ডিসেম্বর আমার জন্য সৌভাগ্যের
jugantor
হ্যালো...
ডিসেম্বর আমার জন্য সৌভাগ্যের

  সোহেল আহসান  

১৯ নভেম্বর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ডিসেম্বর আমার জন্য সৌভাগ্যের

একটি সুন্দরী প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয়ে মিডিয়ায় পা রাখেন জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী। কাজের ধারাবাহিকতায় নাম লেখান সিনেমায়। ডিসেম্বরে তার অভিষেক হচ্ছে দুই সিনেমা দিয়ে। অভিনয় এবং প্রাসঙ্গিক কিছু বিষয় নিয়ে আজকের ‘হ্যালো...’ বিভাগে কথা বলেছেন তিনি।

* এখন কী নিয়ে ব্যস্ত আছেন?

** সামনে পরীক্ষা। তাই এখন পড়ালেখা নিয়েই একটু বেশি ব্যস্ত। যদিও অনলাইনেই ক্লাস করতে হচ্ছে। দীর্ঘ সময় শুটিংয়ের কারণে পড়ালেখায় সময় দিতে পারিনি। সেই ক্ষতি এখন পুষিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছি। তা ছাড়া ডিসেম্বর মাসের পুরোটা সময়ই আমাকে সিনেমার কাজে ব্যস্ত থাকতে হবে। তাই পড়ালেখার কাজটি এগিয়ে রাখছি।

* ডিসেম্বর মাসে বড় পর্দায় অভিষেক এবং এ মাসেই আপনার অভিনীত দুটি সিনেমা মুক্তি পাচ্ছে। কেমন লাগছে?

** এটি আমার জন্য সৌভাগ্যের একটি বিষয়। ৩ ডিসেম্বর ‘মিশন এক্সট্রিম’ সিনেমাটি মুক্তি পাবে। অ্যাকশনধর্মী এ সিনেমায় আমি কেন্দ্রীয় একটি চরিত্রেই অভিনয় করেছি। এটি শুধু বাংলাদেশেই নয়, একই দিন বিশ্বের আরও কয়েকটি দেশে মুক্তি পাবে। তাই আমার অভিষেকটি হচ্ছে আকর্ষণীয়ভাবে। এ জন্য এ সিনেমার পরিচালক, প্রযোজক এবং সহকর্মীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। অন্যদিকে ‘রাত জাগা ফুল’ নামে আরও একটি সিনেমা ৩১ ডিসেম্বর মুক্তি পাবে। এতে আগেরটির ঠিক বিপরীত একটি গল্প। এখানে দর্শক আবার অন্যভাবে দেখতে পাবেন।

* সিনেমা দুটি নিয়ে আপানার প্রত্যাশা কী?

** অবশ্যই সফল হবে দুটি সিনেমাই। কারণ দুটি সিনেমাই নিখুঁতভাবে তৈরি করার চেষ্টা করেছেন পরিচালকরা। এ ছাড়া দক্ষ সব অভিনয়শিল্পী অভিনয় করেছেন এ সিনেমাগুলোতে। তাই দর্শক প্রেক্ষাগৃহে গিয়ে হতাশ হবেন না, এটা বলতে পারি। আমি নিজেও দর্শকের সঙ্গে গিয়ে সিনেমা দুটি দেখব।

* আর কী কী সিনেমা হাতে আছে?

** আমার হাতে আরও দুটি সিনেমার কাজ আছে। এর একটি হলো রায়হান রাফির ‘নূর’, অন্যটি আবু হিরনের ‘আদম’। দুটিরই সব কাজ শেষ। সেন্সরের পর ভালো একটি সময়ে ছবি দুটি মুক্তি পাবে বলে জেনেছি। এ দুটি ছবিতেও আমাকে ভালো দুটি চরিত্রে দেখা যাবে।

* উচ্চশিক্ষার জন্য ঢাকায় এলেও এখন চিত্রনায়িকা হয়ে গেলেন। তাহলে কি পড়ালেখার সেই পরিকল্পনা স্থগিত করেছেন?

** মোটেও না। আমি আসলে আইএলটিস করার জন্য ঢাকায় এসেছিলাম। ঢাকায় এসেই তাই সে বিষয়ের প্রস্তুতিকালীনই মিডিয়ায় ঢুকে যাই। উচ্চতর শিক্ষা গ্রহণের জন্য অস্ট্রেলিয়ায় যাওয়ার চিন্তাটা আপাতত স্থগিত আছে। কোনো এক সময় হয়তো সে ইচ্ছাটা পূরণ করব, সে আশা আছে আমার।

হ্যালো...

ডিসেম্বর আমার জন্য সৌভাগ্যের

 সোহেল আহসান 
১৯ নভেম্বর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ
ডিসেম্বর আমার জন্য সৌভাগ্যের
ফাইল ছবি

একটি সুন্দরী প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয়ে মিডিয়ায় পা রাখেন জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী। কাজের ধারাবাহিকতায় নাম লেখান সিনেমায়। ডিসেম্বরে তার অভিষেক হচ্ছে দুই সিনেমা দিয়ে। অভিনয় এবং প্রাসঙ্গিক কিছু বিষয় নিয়ে আজকের ‘হ্যালো...’ বিভাগে কথা বলেছেন তিনি।

* এখন কী নিয়ে ব্যস্ত আছেন?

** সামনে পরীক্ষা। তাই এখন পড়ালেখা নিয়েই একটু বেশি ব্যস্ত। যদিও অনলাইনেই ক্লাস করতে হচ্ছে। দীর্ঘ সময় শুটিংয়ের কারণে পড়ালেখায় সময় দিতে পারিনি। সেই ক্ষতি এখন পুষিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছি। তা ছাড়া ডিসেম্বর মাসের পুরোটা সময়ই আমাকে সিনেমার কাজে ব্যস্ত থাকতে হবে। তাই পড়ালেখার কাজটি এগিয়ে রাখছি।

* ডিসেম্বর মাসে বড় পর্দায় অভিষেক এবং এ মাসেই আপনার অভিনীত দুটি সিনেমা মুক্তি পাচ্ছে। কেমন লাগছে?

** এটি আমার জন্য সৌভাগ্যের একটি বিষয়। ৩ ডিসেম্বর ‘মিশন এক্সট্রিম’ সিনেমাটি মুক্তি পাবে। অ্যাকশনধর্মী এ সিনেমায় আমি কেন্দ্রীয় একটি চরিত্রেই অভিনয় করেছি। এটি শুধু বাংলাদেশেই নয়, একই দিন বিশ্বের আরও কয়েকটি দেশে মুক্তি পাবে। তাই আমার অভিষেকটি হচ্ছে আকর্ষণীয়ভাবে। এ জন্য এ সিনেমার পরিচালক, প্রযোজক এবং সহকর্মীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। অন্যদিকে ‘রাত জাগা ফুল’ নামে আরও একটি সিনেমা ৩১ ডিসেম্বর মুক্তি পাবে। এতে আগেরটির ঠিক বিপরীত একটি গল্প। এখানে দর্শক আবার অন্যভাবে দেখতে পাবেন।

* সিনেমা দুটি নিয়ে আপানার প্রত্যাশা কী?

** অবশ্যই সফল হবে দুটি সিনেমাই। কারণ দুটি সিনেমাই নিখুঁতভাবে তৈরি করার চেষ্টা করেছেন পরিচালকরা। এ ছাড়া দক্ষ সব অভিনয়শিল্পী অভিনয় করেছেন এ সিনেমাগুলোতে। তাই দর্শক প্রেক্ষাগৃহে গিয়ে হতাশ হবেন না, এটা বলতে পারি। আমি নিজেও দর্শকের সঙ্গে গিয়ে সিনেমা দুটি দেখব।

* আর কী কী সিনেমা হাতে আছে?

** আমার হাতে আরও দুটি সিনেমার কাজ আছে। এর একটি হলো রায়হান রাফির ‘নূর’, অন্যটি আবু হিরনের ‘আদম’। দুটিরই সব কাজ শেষ। সেন্সরের পর ভালো একটি সময়ে ছবি দুটি মুক্তি পাবে বলে জেনেছি। এ দুটি ছবিতেও আমাকে ভালো দুটি চরিত্রে দেখা যাবে।

* উচ্চশিক্ষার জন্য ঢাকায় এলেও এখন চিত্রনায়িকা হয়ে গেলেন। তাহলে কি পড়ালেখার সেই পরিকল্পনা স্থগিত করেছেন?

** মোটেও না। আমি আসলে আইএলটিস করার জন্য ঢাকায় এসেছিলাম। ঢাকায় এসেই তাই সে বিষয়ের প্রস্তুতিকালীনই মিডিয়ায় ঢুকে যাই। উচ্চতর শিক্ষা গ্রহণের জন্য অস্ট্রেলিয়ায় যাওয়ার চিন্তাটা আপাতত স্থগিত আছে। কোনো এক সময় হয়তো সে ইচ্ছাটা পূরণ করব, সে আশা আছে আমার।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন