সেবা এক্সওয়াইজেড চালু করলো ‘বন্ধু অ্যাপ’

প্রকাশ : ১২ জুন ২০১৮, ১৫:৫১ | অনলাইন সংস্করণ

  যুগান্তর ডেস্ক   

আমাদের আশেপাশের মানুষদের কত প্রয়োজনেই পাশে দাড়াই আমরা। কারো হঠাৎ গাড়ি লাগবে, কারো ক্লিনার লাগবে, কারো বা হঠাৎ দরকার ড্রাইভার, মিস্ত্রী, প্লাম্বার– আমরা সাধ্যমত চেষ্টা করি প্রিয়জনের পাশে দাঁড়াতে।  

আপনার আশেপাশের মানুষদের সাহায্য করেই এখন ঘরে বসে বাড়তি আয় করতে পারেন সেবা বন্ধু অ্যাপে।  

স্মার্টফোনে বন্ধু অ্যাপ ডাউনলোড করেযে কেউ বন্ধু বান্ধবদের সেবার সার্ভিস রেফার করতে পারেন, সাথে হবে বাড়তি আয়।

সোমবার সেবা এক্সওয়াইজেডের গুলশান অফিসে আয়োজিত প্রেস কনফারেন্সে সেবা বন্ধুর বাণিজ্যিক কার্যক্রম উদ্বোধন হয়। 

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সেবার সিইও আদনান ইমতিয়াজ হালিম এবং সেবা পরিবার। 

বন্ধু অ্যাপ সম্পর্কে সেবার সিইওআদনান ইমতিয়াজ হালিম জানান, এই অ্যাপটি প্রয়োজনে আপনজনদের পাশে দাঁড়ানো এবং ব্যস্ততার মাঝেও আশেপাশের মানুষদের সাহায্য করার দারুণ একটি সুযোগ। 

এ ছাড়াও বন্ধু অ্যাপকে তরুণদের স্বনির্ভর হওয়ার একটি মাধ্যম মনে করেন তিনি। 

বর্তমানে ঢাকা জুড়ে দুই হাজারেরও বেশি বন্ধু অ্যাপ ব্যবহারকারী আছেন, যারা প্রতিনিয়ত তাদের আপনজনদের বিপদে আপদে পাশে দাঁড়াচ্ছেন সেবার সার্ভিস রেফার করে।

এই সার্ভিস রেফার করার মাধ্যমে যেমন উপকার হচ্ছে আপনজনদের, এরই সাথে বেঁচে যাচ্ছে সময় ও খোঁজাখুঁজি করার বাড়তি ঝামেলা। 

সার্ভিস রেফার করার মাধ্যমে একই সাথে উপকার হচ্ছে ঢাকা জুড়ে শত শত সার্ভিস প্রোভাইডারদের যারা সেবা অ্যাপেই পেয়ে যাচ্ছেন কাজ।

আর তাদেরকে কাজ দিয়ে আপনিও পেয়ে যাচ্ছেন সেবা থেকে আয়ের একটি অংশ। 

সেবা বন্ধু অ্যাপ ব্যবহার করতে লাগবে নাম এবং বিকাশ একাউন্টের নাম্বার। এরপর অ্যাপের হোম পেজে যে কাউকে রেফার করা যাবে সেবার যে কোন সার্ভিস। 

ধরুন আপনার পাশের বাড়ির আঙ্কেলের হঠাৎ মিস্ত্রী ডাকার দরকার, অথবা আপনার কোন এক বন্ধুর হঠাৎ বাসায় ক্লিনার প্রয়োজন।

অথবা কারো ড্রাইভার বা লন্ড্রি প্রয়োজন পড়ল সঙ্গে সঙ্গে তাদের নাম, ফোন নাম্বার এবং তার প্রয়োজনীয় সার্ভিস লিখে অ্যাপে “রেফার করুন” বাটনটি ক্লিক করলেই সার্ভিস পৌঁছে যাবে আপনার বন্ধু কিংবা আত্মীয় পরিজনের বাসায়। 

আর এরই সঙ্গে সেবা থেকে দেয়া সার্ভিসের মোট চার্জ এর একটা অংশ, তা হতে পারে ১০ টাকা থেকে এক হাজার টাকা পর্যন্ত, চলে যাবে আপনার একাউন্টে।

ইতিমধ্যেই বন্ধু অ্যাপ ব্যবহার করে অনেকেই আয় করছেন হাজার হাজার টাকা। এর মাঝে ৬০ হাজার টাকা পর্যন্ত আয় করার রেকর্ডও আছে।
 
কর্তৃপক্ষ বলছেন, সেবার সার্ভিসগুলো আমাদের প্রত্যেকেরই দৈনন্দিন জীবনে কোন না কোন কাজে লাগে। তাই প্রয়োজনে বিপদে সেবা বন্ধু অ্যাপে সেবার সার্ভিস রেফার করে খুব সহজেই আপনার আশেপাশের মানুষদের সাহায্য করতে পারেন।

আর সেই সঙ্গে হয়ে যাবে আপনারও কিছু বাড়তি আয়। গুগল প্লে স্টোর থেকে Sheba Bondhu লিখে অ্যাপটি ডাউনলোড করতে পারেন।