সহজপাঠ নিয়ে টুটুল চৌধুরীর ব্যস্ততা
jugantor
সহজপাঠ নিয়ে টুটুল চৌধুরীর ব্যস্ততা

  আনন্দনগর প্রতিবেদক  

১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ছবি সংগৃহীত
ছবি সংগৃহীত

অভিনেতা হিসেবেই পরিচিত টুটুল চৌধুরী। অভিনয়ের পাশাপাশি কিছু সমাজকর্মের সঙ্গেও জড়িত তিনি। খুলেছেন শিশুদের জন্য পাঠশালা। নাম দিয়েছেন ‘সহজপাঠ স্কুল’। চাকরি জীবন এবং পেশাগত জীবন থেকে প্রাপ্ত অর্থ দিয়ে রাজধানীর শনিরআখড়ায় ধনিয়া কলেজের পেছনে নিজেদের জায়গায় টুটুল ২০১৮ সালের ১ জানুয়ারি গড়ে তোলেন এ স্কুল।

এটির প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষও টুটুল। এ স্কুলে শিক্ষার্র্থীরা ষষ্ঠ শ্রেণি পর্যন্ত আপাতত শিক্ষা গ্রহণ করছে। স্কুলটি নিয়েই এ অভিনেতার যত ব্যস্ততা। এ প্রসঙ্গে টুটুল চৌধুরী বলেন, ‘এই স্কুল প্রতিষ্ঠার মধ্য দিয়ে আমার ছোটবেলার স্বপ্ন পূরণ হয়েছে।

এটা যে সত্যিকার অর্থেই কত ভালোলাগার তা আসলে বুঝিয়ে বলা খুব কঠিন। এ সহজপাঠ স্কুলে বিশজন শিক্ষক কর্মরত। সহজপাঠ নামটি রেখেছি এ কারণেই যে এখানে খুব সহজে শিক্ষার্থীরা এসে যেন শিক্ষকদের আদর ভালোবাসার মধ্য দিয়ে শিক্ষা গ্রহণ করতে পারে।

পাশাপাশি অন্যান্য আনুষঙ্গিক বিষয়েও যেন নিজেদের গড়ে তুলতে পারে। অভিভাবকরা এখন আমাকে প্রায়ই বলেন কিছুটা অসুস্থ হলেও বাচ্চারা স্কুল ফাঁকি দিতে চায় না। এটা যে আমার জন্য কত বড় আশীর্বাদ তা আসলে ভাষায় প্রকাশের নয়।’ এদিকে টুটুল চৌধুরী তার অভিনয় জীবনে পেশাগতভাবে দেড় যুগেরও বেশি সময় পার করছেন। নাটকের পাশাপাশি ছবিতেও অভিনয় করেন তিনি। শিগগিরই মুক্তি পাবে তার অভিনীত ‘আগামীকাল’ নামে একটি ছবি। বর্তমানে তিনি বাংলাদেশ ব্যাংকে ডিজিএম হিসেবে কর্মরত।

সহজপাঠ নিয়ে টুটুল চৌধুরীর ব্যস্ততা

 আনন্দনগর প্রতিবেদক 
১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ
ছবি সংগৃহীত
ছবি সংগৃহীত

অভিনেতা হিসেবেই পরিচিত টুটুল চৌধুরী। অভিনয়ের পাশাপাশি কিছু সমাজকর্মের সঙ্গেও জড়িত তিনি। খুলেছেন শিশুদের জন্য পাঠশালা। নাম দিয়েছেন ‘সহজপাঠ স্কুল’। চাকরি জীবন এবং পেশাগত জীবন থেকে প্রাপ্ত অর্থ দিয়ে রাজধানীর শনিরআখড়ায় ধনিয়া কলেজের পেছনে নিজেদের জায়গায় টুটুল ২০১৮ সালের ১ জানুয়ারি গড়ে তোলেন এ স্কুল।

এটির প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষও টুটুল। এ স্কুলে শিক্ষার্র্থীরা ষষ্ঠ শ্রেণি পর্যন্ত আপাতত শিক্ষা গ্রহণ করছে। স্কুলটি নিয়েই এ অভিনেতার যত ব্যস্ততা। এ প্রসঙ্গে টুটুল চৌধুরী বলেন, ‘এই স্কুল প্রতিষ্ঠার মধ্য দিয়ে আমার ছোটবেলার স্বপ্ন পূরণ হয়েছে।

এটা যে সত্যিকার অর্থেই কত ভালোলাগার তা আসলে বুঝিয়ে বলা খুব কঠিন। এ সহজপাঠ স্কুলে বিশজন শিক্ষক কর্মরত। সহজপাঠ নামটি রেখেছি এ কারণেই যে এখানে খুব সহজে শিক্ষার্থীরা এসে যেন শিক্ষকদের আদর ভালোবাসার মধ্য দিয়ে শিক্ষা গ্রহণ করতে পারে।

পাশাপাশি অন্যান্য আনুষঙ্গিক বিষয়েও যেন নিজেদের গড়ে তুলতে পারে। অভিভাবকরা এখন আমাকে প্রায়ই বলেন কিছুটা অসুস্থ হলেও বাচ্চারা স্কুল ফাঁকি দিতে চায় না। এটা যে আমার জন্য কত বড় আশীর্বাদ তা আসলে ভাষায় প্রকাশের নয়।’ এদিকে টুটুল চৌধুরী তার অভিনয় জীবনে পেশাগতভাবে দেড় যুগেরও বেশি সময় পার করছেন। নাটকের পাশাপাশি ছবিতেও অভিনয় করেন তিনি। শিগগিরই মুক্তি পাবে তার অভিনীত ‘আগামীকাল’ নামে একটি ছবি। বর্তমানে তিনি বাংলাদেশ ব্যাংকে ডিজিএম হিসেবে কর্মরত।