শিগ্গির নাটকেও অভিনয় করব
jugantor
হ্যালো...
শিগ্গির নাটকেও অভিনয় করব

  সোহেল আহসান  

২৪ জানুয়ারি ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

এক সময়ের জনপ্রিয় অভিনেত্রী সুমাইয়া শিমু। দীর্ঘ বিরতির পর সম্প্রতি একটি বিজ্ঞাপনে অভিনয় করেছেন এ অভিনেত্রী। এ ছাড়া একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কাজ নিয়েও রয়েছে তার ব্যস্ততা। অভিনয় এবং অন্যান্য প্রাসঙ্গিক বিষয় নিয়ে আজকের ‘হ্যালো...’ বিভাগে কথা বলেছেন তিনি।

* অনেকদিন পর নতুন বিজ্ঞাপনে অভিনয় করেছেন। কেমন লেগেছে কাজটি?

** অভিনয় মাঝে মধ্যে করলেও বিজ্ঞাপন করিনি অনেক বছর। কাজের প্রস্তাব মাঝে মধ্যেই পেতাম। তবে সেগুলো মন মতো না হওয়ায় করা হয়নি। এবারের বিজ্ঞাপনটির সব কিছুই ভালো ছিল, তাই আগ্রহ নিয়ে কাজটি করেছিলাম। এতে সহশিল্পী হিসাবে চঞ্চল চৌধুরীও সাবলীল অভিনয় করেছেন। এখন পর্যন্ত এটি নিয়ে দর্শকের কাছে প্রত্যাশার চেয়েও বেশি সাড়া পাচ্ছি।

* এখন কি নিয়মিত বিজ্ঞাপনে কাজ করবেন?

** আমি কিন্তু কখনোই বলিনি, নিয়মিত কাজ করব না। আমার ভালোলাগা, পারিপার্শ্বিকতাসহ সবকিছু সমন্বয় করে যে কাজগুলোর প্রস্তাব মনের মতো হবে সেগুলোতেই অভিনয় করব। আমার শুরুটা কিংবা দর্শকের কাছে প্রথম পরিচিতি তৈরি হয়েছিল বিজ্ঞাপন দিয়েই। তাই এ অঙ্গনও আমার কাছে আগ্রহের।

* নাটকে নিয়মিত দেখা যাচ্ছে না আপনাকে। এটি নিয়ে পরিকল্পনা কী?

** নাটকে অভিনয় এখনো উপভোগ করি। সব সময়ই ভালো গল্পের নাটকের প্রতি বিশেষ দুর্বলতা অনুভব করি। করোনাকালসহ আরও কয়েকটি কারণে নাটকে অভিনয় করা হয় না। তবে শিগ্গির নাটকেও অভিনয় করব। এ জন্য এক ধরনের মানসিক প্রস্তুতি আছে।

* একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্ণধার আপনি। সেটির কর্মকাণ্ড কেমন চলছে?

** ‘বেটার ফিউচার ফর উইমেন’ নামের এ প্রতিষ্ঠানটির বয়স তিন বছর হতে চলল। পরিকল্পনা অনুযায়ীই এগিয়ে চলছে এর কর্মকাণ্ড। শুরুতে কলেবর কম থাকলেও প্রতিনিয়ত এটির কাজের পরিধি বৃদ্ধি পাচ্ছে। মানুষের কাছ থেকে ভালো সাড়া পাচ্ছি। করোনাকালের কারণে কিছুটা প্রতিবন্ধকতা মোকাবিলা করতে হচ্ছে। তবে এটি নতুন উচ্চতায় পৌঁছে যাবে বলে আমার বিশ্বাস।

* ডক্টরেট ডিগ্রি অর্জন করেছেন কিছুদিন আগে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকেন্দ্রিক কোনো কাজ করার পরিকল্পনা আছে?

** যদি সে ধরনের কাজের সুযোগ পাই, তাহলে অবশ্যই করার ইচ্ছা আছে। কিন্তু অনেকেই ভাবেন পিএইচডি ডিগ্রি শুধু শিক্ষকতার জন্য করে অনেকে। আমি এ ধারণার বিপক্ষে। আমার গবেষণার প্রতি এক ধরনের ঝোঁক ছিল ছাত্রজীবনেই। কিন্তু সেটির বাস্তবায়ন করতে পেরেছি অনেক পরে।

হ্যালো...

শিগ্গির নাটকেও অভিনয় করব

 সোহেল আহসান 
২৪ জানুয়ারি ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

এক সময়ের জনপ্রিয় অভিনেত্রী সুমাইয়া শিমু। দীর্ঘ বিরতির পর সম্প্রতি একটি বিজ্ঞাপনে অভিনয় করেছেন এ অভিনেত্রী। এ ছাড়া একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কাজ নিয়েও রয়েছে তার ব্যস্ততা। অভিনয় এবং অন্যান্য প্রাসঙ্গিক বিষয় নিয়ে আজকের ‘হ্যালো...’ বিভাগে কথা বলেছেন তিনি।

* অনেকদিন পর নতুন বিজ্ঞাপনে অভিনয় করেছেন। কেমন লেগেছে কাজটি?

** অভিনয় মাঝে মধ্যে করলেও বিজ্ঞাপন করিনি অনেক বছর। কাজের প্রস্তাব মাঝে মধ্যেই পেতাম। তবে সেগুলো মন মতো না হওয়ায় করা হয়নি। এবারের বিজ্ঞাপনটির সব কিছুই ভালো ছিল, তাই আগ্রহ নিয়ে কাজটি করেছিলাম। এতে সহশিল্পী হিসাবে চঞ্চল চৌধুরীও সাবলীল অভিনয় করেছেন। এখন পর্যন্ত এটি নিয়ে দর্শকের কাছে প্রত্যাশার চেয়েও বেশি সাড়া পাচ্ছি।

* এখন কি নিয়মিত বিজ্ঞাপনে কাজ করবেন?

** আমি কিন্তু কখনোই বলিনি, নিয়মিত কাজ করব না। আমার ভালোলাগা, পারিপার্শ্বিকতাসহ সবকিছু সমন্বয় করে যে কাজগুলোর প্রস্তাব মনের মতো হবে সেগুলোতেই অভিনয় করব। আমার শুরুটা কিংবা দর্শকের কাছে প্রথম পরিচিতি তৈরি হয়েছিল বিজ্ঞাপন দিয়েই। তাই এ অঙ্গনও আমার কাছে আগ্রহের।

* নাটকে নিয়মিত দেখা যাচ্ছে না আপনাকে। এটি নিয়ে পরিকল্পনা কী?

** নাটকে অভিনয় এখনো উপভোগ করি। সব সময়ই ভালো গল্পের নাটকের প্রতি বিশেষ দুর্বলতা অনুভব করি। করোনাকালসহ আরও কয়েকটি কারণে নাটকে অভিনয় করা হয় না। তবে শিগ্গির নাটকেও অভিনয় করব। এ জন্য এক ধরনের মানসিক প্রস্তুতি আছে।

* একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্ণধার আপনি। সেটির কর্মকাণ্ড কেমন চলছে?

** ‘বেটার ফিউচার ফর উইমেন’ নামের এ প্রতিষ্ঠানটির বয়স তিন বছর হতে চলল। পরিকল্পনা অনুযায়ীই এগিয়ে চলছে এর কর্মকাণ্ড। শুরুতে কলেবর কম থাকলেও প্রতিনিয়ত এটির কাজের পরিধি বৃদ্ধি পাচ্ছে। মানুষের কাছ থেকে ভালো সাড়া পাচ্ছি। করোনাকালের কারণে কিছুটা প্রতিবন্ধকতা মোকাবিলা করতে হচ্ছে। তবে এটি নতুন উচ্চতায় পৌঁছে যাবে বলে আমার বিশ্বাস।

* ডক্টরেট ডিগ্রি অর্জন করেছেন কিছুদিন আগে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকেন্দ্রিক কোনো কাজ করার পরিকল্পনা আছে?

** যদি সে ধরনের কাজের সুযোগ পাই, তাহলে অবশ্যই করার ইচ্ছা আছে। কিন্তু অনেকেই ভাবেন পিএইচডি ডিগ্রি শুধু শিক্ষকতার জন্য করে অনেকে। আমি এ ধারণার বিপক্ষে। আমার গবেষণার প্রতি এক ধরনের ঝোঁক ছিল ছাত্রজীবনেই। কিন্তু সেটির বাস্তবায়ন করতে পেরেছি অনেক পরে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন