তারকাদের ভালোবাসায় দুই দশকে যুগান্তর

  বিনোদন ডেস্ক ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

তারকাদের ভালোবাসায় দুই দশকে যুগান্তর

১ ফেব্রুয়ারি উনিশ পেরিয়ে বিশ বছরে পা দিল দৈনিক যুগান্তর। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর শুভক্ষণে দেশের বিভিন্ন অঙ্গনের তারকারা যুগান্তরকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। পাশাপাশি নিজেদের পাওয়া না পাওয়ার কথাও জানিয়েছেন। শুভলগ্নের সেই ভালোবাসার শেষ পর্ব প্রকাশ হল আজ।

আমি যুগান্তরের নিয়মিত পাঠক। পত্রিকাটির প্রতিদিনের সংবাদ, ফিচারগুলো আমার ভালো লাগে। যুগান্তরের বয়স বিশে দাঁড়িয়েছে, শুনে বেশ ভালো লাগছে। পত্রিকাটিকে সবসময় জনগণের পক্ষে কথা বলতে দেখেছি। এ ধারাবাহিকতা বজায় রেখে সামনের দিনগুলোতেও এটি মানুষের পাশে থাকবে বলে আশা করি। শিল্প, সংস্কৃতির সার্বিক সহযোগিতায় যুগান্তর সবসময় কাজ করতে সচেষ্ট থাকবে এটাই কামনা। যুগান্তর পরিবারের জন্য রইল আমার অকৃত্রিম ভালোবাসা।

ফাতেমা তুজ জোহরা, নজরুলসঙ্গীত শিল্পী

যুগান্তরের সঙ্গে আমার সম্পর্ক দীর্ঘদিনের। পত্রিকাটির প্রতিষ্ঠাকালীন থেকেই সহযোগিতা পেয়ে আসছি। বিশেষ করে এর বিনোদন টিমের সঙ্গে আমার সুসম্পর্ক রয়েছে। প্রিয় পত্রিকা যুগান্তর বিশ বছরে পা দিয়েছে, শুনে বেশ ভালো লাগছে। একটি বিষয় লক্ষ করেছি, যুগান্তরে প্রকাশিত বেশ কিছু সাহসী প্রতিবেদন দেশ কাঁপিয়ে দিয়েছে। আশা করব, আগের মতো সাহসী ধারাবাহিকতা বজায় রেখে যুগান্তর অনেকদূর এগিয়ে যাবে, জনগণের পক্ষে কথা বলবে, চলচ্চিত্রের জন্য কাজ করবে। জন্মবার্ষিকীতে শুভকামনা রইল।

আমিন খান, চিত্রনায়ক

গণমাধ্যম শিল্প-সংস্কৃতির কথা বলে। গণমাধ্যমকে আমি সমাজের দর্পণ বলি। সমাজের সমস্যাসহ সব বিষয় আমরা গণমাধ্যমের মাধ্যমে জানতে পারি। আমরা যারা অভিনয় করি এ খবরটি আগে গণমাধ্যমের কাছে পৌঁছে। তারপর গণমাধ্যমকর্মীরা সবার কাছে পৌঁছে দেন। চলচ্চিত্রের একটি অপরিহার্য অংশ হিসেবে গণমাধ্যমকে আমি দেখি। যুগান্তর প্রতিষ্ঠাকালীন থেকেই সাধারণ মানুষের কথা বলে আসছে। সবসময় আমি যুগান্তরকে আমার পাশে পেয়েছি। আমার প্রত্যাশা সামনের দিনগুলোতে পাশে পাব। বিশতম জন্মদিনে সবাইকে শুভেচ্ছা জানাই।

রিয়াজ, চিত্রনায়ক

যুগান্তর নামের সঙ্গে যুগ যুগের একটি ঘ্রাণ পাই। অর্থাৎ যুগের সঙ্গে যুগান্তর। শুধু বিনোনদকর্মী হিসেবে নয়, একজন পাঠক হিসেবে বলতে চাই যুগান্তর সবার পত্রিকা। তারা সবসময় চেষ্টা করেছে আমাদের চলচ্চিত্র নিয়ে সংবাদ প্রকাশ করতে। এ পত্রিকার সংবাদগুলোয় বিশ্বাসযোগ্যতা খুঁজে পাই। ১৯ পেরিয়ে যুগান্তর বিশে পদার্পণ করেছে। বিগত দিনগুলোর মতো সবসময় জনগণের পক্ষে কাজ করবে এটাই কামনা করি। যুগান্তর পরিবারের জন্য আমার শুভ কামনা।

ফেরদৌস, চিত্রনায়ক

আমার ক্যারিয়ারের বয়স বেশি দিন হয়নি। শুরু থেকেই যুগান্তরের সহযোগিতা পেয়ে আসছি। আমার প্রিয় পত্রিকার মধ্যে যুগান্তর অন্যতম। আমি দেখেছি এটি সবসময় চেষ্টা করে জনগণের কথা বলতে। বিশ বছরে যুগান্তর। অতীতের মতো সামনের দিনগুলোতেও যুগান্তর নিষ্ঠার সঙ্গে সংবাদ প্রকাশ করে মানুষের পাশে থাকবে এটাই প্রত্যাশা আমার। অভিনেত্রী হিসেবে যুগান্তরের কাছে আমার বিশেষ প্রত্যাশা, তারা যেন আমাদের চলচ্চিত্র নিয়ে আরও কাজ করেন। আমাদের যে সমস্যা রয়েছে সেসব সমস্যা ও সমাধানের বিষয়গুলো তুলে ধরেন এটাই চাই।

নুসরাত ফারিয়া, চিত্রনায়িকা

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×