মানুষের বিপদ-আপদে পাশে দাঁড়াই : চঞ্চল

প্রকাশ : ০৭ মে ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

  সোহেল আহসান

জনপ্রিয় অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী

আজ রাত ৯টা ৫ মিনিটে বাংলাভিশনে প্রচার হবে ধারাবাহিক নাটক ‘খেলোয়াড়’। মাসুদ সেজানের রচনা ও পরিচালনায় এ নাটকের কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন চঞ্চল চৌধুরী। এ নাটকে অভিনয় ও অন্যান্য বিষয় নিয়ে আজকের ‘হ্যালো...’ বিভাগে কথা বলেছেন তিনি

যুগান্তর: খেলোয়াড় নাটকটির গল্প কী নিয়ে?

চঞ্চল চৌধুরী: মানুষের সঙ্গে অমানুষের যে যুদ্ধ, সেটি নিয়েই এ নাটকের গল্প তৈরি হয়েছে। খারাপ মানুষ আসলে সমাজে কীভাবে ডমিনেট করছে, এটাই এখানে দেখানো হচ্ছে। পাশাপাশি একদল ভালো মানুষও সমানতালে সমাজে কাজ করছে এ গল্পে। মাসুদ সেজানের নাটকে সব সময়ই বক্তব্য থাকে। মানুষ একাদশ আর অমানুষ একাদশ- এরা সমাজে কী ভূমিকা রাখে, এটারই প্রতিফলন এ নাটক।

যুগান্তর: এ নাটকে আপনার চরিত্র কেমন?

চঞ্চল চৌধুরী: নাটকে আমার একটি ক্লাব আছে, পজেটিভ থিঙ্কিং ক্লাব। সমাজের মানুষের বিপদ-আপদে পাশে দাঁড়াই। এছাড়া বিভিন্ন হাস্যরসের ভেতর দিয়ে এগিয়ে আমার চরিত্রটি। মানুষ একাদশের হয়ে নাটকটিতে অভিনয় করছি।

যুগান্তর: ঈদের নাটকের কাজ কি শুরু করেছেন?

চঞ্চল চৌধুরী: এরই মধ্যে বেশকিছু নাটকে চুক্তিবদ্ধ হয়েছি। ৬ পর্বের ৫টি ঈদ ধারাবাহিকের পাশাপাশি এক খণ্ডের দুই ডজন নাটকের কাজ রয়েছে।

যুগান্তর: ‘দেবী’ সিনেমায় জনপ্রিয় মিছির আলী চরিত্রে অভিনয় করেছেন। এ ছবি নিয়ে আপনার প্রত্যাশা কী?

চঞ্চল চৌধুরী: আমি সব সময় সিনেমায় ভালো চরিত্র, গল্প ও নির্মাতার সঙ্গে কাজ করার চেষ্টা করি। এটিও ব্যতিক্রম নয়। দেবী হুমায়ূন আহমেদের অনবদ্য একটি উপন্যাস। তাই দর্শকের প্রত্যাশার কথা মাথায় রেখেই এ সিনেমায় অভিনয়ের চেষ্টা করেছি। আশা করছি দর্শকের ভালো লাগবে।

যুগান্তর: শুনেছি নতুন একটি সিনেমায় অভিনয় করছেন?

চঞ্চল চৌধুরী: হ্যাঁ। গোলাম সোহরাব দোদুলের পরিচালনায় নতুন একটি সিনেমায় অভিনয়ের জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়েছি। নাম চূড়ান্ত না হওয়ায় ছবির শুটিং শুরু হবে আগামী জুলাই মাসে। এটিও আমার পছন্দের একটি ছবি।