৭৫ বসন্ত পেরিয়ে শবনম
jugantor
৭৫ বসন্ত পেরিয়ে শবনম

  আনন্দনগর প্রতিবেদক  

১৭ আগস্ট ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

জীবন্ত কিংবদন্তি অভিনেত্রী শবনম। এক সময়ের দর্শকদের হৃদয়ের রানি। সর্বশেষ তাকে পর্দায় দেখা গিয়েছিল কাজী হায়াত পরিচালিত ১৯৯৯ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘আম্মাজান’ সিনেমায়। এরপর দীর্ঘ বিরতি। তবে অবসর নয়। বাংলাদেশে কাজ না করলেও পাকিস্তানি টিভি সিরিয়ালে তিনি করোনাকালের আগেও অভিনয় করেছেন। আজ এ কিংবদন্তি অভিনেত্রীর জন্মদিন। জীবন খাতার ৭৫ বসন্ত পেরিয়ে ৭৬-এ পা রেখেছেন।

কেমন ছিল জীবনের ফেলে আসা দিনগুলো? জানতে চাইতেই শবনম বলেন, ‘দেখতে দেখতে তো ৭৫টি বছর পার করে দিলাম। অথচ এখনো মনে হয় এই তো সেদিনের কথা, বাবা মায়ের সঙ্গে সময় কাটছে, স্কুলে যাচ্ছি, ফিল্ম করছি। আর এখন ভাবলে মনে হয় কত সময় চলে গেছে জীবন থেকে। জীবনের কত রূপ দেখেছি, নানা বয়সে জীবনের সৌন্দর্য উপভোগ করেছি। কত কত মানুষের সঙ্গে পরিচয়, কত কিছু শিখেছি এক জীবনে, কত কোটি মানুষের ভালোবাসা পেয়েছি। আবার হারিয়েছিও অনেক প্রিয়জনকে। জীবন আসলে মৃত্যু পর্যন্ত সুখ-দুঃখের খেলা। এখনো সুস্থ আছি, ভালো আছি-এটাই কম কিসের।’

জন্মদিনের আয়োজন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘বয়স তো আর কম হলো না। এ বয়সে জন্মদিন নিয়ে উচ্ছ্বাস নেই। শুধু একমাত্র ছেলে রনিকে সঙ্গে নিয়ে হয়তো বাসার বাইরে কোথাও গিয়ে একসঙ্গে খাওয়া দাওয়া করব।’

শবনমের আসল নাম ঝর্ণা বসাক। সিনেমায় আসার আগে থেকেই নাচের সঙ্গে সম্পৃক্ত ছিলেন। এহতেশাম পরিচালিত ‘এদেশ তোমার আমার’ ও ‘রাজধানীর বুকে’ সিনেমায় নৃত্যর্শিল্পী হিসাবে কাজ করেন। এরপর একই পরিচালকের ‘হারানো দিন’ সিনেমায় নায়িকা হিসাবে তার অভিষেক ঘটে। পরে ‘চান্দা’, ‘তালাশ’, ‘নাচের পুতুল’, ‘সন্ধি’, ‘শর্ত’, ‘সহধর্মিণী’, ‘যোগাযোগ’, ‘জুলি’, ‘বশিরা’, ‘দিল’সহ আরও অনেক সিনেমায় অভিনয় করেন। পাকিস্তানি সিনেমায়ও তিনি নিয়মিত অভিনয় করতেন। কয়েক বছর আগে তিনি স্বামী বরেণ্য সুরস্রষ্টা, সংগীত পরিচালক রবিন ঘোষকে হারিয়েছেন। বর্তমানে একমাত্র ছেলেকে নিয়ে রাজধানীর একটি অভিজাত এলাকায় বসবাস করছেন এ কিংবদন্তি।

৭৫ বসন্ত পেরিয়ে শবনম

 আনন্দনগর প্রতিবেদক 
১৭ আগস্ট ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

জীবন্ত কিংবদন্তি অভিনেত্রী শবনম। এক সময়ের দর্শকদের হৃদয়ের রানি। সর্বশেষ তাকে পর্দায় দেখা গিয়েছিল কাজী হায়াত পরিচালিত ১৯৯৯ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘আম্মাজান’ সিনেমায়। এরপর দীর্ঘ বিরতি। তবে অবসর নয়। বাংলাদেশে কাজ না করলেও পাকিস্তানি টিভি সিরিয়ালে তিনি করোনাকালের আগেও অভিনয় করেছেন। আজ এ কিংবদন্তি অভিনেত্রীর জন্মদিন। জীবন খাতার ৭৫ বসন্ত পেরিয়ে ৭৬-এ পা রেখেছেন।

কেমন ছিল জীবনের ফেলে আসা দিনগুলো? জানতে চাইতেই শবনম বলেন, ‘দেখতে দেখতে তো ৭৫টি বছর পার করে দিলাম। অথচ এখনো মনে হয় এই তো সেদিনের কথা, বাবা মায়ের সঙ্গে সময় কাটছে, স্কুলে যাচ্ছি, ফিল্ম করছি। আর এখন ভাবলে মনে হয় কত সময় চলে গেছে জীবন থেকে। জীবনের কত রূপ দেখেছি, নানা বয়সে জীবনের সৌন্দর্য উপভোগ করেছি। কত কত মানুষের সঙ্গে পরিচয়, কত কিছু শিখেছি এক জীবনে, কত কোটি মানুষের ভালোবাসা পেয়েছি। আবার হারিয়েছিও অনেক প্রিয়জনকে। জীবন আসলে মৃত্যু পর্যন্ত সুখ-দুঃখের খেলা। এখনো সুস্থ আছি, ভালো আছি-এটাই কম কিসের।’

জন্মদিনের আয়োজন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘বয়স তো আর কম হলো না। এ বয়সে জন্মদিন নিয়ে উচ্ছ্বাস নেই। শুধু একমাত্র ছেলে রনিকে সঙ্গে নিয়ে হয়তো বাসার বাইরে কোথাও গিয়ে একসঙ্গে খাওয়া দাওয়া করব।’

শবনমের আসল নাম ঝর্ণা বসাক। সিনেমায় আসার আগে থেকেই নাচের সঙ্গে সম্পৃক্ত ছিলেন। এহতেশাম পরিচালিত ‘এদেশ তোমার আমার’ ও ‘রাজধানীর বুকে’ সিনেমায় নৃত্যর্শিল্পী হিসাবে কাজ করেন। এরপর একই পরিচালকের ‘হারানো দিন’ সিনেমায় নায়িকা হিসাবে তার অভিষেক ঘটে। পরে ‘চান্দা’, ‘তালাশ’, ‘নাচের পুতুল’, ‘সন্ধি’, ‘শর্ত’, ‘সহধর্মিণী’, ‘যোগাযোগ’, ‘জুলি’, ‘বশিরা’, ‘দিল’সহ আরও অনেক সিনেমায় অভিনয় করেন। পাকিস্তানি সিনেমায়ও তিনি নিয়মিত অভিনয় করতেন। কয়েক বছর আগে তিনি স্বামী বরেণ্য সুরস্রষ্টা, সংগীত পরিচালক রবিন ঘোষকে হারিয়েছেন। বর্তমানে একমাত্র ছেলেকে নিয়ে রাজধানীর একটি অভিজাত এলাকায় বসবাস করছেন এ কিংবদন্তি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন