স্বীকৃতি পাননি সুজানগরের সেই ছাত্র শহীদ সাত্তার

  সালাহ উদ্দিন আহমেদ, সুজানগর ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

পাবনার সুজানগরে ১৯৬৯ সালে প্রেসিডেন্ট ফিল্ড মার্শাল আইয়ুব খানের বিরুদ্ধে গণঅভ্যুথান ও বাংলাভাষাকে রাষ্ট্রীয়করণের লক্ষ্যে পূর্ব পাকিস্তানব্যাপী যে আন্দোলন সংগঠিত হয়েছিল তা ছিল নজিরবিহীন। এদিনে সুজানগরে ২১ ফেব্রুয়ারি ছাত্র, শিক্ষকসহ সব রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মী, ব্যবসায়ী, শ্রমিক, জনতা এক হয়ে প্রতিবাদী স্লোগান দিতে দিতে মিছিলটি থানার দিকে আগ্রসর হয়। মিছিলের শেষ প্রান্ত থেকে পুলিশ পাবনার সদর উপজেলার চরতারাপুর ইউনিয়নের টাটিপাড়া গ্রামের আমজাদ সরদার, কাঁচিপাড়া গ্রামের আবদুস শুকুর ও সুজানগরের চরপাড়া গ্রামের আবদুস সুবাহান (অ্যাডভোকেট) ৩ জনকে টেনে থানায় নিয়ে যায়। তাদের ছেড়ে না দেয়ায় মিছিলকারীরা থানায় ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। এ সময় রাইফেলের গুলিতে সুজানগর উচ্চবিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্র আ. সাত্তার মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। স্থানীয় ও জেলার ছাত্রনেতারা আ. সাত্তারকে স্মরণীয় করে রাখতে পাবনা এডওয়ার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের মিলনায়তনের নাম পরিবর্তন করে ভাষা শহীদ দিবস এলে ওই বিদ্যালয়ে পালিত হয় আবদুস সাত্তারের মৃত্যুবার্ষিকী। শহীদ সাত্তারের বৃদ্ধা মা রাবেয়া খাতুন এখনো সন্তানের শোকে হাউমাউ করে কাঁদেন। শহীদ আবদুস সাত্তারকে রাষ্ট্রীয়ভাবে স্বীকৃতি দেয়া এবং তার পরিবারকে সহযোগিতা করার জোর দাবি জানান এলাকাবাসী।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter