গুরু অপূর্বের শিষ্য মেহজাবিন
jugantor
গুরু অপূর্বের শিষ্য মেহজাবিন

  আনন্দনগর প্রতিবেদক  

৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

হারমোনিয়াম নিয়ে বেশ গম্ভীরভাবে গলা সাধছেন জিয়াউল ফারুক অপূর্ব। তার পাশে বসে তবলা হাতে বেশ মনোযোগ দিয়ে অপূর্বর কণ্ঠসৃত বিষয়গুলো আয়ত্ব করার চেষ্টা করছেন মেহজাবিন।

এমন দৃশ্য দেখা গেল সম্প্রতি উত্তরার একটি শুটিং হাউসে। একটি নাটকের দৃশ্য এটি। নাম ‘মধুর সিং’। নাটকের গল্প ভাবনা অপূর্বর। এটি পরিচালনা করেছেন মহিদুল মহিম।

এতে গুরু শীষ্যের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন অপূর্ব ও মেহজাবিন চৌধুরী। এরই মধ্যে নাটকটির দৃশ্যধারণের কাজ প্রায় শেষ হয়েছে।

নাটকটির গল্প এবং অভিনয় প্রসঙ্গে অপূর্ব বলেন, ‘মূলত এটি কমেডি ঘরানার গল্পের একটি নাটক। দু’জন সঙ্গীতপ্রেমী মানুষের নির্ভেজাল কমেডির গল্প তুলে ধরার চেষ্টা হয়েছে এতে। তবে এটা সত্যি গানের প্রতি প্রবল শ্রদ্ধা ভালোবাসা রেখেই গান শেখাকে কেন্দ্র করেই এ নাটকের গল্প এগিয়েছে। নির্মাতাকে আমার গল্প ভাবনা বলে দেয়ার পর চমৎকারভাবেই নাটকটি লিখেছেন। আমি এবং মেহজাবিন চেষ্টা করেছি গল্পানুযায়ী চরিত্র যথাযথভাবে ফুটিয়ে তুলতে। দেখা যাক প্রচারের পর কেমন সাড়া মেলে।’

মেহজাবিন চৌধুরী বলেন, ‘নাটকটির সংলাপ আমার কাছে ভীষণ ভালো লেগেছে। সেই সঙ্গে অপূর্ব ভাইয়ার গল্প ভাবনাটাও আমার কাছে দারুণ লেগেছে। একটু ভিন্ন ধরনের চরিত্রে আমাদের দু’জনকে দেখতে পাবেন দর্শক।’

নাটকটি শিগগিরই একটি স্যাটেলাইট চ্যানেলে প্রচার হবে বলে নির্মাতা জানান। এদিকে আগামী মাসের শুরুতে অপূর্ব ও মেহজাবিন চৌধুরী আরেকটি নাটকে জুটি বেঁধে কাজ করবেন বলে জানিয়েছেন।

গুরু অপূর্বের শিষ্য মেহজাবিন

 আনন্দনগর প্রতিবেদক 
৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

হারমোনিয়াম নিয়ে বেশ গম্ভীরভাবে গলা সাধছেন জিয়াউল ফারুক অপূর্ব। তার পাশে বসে তবলা হাতে বেশ মনোযোগ দিয়ে অপূর্বর কণ্ঠসৃত বিষয়গুলো আয়ত্ব করার চেষ্টা করছেন মেহজাবিন।

এমন দৃশ্য দেখা গেল সম্প্রতি উত্তরার একটি শুটিং হাউসে। একটি নাটকের দৃশ্য এটি। নাম ‘মধুর সিং’। নাটকের গল্প ভাবনা অপূর্বর। এটি পরিচালনা করেছেন মহিদুল মহিম।

এতে গুরু শীষ্যের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন অপূর্ব ও মেহজাবিন চৌধুরী। এরই মধ্যে নাটকটির দৃশ্যধারণের কাজ প্রায় শেষ হয়েছে।

নাটকটির গল্প এবং অভিনয় প্রসঙ্গে অপূর্ব বলেন, ‘মূলত এটি কমেডি ঘরানার গল্পের একটি নাটক। দু’জন সঙ্গীতপ্রেমী মানুষের নির্ভেজাল কমেডির গল্প তুলে ধরার চেষ্টা হয়েছে এতে। তবে এটা সত্যি গানের প্রতি প্রবল শ্রদ্ধা ভালোবাসা রেখেই গান শেখাকে কেন্দ্র করেই এ নাটকের গল্প এগিয়েছে। নির্মাতাকে আমার গল্প ভাবনা বলে দেয়ার পর চমৎকারভাবেই নাটকটি লিখেছেন। আমি এবং মেহজাবিন চেষ্টা করেছি গল্পানুযায়ী চরিত্র যথাযথভাবে ফুটিয়ে তুলতে। দেখা যাক প্রচারের পর কেমন সাড়া মেলে।’

মেহজাবিন চৌধুরী বলেন, ‘নাটকটির সংলাপ আমার কাছে ভীষণ ভালো লেগেছে। সেই সঙ্গে অপূর্ব ভাইয়ার গল্প ভাবনাটাও আমার কাছে দারুণ লেগেছে। একটু ভিন্ন ধরনের চরিত্রে আমাদের দু’জনকে দেখতে পাবেন দর্শক।’

নাটকটি শিগগিরই একটি স্যাটেলাইট চ্যানেলে প্রচার হবে বলে নির্মাতা জানান। এদিকে আগামী মাসের শুরুতে অপূর্ব ও মেহজাবিন চৌধুরী আরেকটি নাটকে জুটি বেঁধে কাজ করবেন বলে জানিয়েছেন।