ভয়েস কলরেট বৃদ্ধির প্রতিবাদে বুধবার সংবাদ সম্মেলন

  আইটি ডেস্ক ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৩:৫৪ | অনলাইন সংস্করণ

ভয়েস কলরেট বৃদ্ধির প্রতিবাদে বুধবার সংবাদ সম্মেলন
ভয়েস কলরেট বৃদ্ধির প্রতিবাদে বুধবার সংবাদ সম্মেলন। ছবি: যুগান্তর

মোবাইল ফোন অপারেটরদের ১৩ আগস্ট সর্বনিম্ন কলরেট ২৫ পয়সা থেকে বাড়িয়ে ৪৫ পয়সা করতে নির্দেশনা দেয় বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)।

নির্দেশনায় সর্বনিম্ন কলরেট ৪৫ পয়সা এবং সর্বোচ্চ কলরেট ২ টাকা করতে বলা হয়। একই সঙ্গে মোবাইল ফোনকলে অফনেট ও অননেট পদ্ধতিও বন্ধ হয়ে গেছে।

১৪ আগস্ট মধ্যরাত থেকেই কার্যকর হয়েছে নতুন কলরেট। এই নিয়ে তাৎক্ষণিক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া দেখা যায়।

এদিকে ভয়েস কলরেট বৃদ্ধির প্রতিবাদে আগামী বুধবার বেলা সাড়ে ১১টার সময় জাতীয় প্রেসক্লাব সম্মুখে “ভয়েস কলরেট বৃদ্ধির প্রতিবাদ ও বৃদ্ধির কারণ প্রকাশের দাবিতে” মুক্ত সংবাদ সম্মেলনের ডাক দিয়েছে বাংলাদেশ মুঠোফোন গ্রাহক এসোসিয়েশন।

উক্ত সংবাদ সম্মেলনে অংশগ্রহণ করবেন সিপিবি’র সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য রুহিন হোসেন প্রিন্স, গণসংহতি আন্দোলনের সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি, সাবেক সংসদ সদস্য অধ্যাপক হুমায়ুন কবির, দুর্নীতি প্রতিরোধ আন্দোলনের আহ্বায়ক হারুন অর রশিদ খান, বাংলাদেশ মুঠোফোন গ্রাহক এসোসিয়েশন’র সাংগঠনিক সম্পাদক রেজাউল করিম, অর্থ সম্পাদক মনির হোসেনসহ সুশীল সমাজের প্রতিনিধি, রাজনৈতিক বিশ্লেষক, পেশাজীবি ও সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

সংবাদ সম্মেলনে মূল বক্তব্য উপস্থাপন করবেন সংগঠনের সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ।

প্রসঙ্গত, মোবাইল ফোন অপারেটরদের কাছে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, বর্তমানে গ্রামীণফোন থেকে ৯০ শতাংশ কল হয় অননেটে, ১০ শতাংশ কল অফনেটে হয়।

অন্যদিকে সরকারের মালিকানাধীন অপারেটর টেলিটকের ১০ শতাংশ কল অননেটে ও ৯০ শতাংশ কল অফনেটে হচ্ছে। রবি ও বাংলালিংকের অননেট-অফনেট কলের পরিমাণ ৭০ ও ৩০ শতাংশ।

বিটিআরসি সূত্রে জানা গেছে, সর্বোচ্চ কলরেট ১.৫০ টাকা করার কথা বলা হলেও শেষ পর্যন্ত এটি ২ টাকা করার সিদ্ধান্ত হয়।

মূলত মোবাইল নাম্বার পোর্টেবেলিটি (এমএনপি) বা একই নম্বরে থেকে অন্য অপারেটরের সুবিধা চালুর জন্য এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। তাই এমএনপি চালুর আগেই এটি কার্যকর হয়েছে বলে জানিয়েছে বিটিআরসি।

ঘটনাপ্রবাহ : কলরেট বৃদ্ধি

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter