হ্যালো...

আমার জীবনে কোনো হতাশা নেই

  সোহেল আহসান ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

চিত্রনায়িকা আইরিন

মডেলিং দিয়ে মিডিয়ায় এলেও এখন চিত্রনায়িকা হিসেবেই পরিচিত আইরিন। একাধিক ছবির কাজ হাতে রয়েছে তার। এছাড়া বিদেশি ছবিতেও অভিনয় করছেন।

অভিনয় এবং অন্যান্য বিষয় নিয়ে আজকের ‘হ্যালো...’ বিভাগে কথা বলেছেন তিনি।

* যুগান্তর: এখন কী নিয়ে ব্যস্ততা যাচ্ছে?

** আইরিন: মিডিয়ার কাজ নিয়েই ব্যস্ত আছি। তবে তা অভিনয়বিষয়ক নয়, আগামী বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে কিছু স্থিরচিত্রে মডেলিংয়ের কাজ করছি। এগুলো মূলত বিভিন্ন ধরনের পোশাক নিয়ে। এছাড়া স্টেজ শোতেও নিয়মিত পারফর্ম করছি। অভিনয়ের ব্যস্ততা কম থাকলেও সব মিলিয়ে ব্যস্তই আছি।

* যুগান্তর: কয়েকটি ছবিতে অভিনয়ের জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়েছিলেন। সেগুলোর অগ্রগতি কী?

** আইরিন: কয়েকটি ছবির কাজ শেষ। এগুলো মুক্তির অপেক্ষায় আছে। এর মধ্যে দুটি হল বুলবুল জিলানীর পরিচালনায় ‘রৌদ্রছায়া’ ও অরণ্য পলাশের ‘গন্তব্য’। এছাড়া অল্প কিছু কাজ বাকি আছে এ রকম ছবিও একাধিক। সেগুলো হল অনন্য মামুনের পরিচালনায় ‘পার্টনার’ ও ‘আহারে জীবন’ এবং আমিরুল ইসলাম শোভার ‘সেইভ লাইফ’। তবে চলতি বছর আমার অভিনীত একাধিক ছবি মুক্তি পাবে। এছাড়া নতুন কিছু ছবিতেও অভিনয়ের ব্যাপারে কথা চলছে।

* যুগান্তর: কলকাতার ছবিতেও অভিনয় করছেন। সেখানে কাজের অভিজ্ঞতা কেমন?

** আইরিন: অবশ্যই ভালো। কারণ কলকাতার ছবি আগের থেকে অনেক উন্নত হয়েছে। আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহারের পাশাপাশি বেশ গুরুত্ব দিয়ে ছবি নির্মিত হচ্ছে। পেশাদার মনোভাব নিয়েই কাজ হচ্ছে সেখানে। আমি সেখানকার দুটি ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হয়েছি। রাজাদিত্য ব্যানার্জির পরিচালনায় ‘শিবরাত্রী’ নামের একটি ছবির কাজ শেষ করেছি। পার্থ সারথী ভট্টাচার্যের পরিচালনায় ‘কাউন্ট ডাউন’ নামে আরেকটি ছবির শুটিং এখনও শুরু হয়নি।

* যুগান্তর: ওয়েব সিরিজেও তো আপনাকে দেখা যাচ্ছে...

** আইরিন: হ্যাঁ। অনন্য মামুনের পরিচালনায় নতুন একটি ওয়েব সিরিজে অভিনয় করেছি। নাম ‘ধোঁকা’। এর কাজ শেষ। এখন শুধু মুক্তির অপেক্ষা। কারণ এতে আমি বেশ সুন্দর একটি চরিত্রে অভিনয় করেছি। আশা করছি এটি দর্শকের ভালো লাগবে। ভালো গল্পও নির্মাণ পরিকল্পনা উন্নত হলে মাঝে মধ্যেই ওয়েব নাটকে কাজ করতে চাই।

* যুগান্তর: র‌্যাম্প ও টিভি বিজ্ঞাপনে কি নিয়মিত কাজ করছেন?

** আইরিন: ২০১৩ সালের পর থেকে র‌্যাম্পে আর কাজ করছি না। তবে টিভি বিজ্ঞাপন নিয়মিতই করা হচ্ছে। সম্প্রতি আমার নতুন একটি টিভি বিজ্ঞাপন টিভিতে প্রচার শুরু হয়েছে। কয়েকটি নতুন বিজ্ঞাপনে কাজের কথাও চলছে।

* যুগান্তর: ক্যারিয়ার নিয়ে কোনো হতাশা কিংবা অপূর্ণতা আছে?

** আইরিন: আমার জীবনে কোনো হতাশা নেই। তবে অপূর্ণতা আছে। এগুলো হল কাজ নিয়ে। যেহেতু ছবিতে অভিনয় করছি, তাই এ অঙ্গনের অনেক অসামঞ্জস্য বিষয় চোখে পড়ছে। যেমন, সিনেমা হল কমে যাচ্ছে, ছবি নির্মাণের সংখ্যাও কম। আর ছবিতে বিনিয়োগকারীর সংখ্যাও এখন কম। তবে আমি আমাদের সিনে ইন্ডাস্ট্রি নিয়ে আশাবাদী। অনেক মেধাবী মানুষ এ অঙ্গনে এখন কাজ করছেন। তাদের কাজের মাধ্যমে অসঙ্গতিগুলো হয়তো কাটিয়ে উঠবে একদিন।

আরও খবর
 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত