প্রতিটি দিনই আমার কাছে চ্যালেঞ্জের

  আনন্দনগর প্রতিবেদক ০৪ মে ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

প্রতিটি দিনই আমার কাছে চ্যালেঞ্জের
উপস্থাপক ও অভিনেতা জুলহাস জুবায়ের

জুলহাস জুবায়ের মূলত উপস্থাপক। অভিনয়ের সঙ্গেও যুক্ত। সম্প্রতি অভিনয় করেছেন কলকাতার ‘মিস্টিক মেমোয়্যার’ নামে একটি সিনেমায়। এতে অভিনয় ও উপস্থাপনাসহ সমসাময়িক বিষয় নিয়ে আজকের ‘হ্যালো...’ বিভাগে কথা বলেছেন তিনি

* যুগান্তর: উপস্থাপনা করছিলেন, হঠাৎ করে কেন সিনেমায় এলেন?

** জুলহাস জুবায়ের: ছোটবেলা থেকেই টেলিভিশনে কাজের আগ্রহ ছিল। গণমাধ্যমে কাজ করার আগ্রহ ও নেশা থেকেই বিশ্ববিদ্যালয় জীবনে টেলিভিশনে কাজ শুরু করি। এরপর ধীরে ধীরে সিনেমায় কাজের আগ্রহ জন্মে। আমার বাবার এক সময়কার স্বপ্ন ছিল সিনেমায় অভিনয় করবেন। বাবা চলে যাওয়ার পর তার স্বপ্নকে বাস্তবে আনতেই বড় পর্দায় কাজ শুরুর প্রচেষ্টাকে গুরুত্ব দিই।

* যুগান্তর: অভিষেকটা ভিনদেশে হল কেন?

** জুলহাস জুবায়ের: আমি সবসময় কাজের ক্ষেত্রে পরিবেশ ও গল্প দুটো বিষয়কে গুরুত্ব দিই। গল্পই আমার কাছে সব, সেটা ঢাকা না কলকাতা, তা আমার কাছে কম গুরুত্বপূর্ণ। অভিষেকটা কোথায় হচ্ছে সেটা গুরুত্বপূর্ণ নয়, কাজটাই গুরুত্বপূর্ণ। আর কলকাতা ভিন্ন দেশের একটি জায়গা বলে বিষয়টিকে একটু চ্যালেঞ্জিং ভাবছি। এ সিনেমার পরিচালক অপরাজিতা ঘোষ দারুণ গোছানো মানুষ, কাজ বুঝে করেন। তার প্রথম পূর্ণদৈর্ঘ্য সিনেমা বলেই তার চ্যালেঞ্জের সঙ্গে আমি নিজেকে যুক্ত করেছি।

* যুগান্তর: ‘মিস্টিক মেমোয়্যার’ সিনেমার প্রতিপাদ্য বিষয় কী?

** জুলহাস জুবায়ের: এখনই ছবির গল্প ও প্রতিপাদ্য ঘোষণা করা যাবে না চুক্তির কারণে। তবে বলা যায়, এটি মানুষের গল্প। সবার জীবনের বসন্তের গল্প, যে গল্প শহরের ইটপাথরের মানুষকে আবার মানুষ হতে আশা জাগায়।

* যুগান্তর: ঢাকাই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করার ইচ্ছে আছে?

** জুলহাস জুবায়ের: বেশক’টি গল্প নিয়ে গত কয়েক বছর ধরে পড়াশোনা ও গবেষণার মধ্যে আছি। অচিরেই কিছু কাজ শুরু করার কথা রয়েছে। নতুন নির্মাতা ও ভিন্নমাত্রার গল্পের স্বাদ থাকলেই নেমে যাব সিনেমায়।

* যুগান্তর: ভবিষ্যতে পেশা হিসেবে কোনটিকে বেছে নেবেন?

** জুলহাস জুবায়ের:উপস্থাপনা আমার প্রথম পরিচয়। গানও করি। পাশাপাশি অভিনয় ও সাংবাদিকতা। সবগুলোই আমার ভালোলাগার জায়গা। একটি ছেড়ে অন্যটি নিয়ে বাঁচতে পারব না। তাই সবকিছু নিয়েই সবার মাঝে বেঁচে থাকতে চাই।

* যুগান্তর: বর্তমান পেশায় আপনার সন্তুষ্টি কেমন?

** জুলহাস জুবায়ের: প্রতিটি দিনই আমার কাছে চ্যালেঞ্জের। সবকিছুতেই শেখার সুযোগ খুঁজি আমি। শিখতে না পারলে জীবনে সন্তুষ্টি আসবে না। পেশাকে আমি নেশা ও আগ্রহ হিসেবে দেখি বলে শেখার অনেক সুযোগ পাই। যে কারণে দারুণ একটি সময় পার করছি।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×