ইন্টারনেটে নিজের মতো করে গান প্রকাশ করা যায়

  হাসান সাইদুল ২০ মার্চ ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ইন্টারনেটে নিজের মতো করে গান প্রকাশ করা যায়

জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী ও সঙ্গীত পরিচালক হাবিব ওয়াহিদ। নিজের গানের পাশাপাশি অন্য শিল্পীদের গান নিয়েও ব্যস্ত থাকেন নিয়মিত। আগামী মাসে অস্ট্রেলিয়া ও মালয়েশিয়ায় বাবা ফেরদৌস ওয়াহিদের সঙ্গে একমঞ্চে গাইবেন তিনি।

এই ট্যুর, বর্তমান ব্যস্ততা ও সমসাময়িক প্রসঙ্গ নিয়ে আজকের ‘হ্যালো...’ বিভাগে কথা বলেছেন তিনি

* যুগান্তর: বর্তমান ব্যস্ততা কী নিয়ে?

** হাবিব ওয়াহিদ: সম্প্রতি কণ্ঠশিল্পী লিজার জন্য ‘এক যমুনা’ শিরোনামে একটি গান করেছি। আমার ইউটিউব চ্যানেলেই গানটি প্রকাশ হয়েছে। বর্তমানে নতুন প্রজেক্ট নিয়ে কাজ করছি। এছাড়া দীর্ঘদিন পর বাবা ও আমি একসঙ্গে বিদেশের মঞ্চে গাইব। এটি নিয়েও প্রস্তুতি নিচ্ছি।

* যুগান্তর: বাবা-ছেলেকে প্রায়ই একমঞ্চে গাইতে দেখা যায়। এটা কি ইচ্ছা করেই করেন?

** হাবিব ওয়াহিদ: আমরা ইচ্ছা করলে তো একসঙ্গে গাইতে পারি না। বিশেষ করে মঞ্চে। আয়োজকরা যাকে পছন্দ করেন তাকেই তো নেবেন। সে অনুযায়ী বাবা ও আমাকে হয়তো আয়োজকরা পছন্দ করেন। তাছাড়া বাবা-ছেলে কোনো বিষয় নয়। আমরা তো শিল্পী, দর্শকদের বিনোদন দিতে গান গাই।

* যুগান্তর: ‘ঝড়’ শিরোনামে একটি গানের ভিডিওতে বাবা-ছেলেকে একসঙ্গে মডেল হিসেবে দেখা গেছে। সামনে কি আপনাদের আরও দেখা যাবে?

** হাবিব ওয়াহিদ: ইচ্ছা আছে। আমাদের দর্শক গ্রহণ করেছে। বাবা-ছেলের রসায়নও অন্য রকম। আমারও ভালো লাগে বাবার সঙ্গে কাজ করতে। আশা করছি সামনেও আমাদের একসঙ্গে মিউজিক ভিডিওতে দর্শকরা দেখতে পাবেন।

* যুগান্তর: শেষ পর্যন্ত ইন্টারনেটেই গান বন্দি হয়ে গেল। এতে করে সব শ্রোতারা গান শুনছেন বলে মনে করেন?

** হাবিব ওয়াহিদ: আসলে যারা গানকে ভালোবাসেন তারা কোনো না কোনো উপায়ে তাদের পছন্দের গান খুঁজে বের করে শুনবেনই। আর ইন্টারনেটে বন্দির কথা বলেছেন, এছাড়া তো আর উপায় নেই। ইন্টারনেটে নিজের মতো করে গান প্রকাশ করা যায়। তবে সবার একটু সচেতন হতে হবে। নিজের সেন্সর কাজে লাগিয়ে কন্টেন্ট প্রকাশ করতে হবে।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×