এখনো অডিও গানের শ্রোতা আছে
jugantor
এখনো অডিও গানের শ্রোতা আছে

  এসএম শাফায়েত  

২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

কিছুদিন আগে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন সংগীত পরিচালক ও কণ্ঠশিল্পী এসআই টুটুল। সুস্থ হয়ে আবারও কাজ শুরু করেছেন। বর্তমান ব্যস্ততা ও সমসাময়িক প্রসঙ্গ নিয়ে আজকের ‘হ্যালো...’ বিভাগে কথা বলেছেন তিনি

বর্তমান ব্যস্ততা কী নিয়ে?

-কাজকর্ম নিয়েই ব্যস্ত সময় পার করছি। চলচ্চিত্রের গানসহ যেসব কাজ করি, সেসব নিয়ে পুরোদমে ব্যস্ত আছি। নতুন বছরে নতুন কিছু পরিকল্পনা আছে। তবে তা আরও কিছুদিন পর জানাব। আগে বাস্তবায়ন হোক।

মঞ্চে ফেরার ব্যাপারে কী ভাবছেন?

-করোনাভাইরাসের কারণে আমরা দীর্ঘদিন মঞ্চ প্রোগ্রাম থেকে বিরত ছিলাম। অবশ্যই মঞ্চে ফেরার ব্যাপারে ভাবছি। এরই মধ্যে ভ্যাকসিন চলে এসেছে। এখন সবার ভ্যাকসিন নেওয়া হয়ে গেলে কিছুটা নিশ্চিন্তে প্রোগ্রাম করা যেতে পারে। আমিও শিগগিরই ভ্যাকসিন নিয়ে নেব।

আপনি তো করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন। এখন ভ্যাকসিন আসাতে কতটা স্বস্তিবোধ করছেন?

-সরকার ঘোষিত বিধিনিষেধ ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। ভ্যাকসিন নিতে বলেছে যখন নিতেই হবে। এটি এড়িয়ে যাওয়ার কোনো সুযোগ নেই। ভ্যাকসিন অবশ্যই আমাদের ভালোর জন্য।

আমরা যে সংকটের মধ্য দিয়ে দিন কাটাচ্ছিলাম, এখন একটু স্বস্তির নিশ্বাস ফেলা যাবে।

কিছুদিন আগে একটি গানের রিয়েলিটি শো শেষ করেছেন। সেটি নিয়ে ভাবনা কী?

-খুব সুন্দরভাবে ‘বাংলার গায়েন’ নামের এ শোটি শেষ করেছি আমরা। এখন বিজয়ীদের নিয়ে আরটিভির বেশ কিছু পরিকল্পনা রয়েছে। তাদের নিয়ে কাজ করবে। তাদের প্রতিভাকে বিকশিত করার সুযোগ করে দেবে। এ ছাড়া নতুনদের জন্য আমার দুয়ার সব সময় খোলা। যে কোনো কাজে, পরামর্শে কিংবা সহযোগিতার জন্য তারা আমার কাছে এলে আমি সর্বোচ্চ সহযোগিতা করার চেষ্টা করি।

বর্তমানে অডিওর চেয়ে গানের ভিডিওর জনপ্রিয়তা বেশি। আপনি কী মনে করেন?

-এখনো অডিও গানের জনপ্রিয়তা আছে। আমরা যখন বাচ্চু ভাইয়ের গান শুনি, তখন ভিডিও কয়টা দেখি। ‘হাসতে দেখো’ বা ‘সুখের এই পৃথিবী’ গানের তো কোনো ভিডিও প্রয়োজন হয়নি। এখন গানের ভিডিও বের করছে খুব ভালো কথা। তাই বলে অডিও গানের যে জনপ্রিয়তা নেই, তার সঙ্গে আমি একমত নই। কেউ না শুনলেও একজন শ্রোতা হিসাবে আমি ঠিকই অডিও গান শুনব।

শ্রোতা হিসাবে গানের জনপ্রিয়তা নিয়ে কী বলবেন?

-অনেক ভালো গান আছে, মানুষ শোনে না; আবার অনেক গান আছে, যেগুলোর কথায় মাধুর্যতা নেই, শিল্প-সংস্কৃতির সমৃদ্ধি নেই বা সাহিত্যিকতার ব্যবহার কম। এরপরও সেই গান মানুষ শোনে। তবে আমি বিশ্বাস করি, ভালো গান হলে সবই চলবে।

এখনো অডিও গানের শ্রোতা আছে

 এসএম শাফায়েত 
২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

কিছুদিন আগে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন সংগীত পরিচালক ও কণ্ঠশিল্পী এসআই টুটুল। সুস্থ হয়ে আবারও কাজ শুরু করেছেন। বর্তমান ব্যস্ততা ও সমসাময়িক প্রসঙ্গ নিয়ে আজকের ‘হ্যালো...’ বিভাগে কথা বলেছেন তিনি

বর্তমান ব্যস্ততা কী নিয়ে?

-কাজকর্ম নিয়েই ব্যস্ত সময় পার করছি। চলচ্চিত্রের গানসহ যেসব কাজ করি, সেসব নিয়ে পুরোদমে ব্যস্ত আছি। নতুন বছরে নতুন কিছু পরিকল্পনা আছে। তবে তা আরও কিছুদিন পর জানাব। আগে বাস্তবায়ন হোক।

মঞ্চে ফেরার ব্যাপারে কী ভাবছেন?

-করোনাভাইরাসের কারণে আমরা দীর্ঘদিন মঞ্চ প্রোগ্রাম থেকে বিরত ছিলাম। অবশ্যই মঞ্চে ফেরার ব্যাপারে ভাবছি। এরই মধ্যে ভ্যাকসিন চলে এসেছে। এখন সবার ভ্যাকসিন নেওয়া হয়ে গেলে কিছুটা নিশ্চিন্তে প্রোগ্রাম করা যেতে পারে। আমিও শিগগিরই ভ্যাকসিন নিয়ে নেব।

আপনি তো করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন। এখন ভ্যাকসিন আসাতে কতটা স্বস্তিবোধ করছেন?

-সরকার ঘোষিত বিধিনিষেধ ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। ভ্যাকসিন নিতে বলেছে যখন নিতেই হবে। এটি এড়িয়ে যাওয়ার কোনো সুযোগ নেই। ভ্যাকসিন অবশ্যই আমাদের ভালোর জন্য।

আমরা যে সংকটের মধ্য দিয়ে দিন কাটাচ্ছিলাম, এখন একটু স্বস্তির নিশ্বাস ফেলা যাবে।

কিছুদিন আগে একটি গানের রিয়েলিটি শো শেষ করেছেন। সেটি নিয়ে ভাবনা কী?

-খুব সুন্দরভাবে ‘বাংলার গায়েন’ নামের এ শোটি শেষ করেছি আমরা। এখন বিজয়ীদের নিয়ে আরটিভির বেশ কিছু পরিকল্পনা রয়েছে। তাদের নিয়ে কাজ করবে। তাদের প্রতিভাকে বিকশিত করার সুযোগ করে দেবে। এ ছাড়া নতুনদের জন্য আমার দুয়ার সব সময় খোলা। যে কোনো কাজে, পরামর্শে কিংবা সহযোগিতার জন্য তারা আমার কাছে এলে আমি সর্বোচ্চ সহযোগিতা করার চেষ্টা করি।

বর্তমানে অডিওর চেয়ে গানের ভিডিওর জনপ্রিয়তা বেশি। আপনি কী মনে করেন?

-এখনো অডিও গানের জনপ্রিয়তা আছে। আমরা যখন বাচ্চু ভাইয়ের গান শুনি, তখন ভিডিও কয়টা দেখি। ‘হাসতে দেখো’ বা ‘সুখের এই পৃথিবী’ গানের তো কোনো ভিডিও প্রয়োজন হয়নি। এখন গানের ভিডিও বের করছে খুব ভালো কথা। তাই বলে অডিও গানের যে জনপ্রিয়তা নেই, তার সঙ্গে আমি একমত নই। কেউ না শুনলেও একজন শ্রোতা হিসাবে আমি ঠিকই অডিও গান শুনব।

শ্রোতা হিসাবে গানের জনপ্রিয়তা নিয়ে কী বলবেন?

-অনেক ভালো গান আছে, মানুষ শোনে না; আবার অনেক গান আছে, যেগুলোর কথায় মাধুর্যতা নেই, শিল্প-সংস্কৃতির সমৃদ্ধি নেই বা সাহিত্যিকতার ব্যবহার কম। এরপরও সেই গান মানুষ শোনে। তবে আমি বিশ্বাস করি, ভালো গান হলে সবই চলবে।