হ্যালো...

আমরা পরিচালকের নির্দেশ মেনেই কাজ করি

নাট্যাভিনেত্রী হিসেবেই বেশি পরিচিত মৌটুসী বিশ্বাস। তবে মাঝে সিনেমাতেও কাজ করতে দেখা গেছে এ অভিনেত্রীকে। কিছুদিন আগে একটি ওয়েব সিরিজে অভিনয় করেন তিনি। এটি অনলাইনে প্রকাশ হওয়ার পর ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে এর কুশীলবদের। এ নিয়ে বিব্রত এ অভিনেত্রী। এতে অভিনয় এবং অন্যান্য বিষয় নিয়ে আজকের ‘হ্যালো...’ বিভাগে কথা বলেছেন তিনি

  সোহেল আহসান ০৬ জুলাই ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ছবি সংগৃহীত

* করোনাকাল কীভাবে কাটছে?

** পারিবারিক কাজ নিয়েই বেশি ব্যস্ত আছি। বলা যায় সংসারের সব কাজই এক হাতে সামলাচ্ছি। এসব কাজ করে সময় যে কীভাবে চলে যাচ্ছে তা টেরই পাই না। তারপরও যদি অবসর পাই, সে সময় পছন্দের সিনেমা ও নাটক দেখার চেষ্টা করি। এভাবেই চলছি গত তিন মাস ধরে।

* আপনার অভিনীত ‘বুমেরাং’ নামের একটি ওয়েব সিরিজ গত ঈদে অনলাইনে প্রকাশ হয়। এটি অশ্লীলতার দায়ে অভিযুক্ত। বিষয়টি নিয়ে কী বলবেন?

** আমি এ ওয়েব সিরিজটির একজন অভিনয়শিল্পী মাত্র। এর বাইরে কিছু নয়। পরিচালকের নির্দেশ মতো শুধু অভিনয়ই করার চেষ্টা করেছি। সফলতা-ব্যর্থতার হিসাব দর্শকের কাছে। এতে কাজ করার কারণে আমাকেও কিছু নেতিবাচক কথা শুনতে হয়েছে। এখনও অনেকেই ফোন করে জানতে চান, আমি কেন এতে অভিনয় করেছি। তবে আমি কিন্তু অন্যসব কাজের মতো ভেবেই করেছি।

* শুটিং চলাকালে কি বুঝতে পেরেছিলেন এ কাজটি নিয়ে সমালোচনা তৈরি হবে?

** যেভাবে গল্প সাজানো হয়েছে তাতে সেভাবে আগে থেকে বোঝার সুযোগ ছিল না। এছাড়া পরিচালক বিভিন্নভাবে চিত্রগ্রহণ করেছেন। তার পরিকল্পনার সবকিছু তো আমাদের সঙ্গে শেয়ার করেননি। শুটিং চলাকালে একটুও বুঝতে পারিনি যে, সিরিজটি নিয়ে এত কথা শুনতে হবে। যেমন কিছুদিন আগে রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া পতিতা পল্লীতে গিয়ে একজন পতিতার চরিত্রে অভিনয় করেছি। সেটি নিয়ে এত আলোচনা হয়নি। শুটিংয়ের পর সিরিজটির পরিচালক ভিডিও সম্পাদনার মাধ্যমে আলাদা করে কাজ করেছেন। পরিচালক কীভাবে একটি কাজকে উপস্থাপন করবেন তা তো শিল্পীদের বলবেন না। তাই আমি মনে করি, এ কাজটির সমালোচনার দায়ভার পরিচালকের।

* যেহেতু এ ওয়েব সিরিজটি নিয়ে নেতিবাচক অভিজ্ঞতা হয়েছে আপনার, পরবর্তীতে নতুন কোনো কাজের ক্ষেত্রে এটি মনস্তাত্ত্বিক সংকট তৈরি করবে কি?

** আমি তা অনুভব করছি না। আমরা পরিচালকের নির্দেশ মেনেই কাজ করি। শিল্পীদের পরিচালককে গুরুত্ব দিয়েই কাজ করতে হবে। তবে গল্প ও চরিত্র নির্বাচনের ক্ষেত্রে আগের থেকে বেশি সচেতন হতে হবে এখন। আমি নির্দিষ্ট কোনো চরিত্রের মধ্যে আটকে থাকতে

চাই না।

* সম্প্রতি আপনার অভিনীত একটি ধারাবাহিক নাটক প্রচারে এসেছে। তাহলে কি শুটিং শুরু করেছেন?

** না না। এটি করোনাভাইরাস আসার আগে শুটিং হয়েছিল। নাটকের নাম ‘টিপু সুলতান’। আরটিভিতে প্রচার শুরু হয়েছে। এতে কেন্দ্রীয় একটি চরিত্রে অভিনয় করেছি। এছাড়া দীপ্ত টিভিতে ‘আগুন পাখি’ নামের আরেকটি ধারাবাহিক প্রচারে আসবে বলে শুনেছি। এতেও আমি কেন্দ্রীয় চরিত্রেই অভিনয় করছি। এছাড়া আর কোনো নাটকে এখন অভিনয় করছি না। এরই মধ্যে শুটিংয়ে ফেরার কোনো পরিকল্পনাও নেই। তবে ভয়েস আর্টিস্ট হিসেবে শিগগিরই কয়েকটি কাজ করব।

আরও খবর

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত