চাঁদপুর পৌর ঈদগাহ মাঠ বেদখল হয়ে যাচ্ছে

  চাঁদপুর প্রতিনিধি ১৩ নভেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

চাঁদপুর শহরের প্রধান পৌর ঈদগাহ মাঠটি এখন নানা শ্রেণীর মানুষের বেদখলে চলে গেছে। বিশাল মাঠটি এখন বিভিন্ন গাড়ি পার্কিং, কাঁচামাল রাখা ও বাঁশের বেড়া তৈরিকারীদের কাজে ব্যবহার হচ্ছে। ঐতিহাসিক এ মাঠটিতে প্রতি বছর পবিত্র ঈদুল ফিতর ও ঈদুল আজহার নামাজ ছাড়াও বিভিন্ন সময় সভা-সমাবেশ হয়ে থাকে। চাঁদপুরের প্রধান ঈদগাহ হিসেবে পৌরসভার বিশাল এ ঈদগাহ মাঠেই প্রতিবছর পবিত্র ঈদের নামাজ আদায় করেন মুসলমানরা। অথচ কিছু সুবিধাভোগীর দখলে এ ঐতিহ্যবাহী ঈদগাহটি যেন অরক্ষিত হয়ে পড়েছে। তা দেখার যেন কেউ নেই। চাঁদপুর শহরের কবি নজরুল সড়কের (সাবেক স্ট্যাড রোড) পুরান বাজার, নতুন বাজার ব্রিজের কাছে অবস্থিত পৌর ঈদগাহ মাঠটিতে গিয়ে দেখা যায়, মাঠের চতুর্দিকে মাঠজুড়ে পিকআপ ভ্যান, ঠেলাভ্যান, রিকশাসহ বিভিন্ন ছোট বড় যানবাহন পার্কিং করে রাখা হয়েছে। মাঠের দক্ষিণ পাশে বাঁশের বেড়া ব্যবসায়ীরা বাঁশ এবং বেড়া তৈরি করে মাঠে ফেলে রেখেছেন। এছাড়া বিভিন্ন কাঁচামাল সেখানে ফেলে রাখায় এবং বহিরাগতদের মলমূত্রে সেখানে দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে। যার কারণে ঈদগাহ মাঠটি হারাচ্ছে তার ঐতিহ্য। দেখা গেছে, স্থানীয় ব্যবসায়ী ও বিভিন্ন বাসাবাড়ির ময়লা-আবর্জনা ফেলার জন্য কয়েক বছর আগে চাঁদপুর পৌরসভা কর্তৃপক্ষ ঈদগাহের এক কোণে নির্দিষ্ট একটি ডাস্টবিন নির্মাণ করে। অথচ প্রতিনিয়ত দেখা যায় কিছু কাঁচামাল আড়ৎদার নির্দিষ্ট ওই ডাস্টবিনে তাদের পচা কাঁচামাল না ফেলে ডাস্টবিনের পাশে সড়কের ওপর অথবা ঈদগাহ মাঠে ফেলছেন। তাদের এসব ময়লা-আবর্জনা মাঠে এবং সড়কে ফেলে রাখার কারণে সেগুলো দুর্গন্ধ ছড়িয়ে পরিবেশ নষ্ট করছে। প্রায়ই দেখা যায়, ওই সড়ক দিয়ে যাতায়াতকারী পথচারীরা দুর্গন্ধের কারণে নাকে হাত দিয়ে দ্রুত হেঁটে যাতায়াত করছেন। এছাড়া প্রতিদিন সকালে হাঁটতে বের হওয়া মানুষজন ওইসব পচে যাওয়া কাঁচামালের স্তূপে পিছলে পড়ে আহত হচ্ছেন। আবার অনেকে মাঠ দিয়ে চলাচল করতে গিয়ে বাঁশের বেড়ায় পা কেটে ফেলছেন। এ ব্যাপারে পৌর মেয়র নাছির উদ্দিন আহমেদ বলেন, আগামী কয়েকদিনের মধ্যে এসব উচ্ছেদে অভিযান চালাবেন এবং স্থায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×