যুগান্তর ডেস্ক    |    
প্রকাশ : ২১ এপ্রিল, ২০১৭ ০০:০০:০০ | অাপডেট: ২১ এপ্রিল, ২০১৭ ০৯:১৪:৩৭ প্রিন্ট
ব্রিটেনে আগাম নির্বাচন
স্কটল্যান্ডের স্বাধীনতার পথ সুগম হতে পারে

ব্রিটেনের আগাম নির্বাচন স্কটল্যান্ডের স্বাধীনতার দাবি প্রবল করতে পারে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, আগাম নির্বাচন স্কটিশ ন্যাশনাল পার্টির (এসএনপি) কিছু সমর্থন পেতে পারে। তবে স্কটল্যান্ডের স্বাধীনতার জন্য ফার্স্ট মিনিস্টার নিকোলা স্টারজিয়নের একটি গণভোটের দাবিকে আরও বলবৎ করবে। এএফপি জানায়, এসএনপি নেতা স্টারজিয়ন বুধবার এক বিবৃতিতে বলেছেন, তিনি যদি আগামী ৮ জুনের নির্বাচনে স্কটল্যান্ডের বেশিরভাগ আসনে জয় পান, তবে স্বাধীনতার জন্য একটি গণভোটের প্রতি প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মে’র বিরোধিতা ‘মুখ থুবড়ে পড়বে’।

২০১৫ সালের নির্বাচনে স্কটল্যান্ডের ৫৯টি আসনের ৫৬টিতেই জয়ী হয় এসএনপি এবং ২০১৭ সালের নির্বাচনে সংখ্যাগরিষ্ঠ আসনে জয় ধরে রাখবে বলে আশা করছে দলটি। ২০১৪ সালের গণভোটে ব্যর্থতার পর সম্প্রতি স্টারজিয়ন বলেছেন, দ্বিতীয়বারের জন্য গণভোট চান তিনি। তিনি মনে করেন, পরিস্থিতি আগের থেকে অনেক বদলেছে। ব্রেক্সিট তথা ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) থেকে ব্রিটেনের বের হয়ে যাওয়ার ব্যাপারে স্কটল্যান্ডের অভিযোগ রয়েছে। স্কটল্যান্ড মনে করে, তাদের ইচ্ছা ও মতের বিরুদ্ধে গিয়ে ইইউ থেকে নিজেদের প্রত্যাহার করে নিচ্ছে ব্রিটেন।

২০১৬ সালের ব্রেক্সিট গণভোটে ইইউর সঙ্গে থাকার পক্ষে ভোট দেয় স্কটল্যান্ডের ৬২ শতাংশ নাগরিক। অন্যদিকে ব্রেক্সিটের পক্ষে মোট জাতীয় ভোট ছিল মাত্র ৫২ শতাংশ। স্কটল্যান্ডের স্বাধীনতার প্রশ্নে স্টারজিয়ন এখন আরেকটি গণভোট দাবি করছেন। তবে সরকারের অনুমতি ছাড়া গণভোট সম্ভব নয়। প্রধানমন্ত্রী তেরেসা বলছেন, এখন গণভোটের সময় নয়। অ্যাবার্ডিন বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজনীতি ও আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধ্যাপক ক্রেইগ ম্যাক্যাঙ্গাস বলেন, ‘ব্রিটেনের এই আগাম নির্বাচনে এসএনপি অবশ্যই জিতবে। এতে কোনো সন্দেহ নেই।’ তবে দ্বিতীয় গণভোটের আয়োজন করা হবে কি হবে না সে ব্যাপারে একটা ঐকমত্যের দিক থেকে স্কটিশরা অনেক পিছিয়ে। ম্যাক্যাঙ্গাস বলেন, ‘তেরেসা মনে করছেন, স্কটিশদের যথেষ্ট স্বাধীনতা রয়েছে এবং সে কারণে স্বাধীনতার জন্য কোনো গণভোটের এখন প্রয়োজন নেই। তবে আরেকটি গণভোট কোনোভাবেই এড়াতে পারবেন না তিনি। কেননা স্টারজিয়নের হাতে এখনও কিছু তাস রয়েছে। ’ খুব শিগগির একটি গণভোটের জন্য পরিকল্পনা প্রণয়নের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন স্টারজিয়ন। তবে আগাম নির্বাচনের কারণে তার এ সম্পর্কিত চিন্তা-ভাবনা সাময়িক বন্ধ থাকতে পারে। ব্রিটেনের একজন উল্লেখযোগ্য নির্বাচন বিশ্লেষক ও স্ট্র্যাথক্লাইড বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজনীতি বিভাগের অধ্যাপক ন কার্টিস বলেন, এসএনপির স্কটল্যান্ডের বেশিরভাগ আসনে জয় পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে এবং স্বাধীনতার পক্ষেও লড়াই অব্যাহত রাখবে তারা। এসএনপি বর্তমানে ৫৯টি আসনের ৫৬টিই নিয়ন্ত্রণ করছে। সুতরাং তাদের জন্য একটা পথ অবশ্যই খোলা রয়েছে।


 


আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত