মেসির খেলা দেখে আমি মুগ্ধ : ফেরদৌস
jugantor
ফুটবল বিশ্বকাপ ২০২২
মেসির খেলা দেখে আমি মুগ্ধ : ফেরদৌস

  বিনোদন ডেস্ক  

২৫ নভেম্বর ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

‘ছোটবেলা কোন দলকে সাপোর্ট করতাম তা বলছি না। তবে আমার এখন প্রিয় দল আর্জেন্টিনা। সমস্যা হচ্ছে বিশ্বকাপ ফুটবল ঘিরে আমার পরিবারের সদস্যরা দুই ভাগে বিভক্ত। আমি আর্জেন্টিনার সমর্থক হলেও আমার স্ত্রী ব্রাজিলের ভক্ত। মজার বিষয় হচ্ছে, বিশ্বকাপে যে দল জিতবে আমার মা নাকি সে দলের সাপোর্টার! আমার দুই মেয়ে নুজহাত ও লামিয়া ফুটবল খেলোয়াড়। তাদের স্কুলের ফুটবল টিমে তারা খেলেও।

সেদিক থেকে আমাদের পরিবারে বিশ্বকাপ ফুটবল নিয়ে বাড়তি আমেজ চলছে। বিশ্বকাপ চলাকালীন আগামী এক-দেড় মাস যে দলের খেলা চলুক, আমার স্ত্রীর সঙ্গে মজাদার তর্কবিতর্ক চলবেই। তবে সেটা কখনোই সীমা ছাড়িয়ে যায় না। আর্জেন্টিনার লিওনেল মেসি অদ্ভুত এক খেলোয়াড়। তার খেলা আমাকে মুগ্ধ করে। আর্জেন্টিনার খেলা যেদিন হবে, সেদিন আগে আগে হাতের কাজ সেরে নিই। খেলার পরের দিনও তেমন কাজ রাখতে চাই না। দুটি বিষয়ের জন্য, এক প্রিয় দল বিজয়ী হলে তো আনন্দের শেষ নেই, আর যদি হেরে যায়, তবে মন খারাপ থাকে। দুটি বিষয় সমন্বয় করতে খেলার আগে ও পরের দিন কাজের চাপ কম রাখি।

এদিকে আমার স্ত্রীকে নিয়ে মজার একটি বিষয় আছে। সে ব্রাজিলের ভক্ত, অথচ ফাইনালে যে দল জিতবে, সে ওই দলে ঢুকে যায়! যাই হোক, প্রিয় দল আর্জেন্টিনা এক ম্যাচ হেরেছে, সামনে আরও ভালো করবে এটি প্রত্যাশা করি। আর জিততে হবে, না হলে কেমন হয়? বিশ্বকাপে চমক দেখানোর অন্যতম টিম তো আর্জেন্টিনা। চমক দেখাবে আগামী দুই ম্যাচে। আশা করছি, আর্জেন্টিনার জন্য স্মরণীয় বিশ্বকাপ হবে এটি। এবার ফুটবল বিশ্বকাপ মেসির হাতে উঠবে এটাই আশা করছি। তবে একই সঙ্গে এটাও বলতে চাই, খেলা নিয়ে কোনো অপ্রত্যাশিত ঘটনা যেন না হয়। খেলা নিছকই মজা হিসাবে নিতে হবে। এটিকে সিরিয়াস হিসাবে নিয়ে যেন কোনো মন্দ কিছু না করে বসি, সেজন্য দেশবাসীর কাছে আমার অনুরোধ রইল।

লেখক : চিত্রনায়ক

ফুটবল বিশ্বকাপ ২০২২

ফুটবল বিশ্বকাপ ২০২২

মেসির খেলা দেখে আমি মুগ্ধ : ফেরদৌস

 বিনোদন ডেস্ক 
২৫ নভেম্বর ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

‘ছোটবেলা কোন দলকে সাপোর্ট করতাম তা বলছি না। তবে আমার এখন প্রিয় দল আর্জেন্টিনা। সমস্যা হচ্ছে বিশ্বকাপ ফুটবল ঘিরে আমার পরিবারের সদস্যরা দুই ভাগে বিভক্ত। আমি আর্জেন্টিনার সমর্থক হলেও আমার স্ত্রী ব্রাজিলের ভক্ত। মজার বিষয় হচ্ছে, বিশ্বকাপে যে দল জিতবে আমার মা নাকি সে দলের সাপোর্টার! আমার দুই মেয়ে নুজহাত ও লামিয়া ফুটবল খেলোয়াড়। তাদের স্কুলের ফুটবল টিমে তারা খেলেও।

সেদিক থেকে আমাদের পরিবারে বিশ্বকাপ ফুটবল নিয়ে বাড়তি আমেজ চলছে। বিশ্বকাপ চলাকালীন আগামী এক-দেড় মাস যে দলের খেলা চলুক, আমার স্ত্রীর সঙ্গে মজাদার তর্কবিতর্ক চলবেই। তবে সেটা কখনোই সীমা ছাড়িয়ে যায় না। আর্জেন্টিনার লিওনেল মেসি অদ্ভুত এক খেলোয়াড়। তার খেলা আমাকে মুগ্ধ করে। আর্জেন্টিনার খেলা যেদিন হবে, সেদিন আগে আগে হাতের কাজ সেরে নিই। খেলার পরের দিনও তেমন কাজ রাখতে চাই না। দুটি বিষয়ের জন্য, এক প্রিয় দল বিজয়ী হলে তো আনন্দের শেষ নেই, আর যদি হেরে যায়, তবে মন খারাপ থাকে। দুটি বিষয় সমন্বয় করতে খেলার আগে ও পরের দিন কাজের চাপ কম রাখি।

এদিকে আমার স্ত্রীকে নিয়ে মজার একটি বিষয় আছে। সে ব্রাজিলের ভক্ত, অথচ ফাইনালে যে দল জিতবে, সে ওই দলে ঢুকে যায়! যাই হোক, প্রিয় দল আর্জেন্টিনা এক ম্যাচ হেরেছে, সামনে আরও ভালো করবে এটি প্রত্যাশা করি। আর জিততে হবে, না হলে কেমন হয়? বিশ্বকাপে চমক দেখানোর অন্যতম টিম তো আর্জেন্টিনা। চমক দেখাবে আগামী দুই ম্যাচে। আশা করছি, আর্জেন্টিনার জন্য স্মরণীয় বিশ্বকাপ হবে এটি। এবার ফুটবল বিশ্বকাপ মেসির হাতে উঠবে এটাই আশা করছি। তবে একই সঙ্গে এটাও বলতে চাই, খেলা নিয়ে কোনো অপ্রত্যাশিত ঘটনা যেন না হয়। খেলা নিছকই মজা হিসাবে নিতে হবে। এটিকে সিরিয়াস হিসাবে নিয়ে যেন কোনো মন্দ কিছু না করে বসি, সেজন্য দেশবাসীর কাছে আমার অনুরোধ রইল।

লেখক : চিত্রনায়ক

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ফুটবল বিশ্বকাপ ২০২২