প্রতিনিয়ত নিজেকে ভাঙার চেষ্টা করি : সজল

  অনিন্দ্য মামুন ২৮ মে ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

জনপ্রিয় তারকা আবদুন নুর সজল
জনপ্রিয় তারকা আবদুন নুর সজল

টিভি নাটকের অন্যতম জনপ্রিয় তারকা আবদুন নুর সজল। নাটকের শুটিং নিয়ে সারা বছরই ব্যস্ততা তার। বিশেষ করে উৎসবকেন্দ্রিক নাটকগুলোতে তার উপস্থিতি চোখে পড়ার মতো। বর্তমান ব্যস্ততা ও সমসাময়িক প্রসঙ্গ নিয়ে আজকের ‘হ্যালো...’ বিভাগে কথা বলেছেন তিনি

* যুগান্তর: ঈদের নাটকের ব্যস্ততা কেমন যাচ্ছে?

** সজল: সারা বছরই তো নাটকের শুটিং করি। তবে উৎসবের আগে নাটকের সংখ্যা বেড়ে যায়। তাই ব্যস্ততাও বাড়ে। বিশেষ করে ঈদুল ফিতরের আগের এ সময়টা নাটকে শুটিংয়ের কারণে খুব বেশি ব্যস্ততা থাকে।

একই অবস্থা ঈদুল আজহাতেও হয়। কী করব বলুন? চ্যানেল বেড়েছে, নাটক প্রচারের সংখ্যা বেড়েছে, ব্যস্ততা তো বাড়বেই।

* যুগান্তর: অনেকে অভিযোগ করছেন আপনি নাকি বেশি নাটকে অভিনয় করছেন?

** সজল: এটাকে অভিযোগ বলা ঠিক হবে না। অনেকে এমন প্রশ্ন আমাকেও করেন। একটা কথা হয়তো সবাই জানেন, আমি কিন্তু ধারাবাহিক নাটকে কাজ করি না। কেবল খণ্ড নাটকেই কাজ করি।

সিরিয়ালে অভিনয় করলে সংখ্যা বুঝত না, একটি নাটক বুঝত। অথচ সিরিয়াল প্রচার হয় প্রায় প্রতিদিন। সপ্তাহে দুটি পর্ব প্রচার হলেও কতগুলো নাটক হয় ভেবেছেন? আমি খণ্ড নাটক করছি বলে সেটি চোখে পড়ছে বেশি।

সারা বছর তো আমি সিরিয়ালে কাজ করি না। উৎসবে চ্যানেলে আমার অভিনীত যে নাটক প্রচার হয় সেগুলোর সবই কিন্তু কেবল উৎসবের আগমুহূর্তেই শুটিং হয় না।

বছরের অন্যান্য সময়ে শুটিং করা নাটকও উৎসবে প্রচার হয়। তাই সংখ্যাও বেশি দেখায়। তবে এটা নিয়ে আমার কোনো ভাবনা-চিন্তা নেই। দর্শকদের ভালোবাসা পাচ্ছি, এটাই বড় ব্যাপার।

* যুগান্তর: এত নাটকে অভিনয় করছেন, মান ঠিক থাকছে তো?

** সজল: মানহীন কিছু দিয়ে দর্শকদের মাঝে বেশিদিন টিকে থাকা যায় না। আমি তো অভিনয় করি দর্শকদের জন্য। তারা আমাকে পছন্দ করছেন। এখনকার দর্শকরা অনেক সচেতন।

তারা যে কোনো আর্টিস্টদের কাজ নিয়ে সামাজিক মাধ্যমগুলোতে সমালোচনা করার সুযোগ পাচ্ছেন। নাটক পছন্দ না হলেও চ্যানেল পরিবর্তন করে তাকে এড়িয়ে যাওয়ার সুযোগ পাচ্ছেন।

এমন সময়ে মানহীন কাজের কোনো সাপোর্ট নেই। আমি এখন প্রতিনিয়ত নিজেকে ভাঙার চেষ্টা করি। ব্যতিক্রমী সব গল্পে কাজ করছি। আগে দর্শকদের সামনে যে রোমান্টিক সজলের ভাবমূর্তি ছিল, সেখান থেকে নিজেকে অন্য জায়গায় নিয়ে এসেছি। এই সময়ের নাটকগুলো দেখলেই সেটি বুঝতে পারবেন।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter