তিনি বলেন, পাসওয়ার্ডের ক্ষেত্রে আমি সবসময়ে টু-ফ্যাক্টর অথেন্টিকেশান মেনে চলি। সবারই সেটা করা উচিত। তাছাড়া নতুন নতুন প্রযুক্তি যাচাই করতে বারবার স্মার্টফোন বদলাতে থাকি।
এ সময় গতানুগতিক ধারার আবিষ্কারের চেয়ে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাকে বেশি কার্যকর বলে আখ্যা দিয়ে তিনি বলেন, আগুন, বিদ্যুতের ব্যবহার, ইন্টারনেট আবিষ্কার হিসাবে যেমন, এআই-ও তেমন। বরং এআইকে আরও বৃহৎ বলা যেতে পারে।

কম্পিউটিং, ট্যাক্স ছাড়াও আরো একটি ক্ষেত্রে সমস্যার মুখে পড়ছে গুগল। সেটি হচ্ছে ব্যবহারকারীদের তথ্যের সুরক্ষা ও নিরাপত্তা। যে কারণে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ গুগলের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নিচ্ছে এবং তদন্তের পরিমাণও বাড়ছে। এসব বিষয়ে পিচাই নিজের অবস্থান পরিষ্কার করেছেন। তার মতে গুগল সবার জন্য উন্মুক্ত। তাই যে কেউ সহজেই যেকোনো জায়গায় যেতে পারেন।

বিনামূল্যের ইন্টারনেট নিয়ে সতর্ক করলেন গুগল সিইও

 আইটি ডেস্ক 
১৫ জুলাই ২০২১, ০১:২১ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বিনামূল্যে ইন্টারনেট ব্যবহারের ফলে প্রায়ই সাইবার হামলার শিকার হচ্ছেন ব্যাবহারকারীরা। ইন্টারনেট ব্যবহারে এসব হুমকি ও হামলার বিষয়ে সতর্ক করেছেন মার্কিন প্রযুক্তি জায়ান্ট গুগলের সিইও সুন্দর পিচাই।

এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, অনেক দেশ তথ্যের প্রবাহ আটকে দিচ্ছে। আগামী দিনে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা পৃথিবীতে রাজত্ব করবে। তবে তার আগে স্বাধীনতা দরকার।
 
পিচাইয় দাবি করেন, গুগল গত ২৩ বছর ধরে মুক্ত এবং স্বাধীন ইন্টারনেটের জন্য সবচেয়ে বেশি ভূমিকা রেখেছে।
প্রতিদিনের রুটিনে নিজের প্রযুক্তিগত অভ্যাস নিয়ে তিনি বলেন, পাসওয়ার্ডের ক্ষেত্রে আমি সবসময়ে টু-ফ্যাক্টর অথেন্টিকেশান মেনে চলি। সবারই সেটা করা উচিত। তাছাড়া নতুন নতুন প্রযুক্তি যাচাই করতে বারবার স্মার্টফোন বদলাতে থাকি।
এ সময় গতানুগতিক ধারার আবিষ্কারের চেয়ে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাকে বেশি কার্যকর বলে আখ্যা দিয়ে তিনি বলেন, আগুন, বিদ্যুতের ব্যবহার, ইন্টারনেট আবিষ্কার হিসাবে যেমন, এআই-ও তেমন। বরং এআইকে আরও বৃহৎ বলা যেতে পারে।

কম্পিউটিং, ট্যাক্স ছাড়াও আরো একটি ক্ষেত্রে সমস্যার মুখে পড়ছে গুগল। সেটি হচ্ছে ব্যবহারকারীদের তথ্যের সুরক্ষা ও নিরাপত্তা। যে কারণে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ গুগলের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নিচ্ছে এবং তদন্তের পরিমাণও বাড়ছে। এসব বিষয়ে পিচাই নিজের অবস্থান পরিষ্কার করেছেন। তার মতে গুগল সবার জন্য উন্মুক্ত। তাই যে কেউ সহজেই যেকোনো জায়গায় যেতে পারেন।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন