করোনা দুর্যোগে অসচ্ছল শিল্পীদের সহযোগিতা করলেন অনন্ত

  আনন্দনগর প্রতিবেদক ২৮ মার্চ ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাস আক্রমণে দিশেহারা মানবজাতি। এর প্রভাব পড়তে শুরু করেছে বাংলাদেশেও। এরই মধ্যে আক্রমণও শুরু করেছে। প্রতিরোধ ব্যবস্থায় সরকার ঘোষিত দশ দিনের ছুটিতে দেশবাসী ঘরেই অবস্থান করছে। এর ফলে বন্ধ রয়েছে সব ধরনের কাজ কর্ম। স্বাভাবিকভাবে বন্ধ রয়েছে সব ধরনের শুটিংসংক্রান্ত কার্যক্রম। এর ফলে চলচ্চিত্রের অসচ্ছল শিল্পীরা বেশ বেকায়দায় পড়েছেন। এ অসচ্ছল শিল্পীদের পাশে দাঁড়ানোর ঘোষণা আগেই দিয়েছেন ঢাকাই ছবির জনপ্রিয় নায়ক ও প্রযোজক অনন্ত জলিল। কথা ছিল ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে এফডিসিতে ৪০০ অসচ্ছল শিল্পীকে নিত্যপ্রয়োজনীয় বিভিন্ন দ্রব্যাদি দিয়ে সহযোগিতা করবেন; কিন্তু তার আগেই দেশের মানুষকে কোনো ধরনের জনসমাগম থেকে বিরত থাকার জন্য সরকার অনুরোধ করেছে। তাই বাধ্য হয়ে এফডিসিতে ২৬ মার্চের কার্যক্রম বন্ধ রাখতে হয়েছে অনন্তকে। তবে কথা অনুযায়ী তিনি অসচ্ছল শিল্পীদের সহযোগিতা ঠিকই পৌঁছে দিয়েছেন। গতকাল তার দেয়া এসব দ্রব্য চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সভাপতি মিশা সওদাগর ও সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান গ্রহণ করেছেন। এরপর অসচ্ছল শিল্পীদের পূর্বনির্ধারিত তালিকা অনুযায়ী আলাদাভাবে তাদের কাছে পৌঁছে দেয়ার কথা জানিয়েছেন সমিতির এ দুই নেতা।

এ প্রসঙ্গে অনন্ত বলেন, ‘গত ২৬ মার্চ এফডিসির দুটি ভিন্ন স্থান থেকে বেকার ও অসচ্ছল সহকারী শিল্পী ও কলাকুশলীদের জন্য নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য বিতরণ করা ও সঙ্গে হ্যান্ড স্যানিটাইজার এবং গ্লাভস দেয়ার পরিকল্পনা করেছিলাম। চলচ্চিত্রের তিন সমিতি থেকে ৪০০ লোকের জন্য এসবের ব্যবস্থা করার কথা ছিল; কিন্তু সরকার ঘোষিত জনসমাগমের ওপর নিষেধাজ্ঞার কারণে আমাকেও সেই প্রোগ্রাম বাতিল করতে হয়েছে। করোনাভাইরাস প্রতিরোধের জন্য ও সরকারের নির্দেশনার প্রতি সম্মান প্রদর্শনপূর্বক প্রযোজক ও শিল্পী সমিতির সংশ্লিষ্টরা আয়োজনটি সেদিন স্থগিত করেছেন। তবে প্রতিশ্র“তিকৃত সহযোগিতা আমি পৌঁছে দিয়েছি শিল্পী সমিতির বর্তমান কমিটির নেতাদের কাছে। বেকার ও অসচ্ছল ২২০ শিল্পীর ঘরে ঘরে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি, মাস্ক ও হ্যান্ডওয়াশ আমার ফ্যাক্টরির গাড়ি ও লোকজন দিয়ে শিল্পী সমিতির সভাপতি মিশা সওদাগর ভাই এবং জায়েদ খানের সার্বিক সহযোগিতায় গতকাল পৌঁছে দেয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে।’ পরবর্তী সময়ে দেশের পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে আরও সহযোগিতা করব ইনশাআল্লাহ।’

এদিকে অনন্তর কাছ থেকে সহযোগিতা প্রাপ্তির বিষয়টি নিয়ে শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান বলেন, ‘অনন্ত ভাইয়ের সহযোগিতা আমাদের কাছে পৌঁছেছে। আমরা পাওয়া মাত্রই অনেকের বাসায় সেটা পৌঁছে দিয়েছি। বাকিদের বলেছি আলাদা আলাদাভাবে শিল্পী সমিতিতে এসে তাদের জন্য বরাদ্দ সহযোগিতা নিয়ে যেতে। আসতে না পারলে আমরা সেটাও পৌঁছে দেব।’

আরও খবর
 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত