প্রত্যাশা আছে প্রাপ্তি নেই

  মো. আবু তাহের, দাগনভূঞা ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

৫২ ভাষা আন্দোলনে মাতৃভাষাকে সমুন্নত রাখার জন্য যে কয়জন আত্মোৎসর্গ করে গেছেন তাদের মধ্যে দাগনভূঞার সালামনগরের (লক্ষণপুর) ভাষা শহীদ আবদুস সালাম অন্যতম।

ভাষা আন্দোলনের ৬৬ বছর পূর্ণ হচ্ছে এ বছর। পাশাপাশি কিছু অপ্রাপ্তি রয়েছে শহীদ আবদুস সালামের পরিবারের। দীর্ঘ সময়ে তাদের যেসব চাওয়া পূরণ হয়নি তা হল- দাগনভূঞা বাজারের জিরো পয়েন্টকে সালাম চত্বর নামকরণ, ঢাকা-ফেনী-দাগনভূঞায় একটি সড়ক সালামের নামে নামকরণ, সালামের নামে উপজেলা অডিটরিয়াম পুনর্নির্মাণ, সালামনগরে হাইস্কুল ও কলেজ প্রতিষ্ঠা, এ স্থানকে পর্যটন এলাকা ঘোষণা এবং ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ফেনী সীমানা মোহাম্মদ আলী বাজারে সালামের নামে তোরণ নির্মাণ, ভাষাশহীদ আবদুস সালাম গ্রন্থাগার ও জাদুঘরের লাইব্রেরিয়ান ও কেয়ারটেকারের চাকরি স্থায়ীকরণ।

হুমকির মুখে ভাষাশহীদ সালাম গ্রন্থাগার ও স্মৃতি জাদুঘর : ছোট ফেনী নদীর লাগোয়া ভাষাশহীদ আবদুস সালাম গ্রন্থাগার ও জাদুঘর। অব্যাহত নদীভাঙনের কবল থেকে বাঁচাতে দাগনভূঞার সালামনগরে ভাষা শহীদ সালাম প্রাথমিক বিদ্যালয়কে রক্ষাকল্পে ভাঙন ঠেকানোর প্রয়াস থাকলেও রোধ করা যাচ্ছে না।

১০ বছরেও নির্মিত হয়নি ভাষা শহীদ সালাম অডিটরিয়াম : পরিবার ও এলাকাবাসীর দাবির পরিপ্রেক্ষিতে ভাষা শহীদ আবদুস সালামের নামে দাগনভূঞা উপজেলা পরিষদ অডিটরিয়ামটি ‘ভাষা শহীদ সালাম অডিটরিয়াম’ নামকরণ করা হয়। নামকরণের ২ বছরের মধ্যে পরিত্যক্ত হওয়ায় তা নিলামে বিক্রি করা হয়। ভেঙে ফেলার ১০ বছরেও নির্মিত হয়নি অডিটরিয়ামটি।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter