শিগগিরই নতুন গান নিয়ে ফিরছি: হাসান

  হাসান সাইদুল ২৪ এপ্রিল ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

শিগগিরই নতুন গান নিয়ে ফিরছি: হাসান
জনপ্রিয় ব্যান্ড তারকা হাসান

পুরো নাম সৈয়দ হাসানুর রহমান। ব্যান্ড জগতে তিনি হাসান নামেই পরিচিত। নব্বই দশকের জনপ্রিয় এ ব্যান্ডশিল্পীর গান এখনও মানুষের মুখে মুখে। ব্যান্ডে নিয়মিত না হলেও শিগগিরই নতুন গান নিয়ে ফিরছেন। বর্তমান ব্যস্ততা ও সঙ্গীত জীবনের নানা বিষয় নিয়ে আজকের ‘হ্যালো...’ বিভাগে কথা বলেছেন তিনি।

* যুগান্তর: অনেকেই মনে করছেন আপনি গান ছেড়ে দিয়েছেন?

** হাসান: আসলে গান আমি ছাড়িনি। হয়তো নতুন কোনো গান করছি না। কিন্তু গানের সঙ্গেই আছি। আমি একটা ধারা নিয়ে কাজ করেছি। যেটা আর্ক ব্যান্ডের মাধ্যমে হয়েছিল। এখনকার যুগে শ্রোতা চাহিদা অনেক পরিবর্তন। মিউজিক বিশ্বও এখন অনেক এগিয়ে গেছে।

গানও কিন্তু সেভাবে তাল মিলিয়ে অনেক দূর এগিয়ে যাওয়ার কথা আমাদের দেশে। কিন্তু বিভিন্ন কারণে ৯০ দশকের সেই ব্যান্ড সঙ্গীতের ধারাটা আমরা আর ফিরিয়ে আনতে পারিনি। এখন আমার মনে হচ্ছে কিছু একটা করা উচিত। এমন কিছু করব যা দর্শক-শ্রোতাদের আনন্দ দেবে। সে জন্য অনেকদিন ধরে কাজ করছি। অনেক নতুন কিছু শিখছি। শ্রোতাদের নতুন কিছু দেয়ার সময় এসেছে। শিগগিরই শ্রোতারা আমার গান পাবে।

* যুগান্তর: একটি একক অ্যালবাম করেছেন। এরপর আর নেই কেন?

** হাসান: আমার একক অ্যালবাম বের করতে হবে এমন কোনো ইচ্ছা ছিল না। ব্যান্ড নিয়ে থাকতাম। অডিও শিল্পের জন্যই একক অ্যালবাম করা। এবং সেটা করেছি। নাম ছিল ‘তাল’। এরপর আর আগ্রহ পাইনি।

প্রকৃত অর্থে আমাদের সময় বিশেষ করে আমার গানের মধ্য দিয়ে অনেক মিউজিক ডিরেক্টরের জš§ হয়। আমার বেশিরভাগ অ্যালবাম মিক্সড এবং আমার ব্যান্ডের করা। ‘তাল’ আমার একক অ্যালবাম। এটা অডিও বাজারের ব্যবসার জন্য করা। মিউজিক ডিরেক্টরদের ইচ্ছায়।

* যুগান্তর: আর্কের বর্তমান অবস্থা কী?

** হাসান: শিগগিরই আমরা আবার শ্রোতাদের মাঝে আসব, তখন সেটা ভালো করে বোঝা যাবে। সব প্রশ্নের উত্তর পাবেন দর্শক-শ্রোতারা। আমরা নিয়মিত শো করছি। ভালো গান তৈরির জন্য কাজ করছি।

* যুগান্তর: গান তো এখন মিউজিক ভিডিও কিংবা কনটেন্ট হয়ে গেছে। এ বিষয়ে আপনার মন্তব্য কী?

** হাসান: গান শোনার বিষয়। গান গানই থাকবে, তবে সিনিয়রদের একটু কাজ করতে হবে। নতুনদের বুঝাতে হবে, তাদের সঠিক রাস্তা দেখাতে হবে। তরুণদেরও একটু সচেতন হতে হবে।

গানের ভেতর একটি দেশের ঐতিহ্য নিহিত থাকতে পারে। এটা নতুনদের ভাবতে হবে। গান হৃদয়কে আনন্দ দেয় অথবা পেছনের কথা মনে করিয়ে দেয়। কনটেন্ট কিংবা মিউজিক ভিডিও, ওটা তো গানের বাইরের একটি গল্প। গান গানের জায়গায় ফিরে আসবে। আমি আশাবাদী।

* যুগান্তর: ব্যান্ডের গান খালি গলায় গাওয়া খুব কঠিন। তবুও আপনাদের সময়কার গানগুলো শ্রোতাদের মুখে মুখে...

** হাসান: আসলে গান হচ্ছে হৃদয়ের স্পন্দন। আমরা সম্পূর্ণ দরদ দিয়ে গান করেছি। গানের সুর ও সঙ্গীত তৈরি করতে অনেক সাধনা করেছি। কথাগুলো ছিল জীবনের কথা। মানুষের মনে গেঁথে যাওয়ার কথা। তো যে কথা মানুষের মনের এবং জীবনের সঙ্গে মিশে থাকে সে গান অবশ্যই মুখে মুখে থাকবেই।

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter