অভিনয়শিল্পী সংঘ নির্বাচন

প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নেই ব্যস্ত তারকারা

  সোহেল আহসান ১৫ জুন ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নেই ব্যস্ত তারকারা

দুই বছরের মেয়াদ শেষ হওয়ার পর নতুন নেতৃত্ব নির্বাচনের জন্য ২১ জুন অনুষ্ঠিত হবে অভিনয়শিল্পী সংঘ নির্বাচন-২০১৯। এ নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীরা এরই মধ্যে প্রচারণা শুরু করেছেন।

অভিনয়শিল্পী সংঘের ৮১৯ নিবন্ধিত সদস্যের মধ্যে এবার ভোটার হয়েছেন ৬০৫ জন। এ ভোটাররাই ২১ পদের জন্য আগামী দুই বছরের নতুন নেতৃত্ব নির্বাচন করবেন বলে নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে। প্রবীণ অভিনেতা খায়রুল আলম সবুজ এ নির্বাচনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

কমিশন সূত্রে আরও জানা গেছে, বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে ২১ জুন সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে এবং সেদিন রাতেই ভোটের ফল প্রকাশ হবে। এ নির্বাচনের প্রার্থীদের সম্পর্কে খোঁজ নিয়ে দেখা গেছে, বেশিরভাগ প্রার্থীরই তেমন পরিচিতি নেই বিনোদন জগতে। অন্যদিকে জনপ্রিয় ও ব্যস্ত তারকাদের উপস্থিতি সামান্য।

সভাপতি পদে শহীদুজ্জামান সেলিম, তুষার খান। সহ-সভাপতি পদে আজাদ আবুল কালাম ও তানিয়া আহমেদ। সাধারণ সম্পাদক পদে আহসান হাবিব নাসিম। যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদে আনিসুর রহমান মিলন, রওনক হাসান ও সুমনা সোমা। সাংগঠনিক সম্পাদক পদে লুৎফর রহমান জর্জ। দফতর সম্পাদক পদে আরমান পারভেজ মুরাদ ও উর্মিলা শ্রাবন্তী কর।

অনুষ্ঠান সম্পাদক পদে জিনাত শানু স্বাগতা। আইন ও কল্যাণ সম্পাদক পদে শামীমা তুষ্টি। প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক পদে প্রাণ রায় এবং কার্যনির্বাহী সদস্য পদে জাকিয়া বারী মম, বন্যা মির্জা, শামস সুমন, নাদিয়া আহমেদ। এদিকে সাংগঠনিক সম্পাদক পদে একজন প্রার্থী থাকায় সেই পদে কোনো নির্বাচন হবে না।

এ ১৮ জন ছাড়া বাকি ৩৪ সদস্যের তেমন কোনো পরিচিতি নেই। বর্তমান সময়ের ব্যস্ত তারকা মোশাররফ করিম, তৌকীর আহমেদ, জাহিদ হাসান, মাহফুজ আহমেদ, চঞ্চল চৌধুরী, অপূর্ব, সজল, আফরান নিশো, নুসরাত ইমরোজ তিশা, মেহজাবিন চৌধুরীরা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নেই।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক জনপ্রিয় তারকা যুগান্তরকে বলেছেন, ‘অভিনয়শিল্পী সংঘের নির্বাচন নিয়ে আমাদের কোনো আগ্রহ নেই। নির্বাচনের সময় প্রার্থীরা শুধু ভোট চাইতে আসেন। এছাড়া নির্বাচিত হওয়ার পর তারা শিল্পীদের সুবিধা-অসুবিধা নিয়ে কোনো কাজ করেন না। কাজের ভালো পরিবেশ সৃষ্টি, নাটকপাড়ার শৃঙ্খলা বজায় রাখার বিষয়েও তেমন কোনো কার্যকর ভূমিকা নেয় না এ সংগঠন। তাই এ সংগঠনের প্রতি আমার মতো আরও অনেকের আগ্রহ নেই। হয়তো নির্বাচনের দিন ভোট দিতে যাব। তবে নতুন নেতৃত্বের কাছে আমার অনুরোধ থাকবে, তারা যেন বিপদ-আপদে কিংবা বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মসূচি নিয়ে শিল্পীদের পাশে থাকে। তাহলেই সংগঠনটির প্রতি শিল্পীদের নির্ভরতা বাড়বে এবং কাজের ক্ষেত্র সুন্দর হবে।’

অন্যদিকে এ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ হতে আর বাকি মাত্র এক সপ্তাহ। তারপরও প্রার্থীদের প্রচারণাতে কোনো গতি লক্ষ করা যাচ্ছে না। কেউ কেউ অভিযোগ করেছেন, এটি শুধু একটি আনুষ্ঠানিকতা মাত্র। তারপরও নতুন নেতৃত্বের দিকে তাকিয়ে আছেন শিল্পীরা। প্রত্যাশার ফুলঝুরিগুলো বাস্তবে প্রতিফলিত হোক, এমনটাই ভাবনা সংশ্লিষ্টদের।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×