হ্যালো...

আমি একজন সুখী মানুষ

  সোহেল আহসান ০৬ নভেম্বর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

নাজিয়া হক অর্ষা
অভিনেত্রী নাজিয়া হক অর্ষা

একটি সুন্দরী প্রতিযোগিতা দিয়ে মিডিয়ায় আসেন নাজিয়া হক অর্ষা। এরপর মডেলিং ও অভিনয়ে কাজ শুরু করেন।

বর্তমানে ধারাবাহিক ও খণ্ড নাটকে অভিনয়ে ব্যস্ত এ অভিনেত্রী। বর্তমান ব্যস্ততা ও সমসাময়িক বিষয় নিয়ে আজকের ‘হ্যালো...’ বিভাগে কথা বলেছেন তিনি।

* যুগান্তর: বর্তমান ব্যস্ততা কী নিয়ে?

** অর্ষা: বরাবরের মতো নাটকের অভিনয় নিয়েই ব্যস্ত আছি। প্রায় প্রতিদিনই শুটিং করছি। এ ব্যস্ততা আমার ভালো লাগে। কারণ অভিনয়কেই পেশা হিসেবে নিয়েছি।

* যুগান্তর: নাটকের অভিনয় নিয়ে কি সন্তুষ্ট আপনি?

** অর্ষা: বর্তমানে যেভাবে কাজ করছি, তাতে আমি সন্তুষ্ট। এখন একাধিক ধারাবাহিক নাটকে অভিনয় করছি। এগুলো হল- সকাল আহমেদের পরিচালনায় ‘ভদ্রপাড়া’, রুমান রুনির ‘ফাইভ স্টার মেস’, আশরাফুজ্জামানের ‘হ্যামিলনের বাঁশিওয়ালা এখন ঢাকায়’। এছাড়া এক খণ্ডের নাটকগুলো হল- ইফতেখার আহমেদ ফাহমির পরিচালনায় ‘আমার আছে জল’, আরিফ এ আহনাফের ‘ইম্পসিবল’ ও ‘জোর করে ভালোবাসা হয় না’। এর পাশাপাশি ওয়েব সিরিজেও কাজ শুরু করেছি। এর মধ্যে একটি গত মাসে প্রচার হয়েছে। ‘বুমেরাং’ নামের আরও একটি ওয়েব সিরিজ শিগগিরই প্রচার শুরু হবে।

* যুগান্তর: এক দশক অভিনয় ক্যারিয়ারে সিনেমায় পাওয়া যাচ্ছে না আপনাকে, কেন?

** অর্ষা: আমি এ সময়ের মধ্যে দুটি সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হয়েছিলাম। আবির শ্রেষ্ঠর পরিচালনায় ‘ফেরারি ফানুস’ সিনেমাটির অল্প একটু কাজ হয়ে পরে আর এগোয়নি। সম্ভবত সেটি আর আলোর মুখ দেখবে না। তবে শাহরিয়ার নাজিম জয়ের পরিচালনায় ‘অর্পিতা’ নামের একটি সিনেমায় কাজ করেছি, সেটি মুক্তিও পেয়েছে। সিনেমায় প্রচুর কাজ করতে হবে এমন চিন্তা কখনই আমার ছিল না। তবে আগের চেয়ে এখন সিনেমার পরিবেশ ভালো।

* যুগান্তর: ক্যারিয়ারের এ পর্যায়ে এসে মিডিয়া থেকে আপনার প্রাপ্তি কী?

** অর্ষা: আমার এ মিডিয়া ক্যারিয়ারে অনেককেই আসতে এবং যেতে দেখেছি। সেই হিসেবে আমি এখনও টিকে আছি। আমার কাজের ধরন একবারেই আলাদা। আমি বুঝে কাজ করার চেষ্টা করি। সহকর্মীদের কাছ থেকে ভালো সহযোগিতা পাই। আর দর্শক তো আছেনই। দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা করে কাজ করায় আমি অভ্যস্ত নই। তবে আমি একজন সুখী মানুষ।

* যুগান্তর: তরুণ অভিনয়শিল্পীরা নিয়ম মানতে চান না, এমন অভিযোগ করেন অনেকেই। এ নিয়ে আপনার বক্তব্য কী?

** অর্ষা: এটা হয়তো কিছুটা সত্য। আমাদেরই অনেক সহকর্মী সময়মতো কাজে উপস্থিত হন না। তবে তাদের সংখ্যা কম। অন্যদিকে বেশিরভাগ সহকর্মীই কিন্তু নিয়ম মেনেই কাজ করে যাচ্ছেন। আমিও নিয়মের মধ্যে থেকেই কাজ করে যাওয়ার চেষ্টা করি। হঠাৎ করেই নির্মাতাদের অনুরোধে অতিরিক্ত সময় কাজ করতে হয়। এতে করে পরের দিন অন্য নির্মাতার কাজে ব্যাঘাত ঘটে। তাছাড়া রাস্তাঘাটের যানজটও অনেক সমস্যা তৈরি করে।

* যুগান্তর: কিছুদিন আগে আপনার বিয়ের গুঞ্জন শোনা গিয়েছিল...

** অর্ষা: খবরটি সত্য নয়। এখন বিয়ে নিয়ে কোনো প্রস্তুতি নেই। অভিনয়ের বাইরে আপাতত অন্য কোনো দিকে মনোযোগ দিচ্ছি না।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×