ভালো নেই সোহেল রানা
jugantor
ভালো নেই সোহেল রানা

  আনন্দনগর প্রতিবেদক  

০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বীর মুক্তিযোদ্ধা, কিংবদন্তি চলচ্চিত্র অভিনেতা, প্রযোজক, পরিচালক সোহেল রানা (মাসুদ পারভেজ) দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ আছেন। চোখের সমস্যার জন্য সম্প্রতি তিনি সিঙ্গাপুরে চিকিৎসা গ্রহণ করে দেশে ফিরেছেন। সেটা কিছুটা ঠিক হলেও তিনি এখন অন্য সমস্যায় ভুগছেন। রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তিনি। জানা গেছে, সিঙ্গাপুরে চোখের চিকিৎসা শেষে দেশে ফেরা সোহেল রানা গুরুতর ইউরিন ইনফেকশনে ভুগছেন। বর্তমানে হাসপাতালে রেখেই চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। সেখানে থাকা লাগতে পারে আরও কিছুদিন। এ প্রসঙ্গে সোহেল রানার ছেলে মাশরুর পারভেজ বলেন, ‘চোখের অপারেশনের জন্য গত মাসে আব্বুকে নিয়ে সিঙ্গাপুর গিয়েছিলাম। চিকিৎসা শেষে দেশে ফেরার পর তার ইউরিনে ইনফেকশন দেখা দেয়, যার ফলে তাকে হাসপতালে ভর্তি করানো হয়। খবর পেয়ে অনেকেই বাবাকে দেখতে আসছেন। ফোনে খবরও নিচ্ছেন অনেকে। আব্বু তার সহকর্মীদের দেখলে খুব খুশি হন। আমরা আব্বুর সুস্থতার জন্য সবার কাছে দোয়া চাই’।

উল্লেখ্য, গত ২৯ অক্টোবর বাংলাদেশের একটি হাসপাতালে সোহেল রানার চোখের অপারেশন করানো হয়। ওইদিন অপারেশন সফল না হওয়ার কারণে তাকে ৩০ অক্টোবর সিঙ্গাপুর নেওয়া হয়। এর আগে সোহেল রানা চলতি বছরের শুরুতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ১৫ দিন হাসপাতালে ছিলেন। তার অভিনীত সর্বশেষ মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমা ছিল ‘পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রেম কাহিনি’। এদিকে সোহেল রানা অভিনীত ‘দ্য গোয়িং হোম’ নামে একটি সিনেমা ৩০ ডিসেম্বর মুক্তি দেওয়ার কথা রয়েছে। এটি নির্মাণ করেন তার ছেলে মাশরুর পারভেজ।

ভালো নেই সোহেল রানা

 আনন্দনগর প্রতিবেদক 
০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বীর মুক্তিযোদ্ধা, কিংবদন্তি চলচ্চিত্র অভিনেতা, প্রযোজক, পরিচালক সোহেল রানা (মাসুদ পারভেজ) দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ আছেন। চোখের সমস্যার জন্য সম্প্রতি তিনি সিঙ্গাপুরে চিকিৎসা গ্রহণ করে দেশে ফিরেছেন। সেটা কিছুটা ঠিক হলেও তিনি এখন অন্য সমস্যায় ভুগছেন। রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তিনি। জানা গেছে, সিঙ্গাপুরে চোখের চিকিৎসা শেষে দেশে ফেরা সোহেল রানা গুরুতর ইউরিন ইনফেকশনে ভুগছেন। বর্তমানে হাসপাতালে রেখেই চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। সেখানে থাকা লাগতে পারে আরও কিছুদিন। এ প্রসঙ্গে সোহেল রানার ছেলে মাশরুর পারভেজ বলেন, ‘চোখের অপারেশনের জন্য গত মাসে আব্বুকে নিয়ে সিঙ্গাপুর গিয়েছিলাম। চিকিৎসা শেষে দেশে ফেরার পর তার ইউরিনে ইনফেকশন দেখা দেয়, যার ফলে তাকে হাসপতালে ভর্তি করানো হয়। খবর পেয়ে অনেকেই বাবাকে দেখতে আসছেন। ফোনে খবরও নিচ্ছেন অনেকে। আব্বু তার সহকর্মীদের দেখলে খুব খুশি হন। আমরা আব্বুর সুস্থতার জন্য সবার কাছে দোয়া চাই’।

উল্লেখ্য, গত ২৯ অক্টোবর বাংলাদেশের একটি হাসপাতালে সোহেল রানার চোখের অপারেশন করানো হয়। ওইদিন অপারেশন সফল না হওয়ার কারণে তাকে ৩০ অক্টোবর সিঙ্গাপুর নেওয়া হয়। এর আগে সোহেল রানা চলতি বছরের শুরুতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ১৫ দিন হাসপাতালে ছিলেন। তার অভিনীত সর্বশেষ মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমা ছিল ‘পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রেম কাহিনি’। এদিকে সোহেল রানা অভিনীত ‘দ্য গোয়িং হোম’ নামে একটি সিনেমা ৩০ ডিসেম্বর মুক্তি দেওয়ার কথা রয়েছে। এটি নির্মাণ করেন তার ছেলে মাশরুর পারভেজ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন