ফেসবুকের বিরুদ্ধে রোহিঙ্গাদের ১৫০ বিলিয়ন ডলারের মামলা
jugantor
ফেসবুকের বিরুদ্ধে রোহিঙ্গাদের ১৫০ বিলিয়ন ডলারের মামলা

  অনলাইন ডেস্ক  

০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ১০:১৫:৫০  |  অনলাইন সংস্করণ

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকের বিরুদ্ধে ১৫০ বিলিয়ন ডলারের ক্ষতিপূরণ মামলা করেছেন মিয়ানমারের সংখ্যালঘু রোহিঙ্গারা।

যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যে আশ্রয় নেওয়া বেশ কয়েকজন রোহিঙ্গা ফেসবুকের বিরুদ্ধে জাতিগত বিদ্বেষ ও ঘৃণা ছড়ানো এবং ভুল তথ্য প্রচার রোধ না করার অভিযোগে ওই মামলা করেন। খবর বিবিসির।

তবে এ ঘটনায় ফেসবুকের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত কোনো প্রতিক্রিয়া জানানো হয়নি।

২০১৭ সালে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী ১০ হাজারেরও বেশি সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলিমকে হত্যা করে।

ফেসবুক ২০১৮ সালে স্বীকার করেছে, রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে সহিংসতা এবং ঘৃণামূলক বক্তব্যের প্ররোচনা রোধে যথেষ্ট কাজ করেনি তারা।

রয়টার্স জানায়, ২০১৩ সালে মিয়ানমারে উগ্রবাদী বৌদ্ধরা ফেসবুক পোস্টে রোহিঙ্গাদের উদ্দেশ্য করে লেখে— হিটলার যেভাবে ইহুদিদের নৃশংসভাবে হত্যা করেছিল, আমরাও তোমাদের সেভাবেই নিধন করব।

আরেক পোস্টের এক উগ্রবাদী লেখেন, গায়ে কোরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দ্রুত তোমাদের আল্লাহর কাছে প্রেরণের ব্যবস্থা করছি। উল্লেখ্য, মিয়ানমারে ফেসবুকের দুই কোটি গ্রাহক আছে।

যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার সুপিরিয়র আদালতে সোমবার রোহিঙ্গাদের পক্ষের আইনজীবীরা ওই মামলা করেন। এদিকে ব্রিটিশ আইনজীবী দলও মামলা শুরুর উদ্যোগের কথা জানিয়ে ফেসবুককে গণহত্যার তথ্য না মুছতে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছে।

ফেসবুকের বিরুদ্ধে রোহিঙ্গাদের ১৫০ বিলিয়ন ডলারের মামলা

 অনলাইন ডেস্ক 
০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ১০:১৫ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকের বিরুদ্ধে ১৫০ বিলিয়ন ডলারের ক্ষতিপূরণ মামলা করেছেন মিয়ানমারের সংখ্যালঘু রোহিঙ্গারা।

যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যে আশ্রয় নেওয়া বেশ কয়েকজন রোহিঙ্গা ফেসবুকের বিরুদ্ধে জাতিগত বিদ্বেষ ও ঘৃণা ছড়ানো এবং ভুল তথ্য প্রচার রোধ না করার অভিযোগে ওই মামলা করেন। খবর বিবিসির।

তবে এ ঘটনায় ফেসবুকের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত কোনো প্রতিক্রিয়া জানানো হয়নি।

২০১৭ সালে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী ১০ হাজারেরও বেশি সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলিমকে হত্যা করে।

ফেসবুক ২০১৮ সালে স্বীকার করেছে, রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে সহিংসতা এবং ঘৃণামূলক বক্তব্যের প্ররোচনা রোধে যথেষ্ট কাজ করেনি তারা।

রয়টার্স জানায়, ২০১৩ সালে মিয়ানমারে উগ্রবাদী বৌদ্ধরা ফেসবুক পোস্টে রোহিঙ্গাদের উদ্দেশ্য করে লেখে— হিটলার যেভাবে ইহুদিদের নৃশংসভাবে হত্যা করেছিল, আমরাও তোমাদের সেভাবেই নিধন করব।

আরেক পোস্টের এক উগ্রবাদী লেখেন, গায়ে কোরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দ্রুত তোমাদের আল্লাহর কাছে প্রেরণের ব্যবস্থা করছি। উল্লেখ্য, মিয়ানমারে ফেসবুকের দুই কোটি গ্রাহক আছে।
 
যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার সুপিরিয়র আদালতে সোমবার রোহিঙ্গাদের পক্ষের আইনজীবীরা ওই মামলা করেন। এদিকে ব্রিটিশ আইনজীবী দলও মামলা শুরুর উদ্যোগের কথা জানিয়ে ফেসবুককে গণহত্যার তথ্য না মুছতে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন