পরিকল্পনা করে আমি অভিনয়ে আসিনি
jugantor
হ্যালো...
পরিকল্পনা করে আমি অভিনয়ে আসিনি

  সোহেল আহসান  

২০ জুলাই ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

চার বছর আগে ঢাকাই সিনেমায় অভিষিক্ত হন ইয়াশ রোহান। গত ঈদে মুক্তি পেয়েছে তার অভিনীত তৃতীয় সিনেমা। এ ছাড়া নতুন দুটি সিনেমায়ও অভিনয় করছেন এ অভিনেতা। অভিনয় এবং প্রাসঙ্গিক বিষয় নিয়ে আজকের ‘হ্যালো....’ বিভাগে কথা বলেছেন তিনি।

* এবারের ঈদে আপনার অভিনীত ‘পরান’ নামের একটি সিনেমা মুক্তি পেয়েছে। কেমন সাড়া পাচ্ছেন?

** খুবই ইতিবাচক সাড়া পাচ্ছি। প্রত্যাশা যতটুকু ছিল তার চেয়েও বেশি পাচ্ছি। করোনাভাইরাস এবং বৈরী আবহাওয়ার মধ্যেই দর্শক যে সিনেমাটি দেখতে প্রেক্ষাগৃহে যাচ্ছেন, তা খুবই উল্লেখ করার মতো একটি বিষয়। সিনেমার টিমের সঙ্গে আমিও অনেক প্রেক্ষাগৃহে গিয়েছি। এ সিনেমার একজন অভিনেতা হিসাবে নিজেকে খুব সৌভাগ্যবান মনে হচ্ছে। ঈদের অন্য সিনেমাগুলো দেখার জন্যও আমি দর্শকদের অনুরোধ করছি।

* অভিনয়কে কী এখন পেশা হিসাবে নেওয়ার পরিকল্পনা করছেন?

** এখনো এ নিয়ে দীর্ঘমেয়াদি কোনো পরিকল্পনা নেই। পরিকল্পিনা করে আমি অভিনয়ে আসিনি। অনেকটা শখের বশেই অভিনয় শুরু করেছিলাম। তবে ‘স্বপ্নজাল’ নামে একটি সিনেমায় অভিনয় করার পর থেকেই অনেকেই উৎসাহ দিচ্ছেন এ মাধ্যমে কাজ করার জন্য। আমিও তাই অভিনয় করে যাচ্ছি। যদি সব কিছু মনমতো হয় তাহলে অভিনয়কে পেশা হিসাবে নেওয়ার ক্ষেত্রে কোনো বাধা থাকবে না।

* টিভি নাটক, সিনেমা ও ওয়েব মাধ্যম-এ তিনটির মধ্যে কোনটির প্রতি আপনার আগ্রহ বেশি?

** আমি কোনো মাধ্যমের প্রতি দুর্বল নই। আমার লক্ষ্য থাকে গল্পের প্রতি। গল্প যদি সুন্দর হয় তাহলে সেটি যে মাধ্যমের কাজই হোক না কেন, দর্শক দেখবেনই। তাই এ নিয়ে আমার বিশেষ পছন্দ নেই। আমি অভিনয়টাকে ভালোলাগার মধ্য দিয়ে করতে চাই। যদি গল্প পছন্দ না হয়, তাহলে অভিনয়ই করব না।

* আপনার হাতে আরও দুটি সিনেমার কাজ রয়েছে। এগুলোর অগ্রগতি কী?

** একটি সিনেমার কাজ এখনো চলমান আছে। তবে পরিচালকের পক্ষ থেকে সেটির তথ্য প্রকাশ করতে বিধিনিষেধ আছে। আর অন্যটির নাম ‘দেশান্তর’। এ সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন আশুতোষ সুজন। সরকারি অনুদানে নির্মিত সিনেমাটির কাজ প্রায় শেষ। চলতি বছরই মুক্তির সম্ভাবনা আছে বলে নির্মাতা জানিয়েছেন।

* রোজার ঈদের পর একটি নাটকে অভিনয় করেছিলেন। সেটি কবে প্রচারে আসবে?

** ইফতেখার আহমেদ ফাহমী নাটকটির পরিচালক। ‘অ্যাসাইনমেন্ট’ নামের এ নাটকটিতে অভিনয় করে বেশ ভালা লেগেছ। কারণ ফাহমী ভাই গুণী নির্মাতা। তবে নাটকটি কেন প্রচার হতে দেরি হচ্ছে, তা আমার জানা নেই।

হ্যালো...

পরিকল্পনা করে আমি অভিনয়ে আসিনি

 সোহেল আহসান 
২০ জুলাই ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

চার বছর আগে ঢাকাই সিনেমায় অভিষিক্ত হন ইয়াশ রোহান। গত ঈদে মুক্তি পেয়েছে তার অভিনীত তৃতীয় সিনেমা। এ ছাড়া নতুন দুটি সিনেমায়ও অভিনয় করছেন এ অভিনেতা। অভিনয় এবং প্রাসঙ্গিক বিষয় নিয়ে আজকের ‘হ্যালো....’ বিভাগে কথা বলেছেন তিনি।

* এবারের ঈদে আপনার অভিনীত ‘পরান’ নামের একটি সিনেমা মুক্তি পেয়েছে। কেমন সাড়া পাচ্ছেন?

** খুবই ইতিবাচক সাড়া পাচ্ছি। প্রত্যাশা যতটুকু ছিল তার চেয়েও বেশি পাচ্ছি। করোনাভাইরাস এবং বৈরী আবহাওয়ার মধ্যেই দর্শক যে সিনেমাটি দেখতে প্রেক্ষাগৃহে যাচ্ছেন, তা খুবই উল্লেখ করার মতো একটি বিষয়। সিনেমার টিমের সঙ্গে আমিও অনেক প্রেক্ষাগৃহে গিয়েছি। এ সিনেমার একজন অভিনেতা হিসাবে নিজেকে খুব সৌভাগ্যবান মনে হচ্ছে। ঈদের অন্য সিনেমাগুলো দেখার জন্যও আমি দর্শকদের অনুরোধ করছি।

* অভিনয়কে কী এখন পেশা হিসাবে নেওয়ার পরিকল্পনা করছেন?

** এখনো এ নিয়ে দীর্ঘমেয়াদি কোনো পরিকল্পনা নেই। পরিকল্পিনা করে আমি অভিনয়ে আসিনি। অনেকটা শখের বশেই অভিনয় শুরু করেছিলাম। তবে ‘স্বপ্নজাল’ নামে একটি সিনেমায় অভিনয় করার পর থেকেই অনেকেই উৎসাহ দিচ্ছেন এ মাধ্যমে কাজ করার জন্য। আমিও তাই অভিনয় করে যাচ্ছি। যদি সব কিছু মনমতো হয় তাহলে অভিনয়কে পেশা হিসাবে নেওয়ার ক্ষেত্রে কোনো বাধা থাকবে না।

* টিভি নাটক, সিনেমা ও ওয়েব মাধ্যম-এ তিনটির মধ্যে কোনটির প্রতি আপনার আগ্রহ বেশি?

** আমি কোনো মাধ্যমের প্রতি দুর্বল নই। আমার লক্ষ্য থাকে গল্পের প্রতি। গল্প যদি সুন্দর হয় তাহলে সেটি যে মাধ্যমের কাজই হোক না কেন, দর্শক দেখবেনই। তাই এ নিয়ে আমার বিশেষ পছন্দ নেই। আমি অভিনয়টাকে ভালোলাগার মধ্য দিয়ে করতে চাই। যদি গল্প পছন্দ না হয়, তাহলে অভিনয়ই করব না।

* আপনার হাতে আরও দুটি সিনেমার কাজ রয়েছে। এগুলোর অগ্রগতি কী?

** একটি সিনেমার কাজ এখনো চলমান আছে। তবে পরিচালকের পক্ষ থেকে সেটির তথ্য প্রকাশ করতে বিধিনিষেধ আছে। আর অন্যটির নাম ‘দেশান্তর’। এ সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন আশুতোষ সুজন। সরকারি অনুদানে নির্মিত সিনেমাটির কাজ প্রায় শেষ। চলতি বছরই মুক্তির সম্ভাবনা আছে বলে নির্মাতা জানিয়েছেন।

* রোজার ঈদের পর একটি নাটকে অভিনয় করেছিলেন। সেটি কবে প্রচারে আসবে?

** ইফতেখার আহমেদ ফাহমী নাটকটির পরিচালক। ‘অ্যাসাইনমেন্ট’ নামের এ নাটকটিতে অভিনয় করে বেশ ভালা লেগেছ। কারণ ফাহমী ভাই গুণী নির্মাতা। তবে নাটকটি কেন প্রচার হতে দেরি হচ্ছে, তা আমার জানা নেই।

 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন