হুমায়ুন ফরিদী স্মরণে তিন তারকা

  আনন্দনগর প্রতিবেদক ৩০ মে ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

গতকাল ছিল প্রখ্যাত অভিনেতা হুমায়ুন ফরিদীর জন্মদিন। ১৯৫২ সালের ২৯ মে ঢাকার নারিন্দায় তিনি জন্মগ্রহণ করেন। মঞ্চ, টেলিভিশন ও চলচ্চিত্র- তিন মাধ্যমেই ছিল তার সমান পদচারণা। তিন দশকের বর্ণিল ক্যারিয়ারে তিনি উপহার দিয়েছেন অনেক জনপ্রিয় নাটক ও চলচ্চিত্র। ১৯৬৪ সালে কিশোরগঞ্জে মহল্লার একটি নাটকে অভিনয়ের মাধ্যমে অভিনয়ে যাত্রা শুরু হুমায়ুন ফরিদীর। ঢাকার মঞ্চে ‘মুনতাসীর ফ্যান্টাসি’, ‘ফণীমনসা’, ‘শকুন্তলা’, ‘কীত্তনখোলা’, ‘কেরামত মঙ্গল’ নাটকগুলোতে তার অভিনয় কেবল প্রশংসিতই হয়নি, হুমায়ুন ফরিদীকে করে তুলেছে অনন্য। মঞ্চে নাসির উদ্দিন ইউসুফ বাচ্চুর সঙ্গেই ছিল এ অভিনেতার সর্বাধিক সংখ্যক কাজ। হুমায়ুন ফরিদী স্মরণে তিনি বলেন, ‘মঞ্চ নাটকে আমার হাত ধরেই তার পথচলা শুরু। একজন চৌকস ও মেধাবী অভিনেতা হিসেবে তার সব গুণই ছিল। তবে সিনেমায় গিয়ে অভিনয়ের অনেক কিছুই অনুসরণ করত না সে। আমাদেরই ব্যর্থতা যে আমরা তাকে মঞ্চে ধরে রাখতে পারিনি। তারপরও একজন অভিনেতা হিসেবে সে যে লেভেলে পৌঁছে গিয়েছিল তা সত্যিই অনুকরণীয়। আগামী দিনগুলোতে নতুন প্রজন্মের কাছে তার কর্মগুলো তুলে ধরাই আমাদের দায়িত্ব মনে করি।’

প্রখ্যাত এ অভিনেতার সঙ্গে বেশ ভালো বন্ধুত্ব ছিল আফজাল হোসেনের। মূলত বন্ধু আফজাল হোসেনের সাহস ও উৎসাহে টিভি নাটকের সঙ্গে সম্পৃক্ত হন হুমায়ুন ফরিদী। এ প্রসঙ্গে আফজাল হোসেন বলেন, ‘ফরীদি নেই এ কথা ভাবতেই কেমন যেন লাগে! একটা শূন্যতা অনুভূত হয়। আমরা একসঙ্গে কত সময় কাটিয়েছি! কত স্মৃতি আমাদের! কত সুখের স্মৃতি, কত আনন্দের স্মৃতি। সত্যি আমি ফরীদিকে ভীষণ মিস করি।’

টিভি নাটকে হুমায়ুন ফরিদীর কাজ করার পেছনে আরও একজন মানুষের উৎসাহ ছিল। তিনি অভিনেতা রাইসুল ইসলাম আসাদ। হুমায়ুন ফরিদীকে নিয়ে স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘দেখতে দেখতে অনেক বছর হয়ে গেল ফরীদি নেই। আমরা একসঙ্গে বছরের পর বছর কাজ করেছি। থিয়েটার ছিল আমাদের ধ্যান-জ্ঞান। ঢাকা থিয়েটারের হয়ে আমরা দীর্ঘ একটা সময় কাটিয়েছি। আসলে ফরিদী ছিল একজন জাত শিল্পী। জাত শিল্পী কমই আছে আমাদের দেশে। জন্মদিনে তাকে আরও বেশি

মিস করেছি।’

আরও খবর
 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত