তারা কথাবার্তা শোনে না, আগে আরও খারাপ ছিল: মোস্তফা জব্বার
jugantor
তারা কথাবার্তা শোনে না, আগে আরও খারাপ ছিল: মোস্তফা জব্বার

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

০৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৯:৪০:০৯  |  অনলাইন সংস্করণ

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম

সোশ্যাল মিডিয়ার বিষয়ে অসহায়ত্বের কথা জানিয়ে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, তারা তাদের কমিউনিটি স্ট্যান্ডার্ডে কাজ করে, তারা তাদের মতো করে কাজ করে। তারা কথাবার্তা শোনে না, তবে এর আগে আরও খারাপ ছিল। ফেসবুকের সঙ্গে আমাদের নিয়মিত কথাবার্তা হয়।

সোমবার বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) কার্যালয়ে সোশ্যাল মিডিয়া, কন্টেন্ট ও আনুষাঙ্গিক বিষয় নিয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে তিনি এ কথা বলেন।

সোশ্যাল মিডিয়াসহ বিভিন্ন অনলাইন প্ল্যাটফর্মে ব্যক্তিগত ভিডিও, ছবি অপসারণে বিটিআরসির ভূমিকা নিয়ে রোববার উষ্মা প্রকাশ করেন হাইকোর্ট। তার একদিন পর এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

পর্নগ্রাফির সাইট, জুয়ার সাইট যখনই পাওয়া যাচ্ছে বন্ধ করা হচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন, বাকি বিষয়গুলোতে আমরা এক ধরনের অসহায়ত্বে আছি, তা হলো সোশ্যাল মিডিয়া, আমরা তাদের কৃপার ওপর নির্ভরশীল।

বিটিআরসির ক্ষমতার বিষয়টি বোঝার আহ্বান জানিয়ে মোস্তাফা জব্বার বলেন, যারা ডিজিটাল অপরাধ নিয়ে আইন আদালতের কাছে যান, তারা অন্ততপক্ষে আমাদের অবস্থাটা বুঝবেন।

তিনি বলেন, সেই পরিস্থিতে আমাদের, বিটিআরসির তালা মারার কতটা সক্ষমতায় আছে তা বুঝতে হবে। যে জায়গায় কাজ করার ক্ষমতাই রাখি না, সেখানে দায় দিলে আমার ওপর অবিচার করা হবে।

তারা কথাবার্তা শোনে না, আগে আরও খারাপ ছিল: মোস্তফা জব্বার

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
০৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:৪০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম
ছবি: সংগৃহীত

সোশ্যাল মিডিয়ার বিষয়ে অসহায়ত্বের কথা জানিয়ে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, তারা তাদের কমিউনিটি স্ট্যান্ডার্ডে কাজ করে, তারা তাদের মতো করে কাজ করে। তারা কথাবার্তা শোনে না, তবে এর আগে আরও খারাপ ছিল। ফেসবুকের সঙ্গে আমাদের নিয়মিত কথাবার্তা হয়।

সোমবার বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) কার্যালয়ে সোশ্যাল মিডিয়া, কন্টেন্ট ও আনুষাঙ্গিক বিষয় নিয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে তিনি এ কথা বলেন।

সোশ্যাল মিডিয়াসহ বিভিন্ন অনলাইন প্ল্যাটফর্মে ব্যক্তিগত ভিডিও, ছবি অপসারণে বিটিআরসির ভূমিকা নিয়ে রোববার উষ্মা প্রকাশ করেন হাইকোর্ট। তার একদিন পর এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

পর্নগ্রাফির সাইট, জুয়ার সাইট যখনই পাওয়া যাচ্ছে বন্ধ করা হচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন, বাকি বিষয়গুলোতে আমরা এক ধরনের অসহায়ত্বে আছি, তা হলো সোশ্যাল মিডিয়া, আমরা তাদের কৃপার ওপর নির্ভরশীল। 

বিটিআরসির ক্ষমতার বিষয়টি বোঝার আহ্বান জানিয়ে মোস্তাফা জব্বার বলেন, যারা ডিজিটাল অপরাধ নিয়ে আইন আদালতের কাছে যান, তারা অন্ততপক্ষে আমাদের অবস্থাটা বুঝবেন।

তিনি বলেন, সেই পরিস্থিতে আমাদের, বিটিআরসির তালা মারার কতটা সক্ষমতায় আছে তা বুঝতে হবে। যে জায়গায় কাজ করার ক্ষমতাই রাখি না, সেখানে দায় দিলে আমার ওপর অবিচার করা হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন