একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন

পাহাড়ে আঞ্চলিক সংগঠনের দাপট

  খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি ২০ নভেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

নির্বাচন

দোরগোড়ায় একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। একাদশ সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ৪ লাখ ৪১ হাজার ৭৪৪ জন ভোটারের খাগড়াছড়ি ২৯৮নং আসনে বইছে ভোটের হাওয়া। এর মধ্যে প্রায় ৬০ হাজার নতুন বা তরুণ ভোটার। অন্যান্য জেলার তুলনায় পাহাড়ের ভিন্ন বাস্তবতার কারণে এখানকার রাজনৈতিক সমীকরণ অত্যন্ত জটিল।

সমতলে লড়াইটা জাতীয় পর্যায়ের দলগুলোয় সীমাবদ্ধ থাকলেও পার্বত্য এলাকায় তা নয়। পাহাড়ের ভিন্ন বাস্তবতার কারণে আঞ্চলিক সংগঠনগুলোর শক্ত অবস্থান রয়েছে। এছাড়া স্থানীয় ইউপি ও উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ফলাফল বিশ্লেষণ করলে দেখা যায় নির্বাচন রাজনৈতিক প্রভাবমুক্ত হওয়ায় আঞ্চলিক দলগুলোর জয়জয়কার।

খাগড়াছড়ির ৯ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান এবং বিভিন্ন ইউপি নির্বাচনে আঞ্চলিক দলের সমর্থনে স্বতন্ত্র প্রার্থীরা নির্বাচিত হয়েছেন। খাগড়াছড়ির সংসদীয় আসনের নির্বাচনে অন্যতম প্রভাবশালী প্রতিদ্বন্দ্বী প্রসীত খীসার নেতৃত্বাধীন ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউডিপিএফ)। পাবর্ত্য জেলা খাগড়াছড়িতে দলটির রয়েছে সর্বোচ্চ প্রভাব।

বিগত নির্বাচনগুলোতে ইউপিডিএফ জয়ী হতে না পারলেও বিপুল ভোট পেয়ে জয়ের কাছাকাছি ছিল। এছাড়া রয়েছে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির- জেএসএস (এমএন লারমা)। তবে জেএসএস (এমএন লারমা) দলটির পক্ষে একাদশ সংসদ নির্বাচনে এখন পর্যন্ত কোনো প্রার্থী মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেননি। ১৯৯৮ সালে শান্তি চুক্তির বিরোধিতা করে জন্ম নেয় ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ)। দলটির নেতৃত্ব দেন পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের (পিসিপি) সাবেক সভাপতি প্রসীত বিকাশ খীসা। নানা ঘাত-প্রতিঘাতে গত দুই দশকে পার্বত্য এলাকা বিশেষত খাগড়াছড়িতে শক্ত অবস্থান তৈরি করেছে দলটি। পাহাড়ি ভোটারের সংখ্যা বেশি হওয়ায় ইউপিডিএফ নির্বাচনে বড় প্রতিদ্বন্দ্বী।

দূরবর্তী ও দুর্গম এলাকায় বিপুল ভোটার থাকলেও সেখানে জাতীয় দলগুলোর তেমন প্রভাব নেই। ফলে ভোটার ব্যবধান গড়ে দেবে দুর্গম পাহাড়ি অধ্যুষিত কেন্দ্রগুলো। নির্বাচনে ইউপিডিএফ যে বড় প্রতিদ্বন্দ্বিতা গড়ে তুলবে সে বিষয়ে কোনো দ্বিধা নেই। বিগত নবম ও দশম সংসদ নির্বাচনে দলটির প্রার্থী উজ্জ্বল স্মৃতি চাকমা ও প্রসীত বিকাশ খীসা ৬০ হাজারের অধিক ভোট পান। তবে সুষ্ঠু নির্বাচন হলে এ দলের প্রার্থীকে জয়ের সম্ভাব্য তালিকায় রাখতে হবে। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ইতিমধ্যে মনোনয়ন ফরম তুলেছেন তিনজন। এদের মধ্যে রয়েছেন ইফপিডিএফ নেতা সচিব চাকমা, নতুন কুমার চাকমা ও অংগ্যা মারমা। যাচাই-বাছাই করে একজনকে মনোনয়ন দেবে দলটি।

বিগত নির্বাচনে ভোটপ্রাপ্তির হিসাব বলছে, খাগড়াছড়ি সংসদীয় আসনে ইউপিডিএফ শক্ত প্রতিপক্ষ। দশম নির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী বর্তমান সংসদ সদস্য কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা ৯৯ হাজার ৫৮ ভোট পেয়েছেন, অন্যদিকে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ইউপিডিএফের সভাপতি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রসীত বিকাশ খীসা পেয়েছিলেন ৬৭ হাজার ৭০০ ভোট। আঞ্চলিক দল ইউপিডিএফের বিপুল ভোটপ্রাপ্তি দলটির শক্ত অবস্থান জানান দেয়।

এদিকে ১১ নভেম্বর আঞ্চলিক রাজনৈতিক দল ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্টের (ইউপিডিএফ) সভাপতি প্রসীত বিকাশ খীসা সংবাদমাধ্যমে প্রেরিত এক বিবৃতিতে জানান, ‘ভোটের ফলাফল প্রভাবিত করতে কেউ যাতে অন্যায় হস্তক্ষেপ ও কর্তৃত্ব খাটাতে সক্ষম না হয়, সেজন্য পার্বত্য চট্টগ্রামে দেশি-বিদেশি পর্যবেক্ষকদের ভোট কেন্দ্র পরিদর্শনের সুযোগ প্রদানসহ নির্বাচন কমিশনকে কঠোর বিধি-নিষেধ আরোপ করতে হবে।’ অন্যদিকে আরেক আঞ্চলিক সংগঠন জেএসএসের (এমএন লারমা) কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-তথ্য ও প্রচার সম্পাদক প্রশান্ত চাকমা জানান, ‘নির্বাচনের বিষয়ে এখনও দলীয় কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। কয়েকদিনের মধ্যে এ বিষয়ে জানতে পারবেন।’ এছাড়া নতুন হলেও নির্বাচনে প্রভাব বিস্তার করতে পারে গণতান্ত্রিক ইউপিডিএফ নামের দলটি।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×