নাটক পরিচালনা বেশ উপভোগ করি
jugantor
হ্যালো...
নাটক পরিচালনা বেশ উপভোগ করি

  সোহেল আহসান  

২৫ জানুয়ারি ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

নাটকের জনপ্রিয় অভিনেতা শাহেদ শরীফ খান সাম্প্রতিক সময়ে সিনেমায় অভিনয় নিয়ে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। পাশাপাশি বিজ্ঞাপনেও কাজ করছেন। এ ছাড়া নির্মাতা হিসাবেও রয়েছে তার সোনালি অতীত। অভিনয় এবং অন্যান্য বিষয় নিয়ে আজকের ‘হ্যালো...’ বিভাগে কথা বলেছেন তিনি।

* এখন কী নিয়ে ব্যস্ত আছেন?

** সব সময়ের মতো শুটিং করছি প্রায় প্রতিদিন। তবে করোনার সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে কাজের গতি কিছুটা কমিয়ে দিয়েছি। তারপরও সামনের সময়গুলোতে শুটিং সিডিউল দেওয়া আছে। লকডাউন না দিলে শুটিংয়েই ব্যস্ত থাকতে হবে আমাকে।

* নাটকে অভিনয়ের ব্যস্ততা কেমন যাচ্ছে?

** আমি এক খণ্ডের নাটকেই বেশি অভিনয় করি। তবে সম্প্রতি দুটি দীর্ঘ ধারাবাহিক নাটকে অভিনয়ের কথা চলছে। এগুলো পরিচালনা করবেন কায়সার আহমেদ ও মুরাদ পারভেজ। এ ছাড়া আরও কয়েকটি ধারাবাহিকে অভিনয়ের কথা বলেছেন নির্মাতারা। নাটকে অভিনয়ের আনন্দ অন্যরকম। তাই এ ধরনের কাজ বেশি করি।

* ইদানীং সিনেমাতেও আপনার সরব উপস্থিতি রয়েছে। নতুন কোনো সিনেমার কাজ শুরু করেছেন?

** হ্যাঁ। অরুণা বিশ্বাসের পরিচালনায় ‘অসম্ভব’ নামের সরকারি অনুদানের সিনেমায় অভিনয় করছি। এর কাজ শেষ পর্যায়ে আছে। যাত্রাপালা নিয়ে এর গল্প তৈরি করা হয়েছে। এ ধরনের গল্পে প্রথমবার কাজ করছি। এতে আমার চরিত্রটিও বেশ গুরুত্বপূর্ণ। এ ছাড়া সাখাওয়াত হোসেনের পরিচালনায় ‘বীরাঙ্গনা’ নামের আরেকটি নতুন সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হয়েছি। এরই মধ্যে শুটিং শুরু হয়েছে।

* আপনার অভিনীত মুক্তি প্রতীক্ষিত সিনেমাগুলোর খবর কী?

** ওয়াজেদ আলী সুমনের পরিচালনায় ‘অন্তরাত্মা’ নামের বড় ক্যানভাসের একটি সিনেমায় অভিনয় করেছিলাম গত বছর। সেটির প্রায় সব কাজ শেষ। সম্ভবত করোনার কারণেই মুক্তি বিলম্বিত হচ্ছে। এতে প্রথমবার খলচরিত্রে অভিনয় করেছি। দর্শক একেবারেই নতুন একটি গেটআপে দেখতে পাবেন আমাকে। এ ছাড়া কলকাতার রিঙ্গো ব্যানার্জির পরিচালনায় ‘সেনাপতি’ নামের একটি সিনেমায় অভিনয় করেছিলাম তিন বছর আগে। সেটিও করোনার কারণেই মুক্তি আটকে আছে। এ ছাড়া রিয়াজুল রিজুর পরিচালনায় ‘ব্ল্যাক লাইট’ নামের নতুন একটি সিনেমায় অভিনয় করছি। এর কাজ অসমাপ্ত রয়েছে।

* নাটক পরিচালনা করতেন এক সময়। সেই কাজটি কি আর করবেন না?

** নাটক পরিচালনা বেশ উপভোগ করি। কিন্তু অভিনয়ের ব্যস্ততার কারণে কাজটি করার সুযোগ পাই কম। সম্প্রতি একটি ধারাবাহিক নাটক নির্মাণের পরিকল্পনা করছি। প্রাথমিক কাজও শুরু করেছি। কীভাবে কাজটি করা যায় তা নিয়ে অনেকদিন ধরেই গবেষণা করছি। সব কিছু ঠিক থাকলে চলতি বছরেই এটি দর্শকের সামনে আসবে।

হ্যালো...

নাটক পরিচালনা বেশ উপভোগ করি

 সোহেল আহসান 
২৫ জানুয়ারি ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

নাটকের জনপ্রিয় অভিনেতা শাহেদ শরীফ খান সাম্প্রতিক সময়ে সিনেমায় অভিনয় নিয়ে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। পাশাপাশি বিজ্ঞাপনেও কাজ করছেন। এ ছাড়া নির্মাতা হিসাবেও রয়েছে তার সোনালি অতীত। অভিনয় এবং অন্যান্য বিষয় নিয়ে আজকের ‘হ্যালো...’ বিভাগে কথা বলেছেন তিনি।

* এখন কী নিয়ে ব্যস্ত আছেন?

** সব সময়ের মতো শুটিং করছি প্রায় প্রতিদিন। তবে করোনার সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে কাজের গতি কিছুটা কমিয়ে দিয়েছি। তারপরও সামনের সময়গুলোতে শুটিং সিডিউল দেওয়া আছে। লকডাউন না দিলে শুটিংয়েই ব্যস্ত থাকতে হবে আমাকে।

* নাটকে অভিনয়ের ব্যস্ততা কেমন যাচ্ছে?

** আমি এক খণ্ডের নাটকেই বেশি অভিনয় করি। তবে সম্প্রতি দুটি দীর্ঘ ধারাবাহিক নাটকে অভিনয়ের কথা চলছে। এগুলো পরিচালনা করবেন কায়সার আহমেদ ও মুরাদ পারভেজ। এ ছাড়া আরও কয়েকটি ধারাবাহিকে অভিনয়ের কথা বলেছেন নির্মাতারা। নাটকে অভিনয়ের আনন্দ অন্যরকম। তাই এ ধরনের কাজ বেশি করি।

* ইদানীং সিনেমাতেও আপনার সরব উপস্থিতি রয়েছে। নতুন কোনো সিনেমার কাজ শুরু করেছেন?

** হ্যাঁ। অরুণা বিশ্বাসের পরিচালনায় ‘অসম্ভব’ নামের সরকারি অনুদানের সিনেমায় অভিনয় করছি। এর কাজ শেষ পর্যায়ে আছে। যাত্রাপালা নিয়ে এর গল্প তৈরি করা হয়েছে। এ ধরনের গল্পে প্রথমবার কাজ করছি। এতে আমার চরিত্রটিও বেশ গুরুত্বপূর্ণ। এ ছাড়া সাখাওয়াত হোসেনের পরিচালনায় ‘বীরাঙ্গনা’ নামের আরেকটি নতুন সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হয়েছি। এরই মধ্যে শুটিং শুরু হয়েছে।

* আপনার অভিনীত মুক্তি প্রতীক্ষিত সিনেমাগুলোর খবর কী?

** ওয়াজেদ আলী সুমনের পরিচালনায় ‘অন্তরাত্মা’ নামের বড় ক্যানভাসের একটি সিনেমায় অভিনয় করেছিলাম গত বছর। সেটির প্রায় সব কাজ শেষ। সম্ভবত করোনার কারণেই মুক্তি বিলম্বিত হচ্ছে। এতে প্রথমবার খলচরিত্রে অভিনয় করেছি। দর্শক একেবারেই নতুন একটি গেটআপে দেখতে পাবেন আমাকে। এ ছাড়া কলকাতার রিঙ্গো ব্যানার্জির পরিচালনায় ‘সেনাপতি’ নামের একটি সিনেমায় অভিনয় করেছিলাম তিন বছর আগে। সেটিও করোনার কারণেই মুক্তি আটকে আছে। এ ছাড়া রিয়াজুল রিজুর পরিচালনায় ‘ব্ল্যাক লাইট’ নামের নতুন একটি সিনেমায় অভিনয় করছি। এর কাজ অসমাপ্ত রয়েছে।

* নাটক পরিচালনা করতেন এক সময়। সেই কাজটি কি আর করবেন না?

** নাটক পরিচালনা বেশ উপভোগ করি। কিন্তু অভিনয়ের ব্যস্ততার কারণে কাজটি করার সুযোগ পাই কম। সম্প্রতি একটি ধারাবাহিক নাটক নির্মাণের পরিকল্পনা করছি। প্রাথমিক কাজও শুরু করেছি। কীভাবে কাজটি করা যায় তা নিয়ে অনেকদিন ধরেই গবেষণা করছি। সব কিছু ঠিক থাকলে চলতি বছরেই এটি দর্শকের সামনে আসবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন