প্রতিনিয়তই নিজেকে পরিবর্তন করছি: বুবলী

  অনিন্দ্য মামুন ২০ জুন ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ঢাকাই ছবির এ সময়ের সবচেয়ে আলোচিত নায়িকা শবনম বুবলী।
ঢাকাই ছবির এ সময়ের সবচেয়ে আলোচিত নায়িকা শবনম বুবলী।

ঢাকাই ছবির এ সময়ের সবচেয়ে আলোচিত নায়িকা শবনম বুবলী। শাকিব খানের সঙ্গে জুটি বেঁধে একের পর এক আলোচিত ও হিট ছবি উপহার দিচ্ছেন। এবারের ঈদুল ফিতর উপলক্ষে মুক্তি পেয়েছে তার অভিনীত দুটি ছবি। ঈদের ছবির নানা প্রসঙ্গ ও সাম্প্রতিক ব্যস্ততার খবরাখবর নিয়ে আজকের ‘হ্যালো...’ বিভাগে কথা বলেছেন তিনি

* যুগান্তর: ঈদ কেমন কাটছে?

** বুবলী: ঈদ বরাবরই ভালো কাটে আমার। ঈদে বাসায় প্রচুর মেহমান আসে। তাদের আপ্যায়ন নিয়ে ব্যস্ত থাকি। এবারের ঈদেও তার ব্যতিক্রম হয়নি।

* যুগান্তর: প্রায় প্রতিটি বড় বড় উৎসবেই এখন আপনার অভিনীত ছবি মুক্তি পাচ্ছে। কেমন লাগে বিষয়টি?

** বুবলী: চলচ্চিত্রে আমার অভিষেক কিন্তু ঈদের ছবি দিয়েই হয়েছে। তাই বলতে পারি, আমার ভাগ্য সুপ্রসন্ন। বড় বড় উৎসবে প্রেক্ষাগৃহে ছবি মুক্তি পেলে উৎসবের আমেজ আরও বেড়ে যায়। নিজের অভিনীত ছবি দেখতে দর্শকদের উপচে পড়া ভিড় সব শিল্পীরই ভালো লাগে। আমার ক্ষেত্রেও তাই।

* যুগান্তর: ঈদে আপনার অভিনীত মুক্তি পাওয়া ছবিগুলো দেখেছেন?

** বুবলী: দুটি ছবিই দেখেছি আমি। বোরকা পরে প্রেক্ষাগৃহে গিয়ে ছবি দেখে এসেছি। আমার ছবি ছাড়াও যে ছবিগুলো মুক্তি পেয়েছে সেগুলোও দেখার পরিকল্পনা রয়েছে। ঈদে বাসায় বেশ মেহমান আসছে। এ চাপ কমে এলেই প্রেক্ষাগৃহে গিয়ে অন্য ছবিগুলোও দেখব।

* যুগান্তর: ছবি দুটির দর্শক সাড়া কেমন আসছে?

** বুবলী: এবারের ঈদে আমার অভিনীত আশিকুর রহমান পরিচালিত ‘সুপার হিরো’ ও উত্তম আকাশ দাদার ‘চিটাগাইঙ্গা পোয়া নোয়াখাইল্যা মাইয়া’ ছবি দুটি মুক্তি পেয়েছে। দুটিই কিন্তু দুই ধারার ছবি। একটি অ্যাকশন থ্রিলার, অন্যটি পুরোপুরি কমেডি। এর মধ্যে চিটাগাইঙ্গা পোয়া নোয়াখাইল্যা মাইয়া সর্বাধিক হলে মুক্তি পেয়েছে। আর সুপার হিরোর কথা তো সবাই জানেন। ছবিটি ঈদের একদিন আগে কনফার্ম হয়েছে। কোনো প্রচারণাই চালানো সম্ভব হয়নি। তবুও দর্শকরা ছবিটি ভালোভাবে নিচ্ছেন। আশা করি পরের সপ্তাহে আরও হল বাড়বে। সিনেপ্লেক্সগুলোতেও চলবে।

* যুগান্তর: চলচ্চিত্রে খুব বেশিদিনের ক্যারিয়ার নয় আপনার। এই অল্প সময়ে অনেক সাফল্য পেয়েছেন। প্রথম ছবির বুবলী আর এই সময়ের বুবলীর মধ্যে কী ধরনের পার্থক্য দেখতে পান?

** বুবলী: মানুষের অভিজ্ঞতা আর শেখার কোনো শেষ নেই। প্রথম ছবির বুবলী আর বর্তমান সময়ের বুবলীর অনেক পার্থক্য। নিয়মিত কাজ করছি বলে নতুন নতুন অভিজ্ঞতা হচ্ছে। অভিনয়ও শিখছি। দর্শকদের ভালোমন্দ বুঝছি। এ সময়ের দর্শকরা কী ধরনের কাজ আমাদের কাছে আশা করেন সেটাও জানছি। সব মিলিয়ে প্রতিনিয়তই নিজেকে পরিবর্তন করছি।

* যুগান্তর: শুটিংয়ে নাকি শাকিব খানের ড্রেস ডিজাইনারের কাজ আপনিই করেন?

** বুবলী: বিষয়টি আসলে তেমন নয়। ড্রেস ডিজাইন সম্পর্কে ভালো জ্ঞান রয়েছে আমার। একসঙ্গে কাজ করতে গেলে যা হয় আর কী! শাকিব খানের ড্রেস ডিজাইনে আমি সাহায্য করি। আবার তিনিও কিন্তু আমার ড্রেস ডিজাইনে সহযোগিতা করেন। একসঙ্গে কাজ করলে এমনটি সবার বেলায় কমবেশি হয়ে থাকে।

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter