আমরা পরিসংখ্যান নয়, ভালোবাসায় বিশ্বাসী : পুতুল
jugantor
ফুটবল বিশ্বকাপ ২০২২
আমরা পরিসংখ্যান নয়, ভালোবাসায় বিশ্বাসী : পুতুল

   

০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

‘আমি যখন থেকে ফুটবল খেলা বুঝি তখন থেকেই আর্জেন্টিনাকে ভালোবাসি। এ দলটি বিজয়ী হলে যেমন অনেক আনন্দ পাই, তেমনই খারাপ খেললে আমারও মন খারাপ হয়। তবে আমি আর্জেন্টিনার ঠুনকো ভক্ত নই। জিতলেও আর্জেন্টিনা আর হারলেও আর্জেন্টিনা। শেষ ম্যাচে আর্জেন্টিনা অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে যে খেলা দেখিয়েছে তাতে আমরা মুগ্ধ। বিশেষ করে খেলার ঠিক শেষের দিকে গোলকিপারের সেইভটা ছিল অবাক করা! সামনের ম্যাচগুলোতেও এ জয়ের ধারাবাহিকতাটা অব্যাহত থাকবে বলে আমার বিশ্বাস। কিন্তু এবারের বিশ্বকাপটা একটু অন্যরকম মনে হচ্ছে। ফেভারিটদের চেয়ে যারা নন ফেভারিট তারাই ভালো করছে বেশি। ফুটবল বিশ্বে একটা মাত্র দেশ আর্জেন্টিনা, যাদের অর্জনের গল্পটা খুব ছোট্ট হওয়া সত্ত্বেও তাদের ঘিরে বিশ্বব্যাপী আগ্রহ আর পাগলামির শেষ নেই সমর্থকদের। আমরা সেই দলের সমর্থক, যারা পরিসংখ্যান নয়, ভালোবাসায় বিশ্বাসী। আমরা সেই দলকে ভালোবাসি, যারা বারবার কান্না করার উপলক্ষ্য তৈরি করে দিলেও ভালোবাসার কাছে হার মেনে যায় ভক্তকুল। বিশ্বকাপ বিজয়ের সংখ্যা আর রেকর্ড নেই বলে যদি মন ছোট করতাম, সেই কবে অন্য দলকে ভালোবাসতে শুরু করতাম! আমরা আবেগী সমর্থক, আবারও স্বপ্ন দেখব, আবারও নিজের দলকে নিয়ে আবেগে ভেসে যাব। তবে একটি কথা সবাইকে মনে করিয়ে দিতে চাই, খেলার সঙ্গে হারজিৎ বিষয়টি জড়িত। তাই প্রিয় দল হেরে গেলে একেবারেই মন খারাপ চলবে না। অথবা নিজের প্রিয় দলকে বড় করতে গিয়ে অন্য দলকেও খাটো করা যাবে না। আমরা সবাই মিলেমিশে খেলা দেখব।

লেখক : সাজিয়া সুলতানা পুতুল কণ্ঠশিল্পী

ফুটবল বিশ্বকাপ ২০২২

আমরা পরিসংখ্যান নয়, ভালোবাসায় বিশ্বাসী : পুতুল

  
০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

‘আমি যখন থেকে ফুটবল খেলা বুঝি তখন থেকেই আর্জেন্টিনাকে ভালোবাসি। এ দলটি বিজয়ী হলে যেমন অনেক আনন্দ পাই, তেমনই খারাপ খেললে আমারও মন খারাপ হয়। তবে আমি আর্জেন্টিনার ঠুনকো ভক্ত নই। জিতলেও আর্জেন্টিনা আর হারলেও আর্জেন্টিনা। শেষ ম্যাচে আর্জেন্টিনা অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে যে খেলা দেখিয়েছে তাতে আমরা মুগ্ধ। বিশেষ করে খেলার ঠিক শেষের দিকে গোলকিপারের সেইভটা ছিল অবাক করা! সামনের ম্যাচগুলোতেও এ জয়ের ধারাবাহিকতাটা অব্যাহত থাকবে বলে আমার বিশ্বাস। কিন্তু এবারের বিশ্বকাপটা একটু অন্যরকম মনে হচ্ছে। ফেভারিটদের চেয়ে যারা নন ফেভারিট তারাই ভালো করছে বেশি। ফুটবল বিশ্বে একটা মাত্র দেশ আর্জেন্টিনা, যাদের অর্জনের গল্পটা খুব ছোট্ট হওয়া সত্ত্বেও তাদের ঘিরে বিশ্বব্যাপী আগ্রহ আর পাগলামির শেষ নেই সমর্থকদের। আমরা সেই দলের সমর্থক, যারা পরিসংখ্যান নয়, ভালোবাসায় বিশ্বাসী। আমরা সেই দলকে ভালোবাসি, যারা বারবার কান্না করার উপলক্ষ্য তৈরি করে দিলেও ভালোবাসার কাছে হার মেনে যায় ভক্তকুল। বিশ্বকাপ বিজয়ের সংখ্যা আর রেকর্ড নেই বলে যদি মন ছোট করতাম, সেই কবে অন্য দলকে ভালোবাসতে শুরু করতাম! আমরা আবেগী সমর্থক, আবারও স্বপ্ন দেখব, আবারও নিজের দলকে নিয়ে আবেগে ভেসে যাব। তবে একটি কথা সবাইকে মনে করিয়ে দিতে চাই, খেলার সঙ্গে হারজিৎ বিষয়টি জড়িত। তাই প্রিয় দল হেরে গেলে একেবারেই মন খারাপ চলবে না। অথবা নিজের প্রিয় দলকে বড় করতে গিয়ে অন্য দলকেও খাটো করা যাবে না। আমরা সবাই মিলেমিশে খেলা দেখব।

লেখক : সাজিয়া সুলতানা পুতুল কণ্ঠশিল্পী

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন