আর জে পেশা ছাড়লেন নিরব
jugantor
আর জে পেশা ছাড়লেন নিরব

  আনন্দনগর প্রতিবেদক  

২৩ জুন ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

আর জে বা রেডিও জকি- রেডিও জগতের একটি জনপ্রিয় পেশা। কণ্ঠের জাদুতে লক্ষ কোটি মানুষের কাছে যারা পরিচিত এ মাধ্যমের কল্যাণে তাদের একজন নিরব। আর জে নিরব হিসাবেই তিনি বেশি পরিচিত। বাংলাদেশে এফএম ব্যান্ডের রেডিও স্টেশন চালুর শুরুর দিকে চেহারা না চিনলেও শ্রোতারা মুগ্ধ হয়ে শুনতেন তার কথা।

দীর্ঘ ১৫ বছর ধরে আর জে হিসাবে রেডিও টুডে, এবিসি রেডিও, রেডিও ধ্বনি, সিটি এফএম-এ কাজ করেছেন। এবার সেই পেশা থেকে সরে এলেন তিনি। সম্প্রতি একটি অনলাইন মাল্টিভেন্ডর-এর সেল কমিউনিকেশন প্রধান হিসাবে কাজ শুরু করেছেন। এটি নিয়েই এখন তার ব্যস্ততা। এ প্রসঙ্গে নিরব বলেন, “বাংলাদেশের কোটি কোটি মানুষ আমার নাম জানেন, আমাকে চিনেন।

এর চেয়ে বড় প্রাপ্তি আর কিছুই হতে পারে না। সত্যি বলতে কী ‘আর জে নিরব’ এ বিশেষণটি আমার মাথার মুকুটের মতো। এ জন্য শ্রোতাদের কাছে আমি অনেক অনেক কৃতজ্ঞ। আর জে হিসাবে আমি যখন যে প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেছি, সেসব প্রতিষ্ঠানের বিশ্বস্ততা অর্জন করেই কাজ করেছি। আমার প্রতি সেই বিশ্বাস আছে বলেই নতুন করে পথচলা শুরু করতে পেরেছি একটি অনলাইন মাল্টিভেন্ডর-এর সঙ্গে। আমার বিশ্বাস নতুন পেশায়ও আমি সফল হব।” আর জে পেশা ছাড়লেও স্টেজ কিংবা টিভি শোগুলোতে নিয়মিত উপস্থাপনা করে যাবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

আর জে পেশা ছাড়লেন নিরব

 আনন্দনগর প্রতিবেদক 
২৩ জুন ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

আর জে বা রেডিও জকি- রেডিও জগতের একটি জনপ্রিয় পেশা। কণ্ঠের জাদুতে লক্ষ কোটি মানুষের কাছে যারা পরিচিত এ মাধ্যমের কল্যাণে তাদের একজন নিরব। আর জে নিরব হিসাবেই তিনি বেশি পরিচিত। বাংলাদেশে এফএম ব্যান্ডের রেডিও স্টেশন চালুর শুরুর দিকে চেহারা না চিনলেও শ্রোতারা মুগ্ধ হয়ে শুনতেন তার কথা।

দীর্ঘ ১৫ বছর ধরে আর জে হিসাবে রেডিও টুডে, এবিসি রেডিও, রেডিও ধ্বনি, সিটি এফএম-এ কাজ করেছেন। এবার সেই পেশা থেকে সরে এলেন তিনি। সম্প্রতি একটি অনলাইন মাল্টিভেন্ডর-এর সেল কমিউনিকেশন প্রধান হিসাবে কাজ শুরু করেছেন। এটি নিয়েই এখন তার ব্যস্ততা। এ প্রসঙ্গে নিরব বলেন, “বাংলাদেশের কোটি কোটি মানুষ আমার নাম জানেন, আমাকে চিনেন।

এর চেয়ে বড় প্রাপ্তি আর কিছুই হতে পারে না। সত্যি বলতে কী ‘আর জে নিরব’ এ বিশেষণটি আমার মাথার মুকুটের মতো। এ জন্য শ্রোতাদের কাছে আমি অনেক অনেক কৃতজ্ঞ। আর জে হিসাবে আমি যখন যে প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেছি, সেসব প্রতিষ্ঠানের বিশ্বস্ততা অর্জন করেই কাজ করেছি। আমার প্রতি সেই বিশ্বাস আছে বলেই নতুন করে পথচলা শুরু করতে পেরেছি একটি অনলাইন মাল্টিভেন্ডর-এর সঙ্গে। আমার বিশ্বাস নতুন পেশায়ও আমি সফল হব।” আর জে পেশা ছাড়লেও স্টেজ কিংবা টিভি শোগুলোতে নিয়মিত উপস্থাপনা করে যাবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন