দশমিনা বীজ বর্ধন খামার

ঘাস বিক্রির টাকা ডিডির পকেটে

  দশমিনা প্রতিনিধি ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

পটুয়াখালীর দশমিনা উপজেলায় দেশের সর্ববৃহৎ বীজ বর্ধন খামারের ডিডি কিশোর কুমারের বিরুদ্ধে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। জানা যায়, আধুনিক (যান্ত্রিক) উপায়ে কৃষি জমি চাষাবাদ না করে বায়ু গ্যাস প্লাল্টের জন্য আনা গরু ও মহিষ দিয়ে প্রতিনিয়ত হাল চাষ করা ও বীজ বর্ধন খামারের ঘাস বাইরে বিক্রি করে মোটা অঙ্কের অর্থ আত্মসাৎ করার অভিযোগ উঠেছে। সংশ্লিষ্ট ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বীজ বর্ধন খামারের ডিডি কিশোর কুমার যোগদানের পর থেকে একের পর এক অনিয়ম-দুর্নীতি করে বেপরোয়া হয়ে উঠেছেন। নাম প্রকাশ না করা শর্তে ওই খামারের একাধিক সূত্র জানায়, ডিডি কিশোর কুমার খামারের ঘাস স্থানীয় ইউনুছ মাস্টার, ফজলু ঘরামী, কালাম হাং ও সালাম ঘরামীর কাছে চলতি বছরে দুই লাখ টাকায় বিক্রি করে অর্থ আত্মসাৎ করেছেন। অপরদিকে ঘাস সংকটে প্রায় ৮০ হাজার টাকার একটি মহিষের মঙ্গলবার সকালে মারা গেছে। ২০১৩ সালে পটুয়াখালীর দশমিনা উপজেলার চরবাঁশবাড়িয়া, চরহায়দর এবং চরভুথামে ১ হাজার ৪৪ দশমিক ৩৬ একর জমি অধিগ্রহণ করে দেশের সর্ববৃহৎ বীজ বর্ধন খামারের কার্যক্রম শুরু হয়। ওই বছরের ১৯ মার্চ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বীজ বর্ধন খামারের উদ্বোধন করেন। এ ব্যাপারে বিআরডিসির আওতাধীন বীজ বর্ধন খামারের ডিডি কিশোর কুমার মুঠোফোনে ঘাস বিক্রি ও মহিষ মৃত্যু হওয়ার কথা স্বীকার করে উল্টো এ প্রতিনিধিকে প্রশ্ন করেন আপনি কি বীজ বর্ধন খামারের ভালো চান? আপনি যা ইচ্ছা তাই লেখেন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×