কী বার্তা দিয়ে গেলেন সুষমা স্বরাজ

রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে ভারতের সতর্ক অবস্থান * ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে ঢাকা-দিল্লি সম্পর্কে * তীক্ষè নজর থাকবে আগামী নির্বাচনের প্রতি

মাসুদ করিম
ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের বাংলাদেশ সফর ঢাকা ও দিল্লির মধ্যে সম্পর্কের ওপর ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে বলে কূটনৈতিক বিশ্লেষকরা মনে করেন। তারা বলেন, এ সফরে আরেকবার প্রমাণ হল, বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ককে ভারত অধিক গুরুত্ব দেয়। রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে ফেরত পাঠানোর বিষয়ে সুষমার ভূমিকা ইতিবাচক। তাছাড়া বাংলাদেশের আগামী জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে তার এ সফর খুবই তাৎপর্যপূর্ণ। এ সফরে স্পষ্ট যে, আগামী জাতীয় নির্বাচনের প্রতি ভারতের তীক্ষè নজর থাকবে। এছাড়া দ্বিপক্ষীয় বিভিন্ন ইস্যুতে অগ্রগতি আনতে এ সফরের বেশ গুরুত্ব রয়েছে। সুষমা স্বরাজের সফরকে খুবই ফলপ্রসূ বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্র সচিব মো. শহীদুল হক। তিনি সোমবার যুগান্তরকে বলেন, ‘ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর এ সফর খুবই সফল হয়েছে।বিস্তারিত

পুলিশের বিরুদ্ধে ঝুলে আছে দেড় শতাধিক অভিযোগ

এক-তৃতীয়াংশই গুম ও নির্যাতনের * মন্ত্রণালয় ও সদর দফতরে তালিকা দিয়েছে মানবাধিকার কমিশন

নুরুল আমিন
গুম, নির্যাতন, চাঁদাবাজি, ক্ষমতার অপব্যবহারসহ নানা অপরাধে জড়িয়ে পড়ছে পুলিশ। এসব অপরাধে জড়িত কিছু সদস্যের শাস্তি হলেও ধরাছোঁয়ার বাইরে থেকে যাচ্ছেন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। জাতীয় মানবাধিকার কমিশনে পুলিশের বিরুদ্ধে এমন অনেক অভিযোগ জমা পড়েছে। এসব অভিযোগের মধ্যে কিছু অভিযোগের সুরাহা হলেও পাঁচ বছর ধরে ঝুলে আছে ১৫৬টি অভিযোগ। তবে পুলিশ সদর দফতরের দাবি, অভিযোগের তালিকা ধরে তদন্তের কাজ শুরু হয়েছে। চলতি বছরের মধ্যেই এগুলো নিষ্পত্তি করা হবে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, সম্প্রতি নিষ্পত্তি না হওয়া অভিযোগের একটি তালিকা কমিশনের পক্ষ থেকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও পুলিশ সদর দফতরে পাঠানো হয়েছে। কমিশন সচিব স্বাক্ষরিত ওই তালিকায় ১৫৬টি অভিযোগের মধ্যে ২০১২ সালের চারটি, ২০১৩ সালেরবিস্তারিত

নিজেদের সক্ষমতা অনুযায়ী খেলতে পারেনি বাংলাদেশ

ব্যর্থতা নিয়ে বিশ্লেষণ রকিবুল হাসানের

স্পোর্টস রিপোর্টার
বাংলাদেশের হারের ধরন নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। টেস্টের পর ওয়ানডে ক্রিকেটেও শোচনীয় হার। তিন ওয়ানডেতে যথাক্রমে ১০ উইকেট, ১০৪ এবং ২০০ রানে হেরে হোয়াইটওয়াশ হয়েছে বাংলাদেশ। ৩-০-তে হোয়াইটওয়াশ। ওয়ানডে সিরিজে বাংলাদেশের ব্যর্থতা নিয়ে বিশ্লেষণ করেছেন সাবেক অধিনায়ক রকিবুল হাসান। যুগান্তরকে তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের এবারের দক্ষিণ আফ্রিকা সফর হতাশায় ভরা। ভালো কিছুই নেই। তবে এটা ঠিক যে, সেখানে সব দলকেই লড়াই করতে হয়। ব্যর্থতা নিয়ে একটি কথাই বলা যায়, বাংলাদেশ দল নিজেদের সক্ষমতা অনুযায়ী কোনো বিভাগেই খেলতে পারেনি।’ দক্ষিণ আফ্রিকায় দলের সমস্যাটা কোথায়? রকিবুল হাসান বলেন, ‘দেশের বাইরেও বাংলাদেশ ভালো করেছে, এমন প্রমাণ রয়েছে। দক্ষিণ আফ্রিকার কন্ডিশনের কথাও ভাবতে হবে। একটা সফর খারাপ যেতেইবিস্তারিত

কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে একজন কবির মৃত্যু

আনন্দনগর প্রতিবেদক
বাংলাদেশে প্রথম গণ-অর্থায়নে নির্মিত চলচ্চিত্র ‘একজন কবির মৃত্যু’। ক্রাউডফান্ডিং ফিল্ম ইনিসিয়েটিভ বাংলাদেশের উদ্যোগে নির্মিত ছবিটি পরিচালনা করেছেন আবু সাইয়ীদ। নিরীক্ষাধর্মী এ চলচ্চিত্রটির নির্মাণ কাজ শেষে গত ৯ অক্টোবর সেন্সর বোর্ডে জমা দেয়া হয়। ১৫ অক্টোবর সেন্সর বোর্ড ছবিটিকে আনকাট ছাড়পত্র দেয়। এদিকে ছবিটি আগামী ১০-১৭ নভেম্বর অনুষ্ঠিতব্য কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার হবে বলে জানিয়েছেন পরিচালক। উৎসবের মূল প্রতিযোগিতা বিভাগ ‘ইনোভেশন ইন মুভিং ইমেইজ’-এ প্রদর্শনের জন্য ছবিটি নির্বাচিত হয়েছে। ৫ সদস্যের একটি আন্তর্জাতিক জুরি বোর্ড এই বিভাগে নির্বাচিত ছবিগুলোর মধ্য থেকে ৩টি ছবিকে পুরস্কৃত করবেন। সেরা ছবি, সেরা পরিচালক ও স্পেশাল জুরি অ্যাওয়ার্ড পুরস্কার প্রাপ্তদের গোল্ডেন রয়েল বেঙ্গল টাইগারবিস্তারিত

প্রস্তুত উ. কোরিয়ার জৈব অস্ত্র

সদা সতর্ক থাকবে যুক্তরাষ্ট্রের পরমাণু বোমা বহনে সক্ষম বি-৫২ বিমানবহর * হামলা হলে গুটি বসন্ত, কলেরা, অ্যানথ্রাক্স ছড়িয়ে পড়বে

যুগান্তর ডেস্ক
জৈব যুদ্ধের লক্ষ্যে ‘ব্যাপকভাবে জৈব অস্ত্র উৎপাদন করছে’ উত্তর কোরিয়া। দেশটির একটি গবেষণাগারে গুটি বসন্ত, কলেরা, প্লেগ ও অ্যানথ্রাক্সের মতো মহামারী জীবাণু তৈরি করা হচ্ছে। ক্ষেপণাস্ত্র, ড্রোন ও প্লেনের মাধ্যমে ভয়াবহ এই সংক্রামক জীবাণুগুলো মার্কিন সেনাদের ওপর ছড়িয়ে দেয়া হতে পারে আশঙ্কা করা হচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্রের একটি গবেষণা প্রতিষ্ঠানের এক অনুসন্ধানী প্রতিবেদনে এ সব তথ্য উঠে এসেছে। প্রতিবেদনে বলা হয়, উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন গোপনে জৈব অস্ত্রের ব্যাপক উৎপাদন করছেন। প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, একটি কৃষি গবেষণাগারে দেশটির রসায়নবিদরা গুটি বসন্ত, কলেরা ও প্লেগের মতো বিশ্বের সবচেয়ে ভয়াবহ কয়েকটি মহামারী রোগের জীবাণু অস্ত্র প্রস্তুতি করছেন। দ্য সান এ খবরবিস্তারিত

কৃষি ঋণে খেলাপি পাঁচ হাজার কোটি টাকা

এক বছরে বেড়েছে ৫৮৩ কোটি টাকা

হামিদ বিশ্বাস
বড় ঋণের পাশাপাশি কৃষি খাতের ক্ষুদ্র ও মাঝারি ঋণেও বাড়ছে খেলাপি। চলতি বছরের সেপ্টেম্বর শেষে কৃষি খাতে খেলাপি ঋণের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৫ হাজার ১১২ কোটি ৭০ লাখ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে খেলাপির পরিমাণ ছিল ৪ হাজার ৫২৯ কোটি ৭২ লাখ টাকা। এক বছরের ব্যবধানে খেলাপি বেড়েছে ৫৮২ কোটি ৯৮ লাখ টাকা। এছাড়া গত তিন মাসে কৃষি খাতে ঋণ করা হয়েছে ৪ হাজার কোটি টাকার বেশি। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, এ ঋণের প্রায় অর্ধেক খেলাপির বাস্তব কারণ থাকলেও বাকি অর্ধেকের সুনির্দিষ্ট বা যৌক্তিক কোনো কারণ নেই। এক্ষেত্রে বিভিন্ন সময় অনিয়মের মাধ্যমে দেয়া ঋণগুলো খেলাপি হচ্ছে। বাংলাদেশ ব্যাংক কর্মকর্তারা বলছেন, বেসরকারি অনেক ব্যাংক এখনবিস্তারিত

খুলনায় টেন্ডার জমাদানে যুবলীগ-ছাত্রলীগের বাধা

খুলনা ব্যুরো
বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) খুলনা ডিভিশন কার্যালয়ে জায়গীরমহল লঞ্চঘাটে স্টিল জেটি, স্পাড ও সংযোগ রাস্তা নির্মাণসহ আনুষঙ্গিক প্রায় ৩২ লাখ টাকার কাজের টেন্ডার জমাদানে বাধা দেয়ার ঘটনা ঘটেছে। সোমবার দিনভর বিআইডব্লিউটিএর কার্যালয়ের সামনে ছাত্রলীগ ও যুবলীগের নেতাকর্মীরা পাহারা বসায়। তাদের বাধার মুখে সাধারণ ঠিকাদাররা শিডিউল জমা দিতে পারেননি। এ সময় কয়েকজন ঠিকাদারকে লাঞ্ছিত করা হয় বলে অভিযোগ করেছেন ঠিকাদাররা। বিআইডব্লিউটিএ কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, ১২ আগস্ট একটি জাতীয় পত্রিকায় ৩২ লাখ টাকার কাজের টেন্ডার বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। এ কাজের মধ্যে ছিল খুলনার কয়রা উপজেলার জায়গীরমহল লঞ্চঘাটে স্টিল জেটি, স্পাড ও সংযোগ রাস্তা নির্মাণে উল্লেখ ছিল। রোববার ছিল শিডিউল বিক্রিরবিস্তারিত

ষোড়শ সংশোধনী বাতিল রায়ের ‘পর্যালোচনা’ প্রসঙ্গে

বদরুদ্দীন উমর
বাংলাদেশের মতো পশ্চাৎপদ ও অনুন্নত দেশে সাধারণ মানুষের পক্ষে তাদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগের আদালত থেকে সুবিচার পাওয়া যে সহজ নয় এবং অধিকাংশ ক্ষেত্রেই যে তারা সে বিচার পান না এটা সবারই জানা। প্রথমত, বিচার প্রক্রিয়ার মধ্যে থেকে একজন ব্যক্তিকে যে খরচের পাল্লায় পড়তে হয় সে খরচ মেটানো গরিব মানুষের পক্ষে সম্ভব হয় না। তাছাড়া এ গরিবদের মধ্যে লেখাপড়ার অভাব থাকায় তাদের পক্ষে এক্ষেত্রে করণীয় ঠিক করাও হয়ে ওঠে না। কাজেই দেশে যে পরিমাণ অপরাধ সংঘটিত হয় সেগুলোর একটা বড় অংশ আদালত চত্বরের বাইরেই থেকে যায়। বাংলাদেশের সংবিধানে আইন, প্রশাসন ও বিচার বিভাগের ক্ষমতার পৃথকীকরণের ব্যবস্থা আছে। কিন্তু সেটা থাকলেও এ পৃথকীকরণবিস্তারিত

দারিদ্র্য নয়, গবেষণা দরকার ধন-সম্পদের ওপর

ড. মাহবুব উল্লাহ্
বাংলাদেশে আয়বৈষম্য বৃদ্ধির বিষয়টি নিত্যদিনের আলোচনায় উঠে আসছে। দেশের অর্থনৈতিক হালচাল নিয়ে যখনই কোনো আলোচনা হয়, হতে পারে সেটি সংবাদপত্রের কলামে অথবা টেলিভিশন টকশোতে, দেখা যায় বৈষম্যের বিষয়টি প্রায় সবাইকে ভাবিয়ে তুলছে। এ নিয়ে উদ্বেগ উৎকণ্ঠার কমতি নেই। বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষণার দলিলে বলা হয়েছিল মুক্তিযুদ্ধের লক্ষ্য হবে ৩টি। এ লক্ষ্যগুলো হল- সাম্য, মানবিক মর্যাদা ও সামাজিক ন্যায়বিচার। স্বাধীনতার পর প্রায় অর্ধশতক পার হতে চলেছে। কিন্তু মুক্তিযুদ্ধের মহান লক্ষ্যগুলো থেকে আমাদের দূরত্ব দিনে দিনে বাড়ছে। কেন এমন একটা পরিস্থিতির সৃষ্টি হল তা নিয়ে বিশ্লেষণধর্মী আলোচনা অনেক দীর্ঘ হবে। একটি কলামের পরিসরে সেই আলোচনা করা সম্ভব নয়। অর্থনীতির বিচারে সমাজে বৈষম্য যত কমবিস্তারিত

শিক্ষকদের স্বতন্ত্র বেতন স্কেল প্রয়োজন

৮ম জাতীয় পে-স্কেলে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন বেড়েছে প্রায় দ্বিগুণ, কিন্তু পরিতাপের বিষয়, এই নতুন পে-স্কেলে বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারীদের ভাগ্যের তেমন কোনো পরিবর্তন ঘটেনি। বিশেষ করে টাইম স্কেল তুলে দেয়ার কারণে বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারীরা ভীষণ হতাশ হয়েছেন। টাইম স্কেল তুলে দেয়ার কারণে সারা জীবন তাদের একই পদে থাকতে হবে। শিক্ষকদের বলা হয় মানুষ গড়ার কারিগর। এই মানুষ গড়ার কারিগররা আজ রাষ্ট্রে সবচেয়ে অবহেলিত ও বেতন বৈষম্যের শিকার। এমপিওভুক্ত শিক্ষকরা পরপর দু’বার বৈশাখী ভাতা ও ৫ শতাংশ বার্ষিক প্রবৃদ্ধি থেকে বঞ্চিত হয়েছেন। দেশের প্রায় ৯৫ শতাংশ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বেসরকারি। এর বেশিরভাগই আবার এমপিওভুক্ত। উন্নত দেশগুলোতে যেখানে শিক্ষকদের বেতন-ভাতাদি যথাযথ, সেখানে আমাদের দেশে শিক্ষকদের বেতন-ভাতা সরকারিবিস্তারিত

অদ্ভুত আকৃতির পাঁচ ফুল

রহস্যের কোনো শেষ নেই এই দুনিয়ায়। যেন অপার রহস্যের এক আধার এ পৃথিবী। প্রকৃতি আরও রহস্যময়। বিচিত্র সব রহস্য ছড়িয়ে রয়েছে প্রকৃতির কোণে কোণে। নানা রহস্যের মধ্যে বিচিত্র আকৃতির ফুল নিয়ে আমাদের আজকের আয়োজন। ইন্টারনেট অবলম্বনে গ্রন্থনা আরিফুল ইসলাম

ফ্লাইং ডাক অর্কিড ফ্লাইং ডাক বা উড়ন্ত পাতিহাঁস অর্কিড ফুল দেখতে পাওয়া যায় অস্ট্রেলিয়ায়। বনের ঘন লতাপাতায় ঢাকা থাকে বলে সহজে চোখে পড়ে না। এ ফুলের রং বেগুনি। এটি খুব বিশাল আকারের ফুল। প্রায় ৫০ সেন্টিমিটার পর্যন্ত লম্বা হয়ে থাকে। ঠোঁটের মতো ফুল ঠোঁটের মতো দেখতে এ বিচিত্র ফুল দেখা যায় দক্ষিণ ও উত্তর আমেরিকার কলম্বিয়া, ইকুয়েডর, কোস্টারিকা ও পানামার রেনফরেস্ট জঙ্গলে। এর ইংরেজি নাম হুপার্স লিপ। অবাধে গাছ কেটে ফেলার কারণে এ বিশেষ ফুলটি ক্রমশ হারিয়ে যেতে শুরু করেছে। কাঁথায় মোড়ানো শিশু এ ফুলের ইংরেজি নাম সোয়াডেলড বেবিজ। বাংলায় কাঁথায় মোড়ানো শিশু। ফুলটি দেখলে সেরকমই মনে হয়। এটি একটি অর্কিড ফুল। এর দেখা পাওয়াবিস্তারিত

বাংলা * প্রাথমিক বিজ্ঞান

বাংলা মডেল টেস্ট-৩

সবুজ চৌধুরী
সহকারী শিক্ষক, সেন্ট যোসেফ উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় মোহাম্মদপুর, ঢাকা সময়-২.৩০ মি পূর্ণমান-১০০ *নিচের আনুচ্ছেদটি পড়ে ১, ২, ৩ ও ৪ নম্বর ক্রমিকের প্রশ্নগুলোর উত্তর লিখ সময়টা ১৯৭১ সালের ৫ সেপ্টেম্বর। যশোরের ছুটিপুর ক্যাম্প। একটু দূরে গোয়ালহাটি গ্রামে টহল দিচ্ছিল পাঁচ মুক্তিযোদ্ধা। এদেরই নেতৃত্বে ছিলেন ল্যান্সনায়েক নূর মোহাম্মদ শেখ। পাকিস্তানি সেনারা টের পেয়ে যায় মুক্তিযোদ্ধাদের অবস্থান। রাজাকারদের সহায়তায় তিন দিক থেকে পাকিস্তানি সেনারা তাদের ঘিরে ফেলে। কিন্তু মুক্তিযোদ্ধারা দমবার পাত্র নন। এই দলেই ছিলেন অসীম সাহসী মুক্তিযোদ্ধা নান্নু মিয়া। কিন্তু প্রতিপক্ষের একটা গুলি হঠাৎ এসে লাগে তার গায়ে। নূর মোহাম্মদ তাকে এক হাত দিয়ে কাঁধে তুলে নিলেন আর অন্য হাত দিয়ে গুলি চালাতে থাকলেন।বিস্তারিত
আর্কাইভ
প্রিন্ট সংস্করণ অনলাইন সংস্করণ
Content loader
Content loader

আজকের প্রশ্ন

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ বলেছেন, রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশ বন্ধুহীন হয়ে পড়েছে। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?
 হ্যাঁ না মতামত নেই

বিজ্ঞাপন

Jugantor
মঙ্গলবার, ২৪ অক্টোবর ২০১৭ ইং
ফজর০৫:২৫
যোহর০১:১৫
আসর০৪:১৫
মাগরিব০৫:৩৯
এশা০৭:৪৫
সূর্যোদয় - ০৬:০০সূর্যাস্ত - ০৫:২৫
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত