হ্যালো...

সৃষ্টিকর্তা নিশ্চয়ই আমাদের ক্ষমা করবেন

  অরণ্য শোয়েব ৩০ মার্চ ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ছোটপর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা আবদুন নূর সজল। নাটক ও সিনেমার শুটিং নিয়ে ব্যস্ত থাকলেও করোনাভাইরাসের জন্য বর্তমানে পরিবারের সঙ্গে অবস্থান করছেন। বর্তমান সময় কীভাবে কাটছে, অভিনয় ও অন্যান্য বিষয় নিয়ে আজকের ‘হ্যালো ...’ বিভাগে কথা বলেছেন তিনি

* যুগান্তর: শুটিং বন্ধের আগে শেষ ব্যস্ততা কী নিয়ে ছিল?

** সজল: সেই সময়টায় নাটকের শুটিং নিয়ে ব্যস্ত ছিলাম। এগুলো ছিল একখণ্ডের নাটক। শেষ শুটিং ছিল ২৬ মার্চের দুটি নাটকের। এরপরও কয়েকটি কাজের প্রস্তাব এসেছিল; কিন্তু এগুলো চূড়ান্ত করার আগেই শুটিং বন্ধ হয়ে যায়।

* যুগান্তর: করোনা আতঙ্কে এখন সব বন্ধ। আপনি এখন কোথায় অবস্থান নিয়েছেন?

** সজল: বর্তমানে আমি বাসায় আছি। সম্মিলিতভাবে শুটিং বন্ধ করার আগেই ১৭ মার্চ থেকে আমি কোনো কাজ করছি না। পরিস্থিতি এখনও অনুকূলেই আছে মনে হয়। সব ঠিক হোক তারপর কাজ করব। আর কিছুদিন পরই ঈদ উৎসব। যদি পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয় তাহলে ঈদের নাটকে অভিনয় করব।

* যুগান্তর: এ ভাইরাস থেকে মুক্তি পাওয়ার আশা কতটুকু করেন?

** সজল: অবশ্যই এ খারাপ সময় স্থায়ী হবে না। মহান সৃষ্টিকর্তা নিশ্চয়ই আমাদের দয়া করবেন। পাশাপাশি এটি থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য আমাদের সতর্ক থাকতে হবে। সরকার ও স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে যেসব করতে বলা হয়েছে সেগুলো মানতে হবে। এখন বাইরের সব কাজ পরিহার করতে হবে। কয়েকটি দিন ঘরে থাকা অতীব জরুরি। আশা করছি সবকিছু আগের মতো হয়ে যাবে।

* যুগান্তর: আপনার অভিনীত দুটি ছবি মুক্তির অপেক্ষায় আছে। ছবিগুলো নিয়ে কতটুকু আশাবাদী?

** সজল: মুক্তির অপেক্ষায় আছে নাদের চৌধুরী পরিচালিত ‘জিন’ এবং বদিউল আলম খোকন পরিচালিত ‘হারজিৎ’ নামে দুটি ছবি। এর মধ্যে ‘হারজিৎ’ ছবির কিছু কাজ বাকি আছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে এ ছবির শুটিং আবারও শুরু হবে শুনেছি। জিন ছবিটি নিয়ে আমি একটু বেশি আশাবাদী। এটি বাস্তব জীবন থেকে নেয়া গল্প। নাদের ভাই খুব আপন মানুষ। একসঙ্গে অনেক কাজই করা হয়েছে তার সঙ্গে। আশা করছি এ ছবি সবার জন্য একটি সুসংবাদ বয়ে আনবে।

* যুগান্তর: নতুন ছবিতে অভিনয়ের কোনো খবর আছে?

** সজল: এখন এ সময়ে নতুন করে কোনো সিনেমার খবর দিতে চাই না। অবস্থা ঠিক হোক আমি নিজেই তখন জানাব। শুধু এটুকু বলব, কয়েকটি ছবির গল্প এসেছে আমার কাছে। এর মধ্যে থেকে দুটো গল্প ভালো লেগেছে। এ বছরই আরও একটি সিনেমা করব, এটি নিশ্চিত।

* যুগান্তর: সিনেমা নাকি নাটক, কোনটায় অভিনয় করতে বেশি ভালো লাগে?

** সজল: আমি এ দুটো মাধ্যমকে আলাদা করে চিন্তা করি। ভালোবাসার জায়গা হচ্ছে নাটক। আর স্বপ্ন যদি বলি তাহলে সিনেমা। দুটোতেই কাজ করতে ভালো লাগে। শুধু অভিনয় নয়, যখন যে কাজ করি সেটাই আমার কাছে চ্যালেঞ্জ।

* যুগান্তর: প্রযোজনা কিংবা পরিচালনায় আসার ইচ্ছে আছে?

** সজল: এ প্রশ্নের উত্তরটা আমার কাছে নেই এখন। বললে তো কত কিছুই বলা যায়। তবে আমার পরিচালনা করার ইচ্ছে নেই। এখনও অনেক সময় আছে। দেখা যাক কী হয়।

* যুগান্তর: আপনার সমসাময়িক অনেকেই বিয়ে করে সংসারী হয়েছেন। আপনি শুভ কাজটি করতে দেরি করছেন কেন?

** সজল: আমার বিয়ের বিষয়টি নিয়ে আত্মীয়-স্বজন থেকে শুরু করে ভক্তরাও অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন। বিয়ের জন্য আমিও কিন্তু অপেক্ষা করছি। বিয়ে নিয়ে আমার নির্দিষ্ট একটি পরিকল্পনা আছে। সেই বিষয়টি মাথায় রেখেই এগোচ্ছি। তবে তাড়াহুড়া করে কিছু করতে চাই না। প্রস্তুতিও প্রায় শেষ পর্যায়ে। করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হলেই এ বিষয়ে একটি সুখবর দিব। বিয়ে তো বারবার করব না। তাই সময় একটু বেশি লাগলে ক্ষতি কী। চলতি বছরেই শুভ কাজটি সম্পন্ন করার বিষয়ে তাগাদা দিচ্ছেন সবাই। মহামারী পরিস্থিতির উন্নতির পরই এ নিয়ে অভিভাবকদের সঙ্গে বসব।

আরও খবর
 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত