অভিনয়ে নিয়মিত হচ্ছেন শিমু
jugantor
অভিনয়ে নিয়মিত হচ্ছেন শিমু

  আনন্দনগর প্রতিবেদক  

২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

এক সময়ের ব্যস্ত নাট্যাভিনেত্রী সুমাইয়া শিমু দীর্ঘ বিরতি কাটিয়ে অভিনয়ে সক্রিয় হয়েছেন। মাঝে মধ্যেই তাকে নাটকে অভিনয় করতে দেখা যাচ্ছে। সম্প্রতি তিনি সীমান্ত সজলের পরিচালনায় ‘তিথির সারাবেলা’ নামের একটি একক নাটকে অভিনয় করেছেন। এ নাটকে নাম ভূমিকায় অভিনয় করেন সুমাইয়া শিমু। এ ছাড়া আরও কয়েকটি নাটকে অভিনয়ের প্রস্তাব রয়েছে তার কাছে। নাটকের অভিনয়ে আবারও নিয়মিত হওয়া প্রসঙ্গে এ অভিনেত্রী বলেন, ‘আমি কিন্তু অভিনয় থেকে দূরে সরে যাইনি। শুধু কাজের সংখ্যা কমিয়ে দিয়েছি। দর্শক আমাকে যে ধরনের নাটকে দেখতে চান সেগুলোতে কাজ করার চেষ্টা করি। মানসম্মত গল্পের দিকে নজর দিতে গিয়ে সব নাটকে অভিনয় করা হয় না। দর্শক যতদিন চাইবেন ঠিক ততদিনই আমি অভিনয় করে যাব। এ ছাড়া এ পর্যন্ত যা অর্জন করেছি তাও কম নয়। সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন যেন সুস্থ সুন্দরভাবে আগামী সময়গুলো অতিক্রম করতে পারি।’ অভিনয় ছাড়াও তিনি একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্ণধার। ‘বেটার ফিউচার ফর ওমেন’ নামের নারীদের জীবনমান উন্নয়নের এ সংস্থাটি পরিচালনা করছেন প্রায় তিন বছর ধরে প্রতিনিয়তই এটির কার্যক্রম সম্প্রসারিত করছেন শিমু।

অভিনয়ে নিয়মিত হচ্ছেন শিমু

 আনন্দনগর প্রতিবেদক 
২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

এক সময়ের ব্যস্ত নাট্যাভিনেত্রী সুমাইয়া শিমু দীর্ঘ বিরতি কাটিয়ে অভিনয়ে সক্রিয় হয়েছেন। মাঝে মধ্যেই তাকে নাটকে অভিনয় করতে দেখা যাচ্ছে। সম্প্রতি তিনি সীমান্ত সজলের পরিচালনায় ‘তিথির সারাবেলা’ নামের একটি একক নাটকে অভিনয় করেছেন। এ নাটকে নাম ভূমিকায় অভিনয় করেন সুমাইয়া শিমু। এ ছাড়া আরও কয়েকটি নাটকে অভিনয়ের প্রস্তাব রয়েছে তার কাছে। নাটকের অভিনয়ে আবারও নিয়মিত হওয়া প্রসঙ্গে এ অভিনেত্রী বলেন, ‘আমি কিন্তু অভিনয় থেকে দূরে সরে যাইনি। শুধু কাজের সংখ্যা কমিয়ে দিয়েছি। দর্শক আমাকে যে ধরনের নাটকে দেখতে চান সেগুলোতে কাজ করার চেষ্টা করি। মানসম্মত গল্পের দিকে নজর দিতে গিয়ে সব নাটকে অভিনয় করা হয় না। দর্শক যতদিন চাইবেন ঠিক ততদিনই আমি অভিনয় করে যাব। এ ছাড়া এ পর্যন্ত যা অর্জন করেছি তাও কম নয়। সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন যেন সুস্থ সুন্দরভাবে আগামী সময়গুলো অতিক্রম করতে পারি।’ অভিনয় ছাড়াও তিনি একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্ণধার। ‘বেটার ফিউচার ফর ওমেন’ নামের নারীদের জীবনমান উন্নয়নের এ সংস্থাটি পরিচালনা করছেন প্রায় তিন বছর ধরে প্রতিনিয়তই এটির কার্যক্রম সম্প্রসারিত করছেন শিমু।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন