কুলাউড়া নবীন চন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয়

শিক্ষার্থীদের প্রাইভেট পড়তে বাধ্য করছেন শিক্ষকরা

  কুলাউড়া প্রতিনিধি ২০ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

সকল ছাত্র স্কুলের স্যার ব্যতীত অন্য স্কুলের স্যারের কাছে প্রাইভেট পড়লে তাদের ফাইনাল পরীক্ষায় ব্যবহারিক পূর্ণমান দেয়া হবে না। কুলাউড়া নবীন চন্দ্র সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা ক্লাসে প্রকাশ্যে এমন হুমকি দেন শিক্ষার্থীদের। বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে তোলপাড় শুরু হয়। হুমকিদাতা সেসব শিক্ষকদের শাস্তির দাবিতে সোচ্চার সর্বস্তরের মানুষ।

ফেসবুকের ‘কুলাউড়া সমস্যা ও সম্ভাবনা’ পেজে বিষয়টি প্রথম উত্থাপন করেন এবি সিদ্দিক। তিনি বিষয়টি তুলে ধরে বলেন, এই নীতির কারণে ২০১৬ সালে এসএসসি পরীক্ষায় আমার ছোট ভাই জিপিএ ৫ থেকে বঞ্চিত হয়। এনসি স্কুলের সেলিম আহমদ ও জাফর সাদিক নামে দু’জন শিক্ষক এ ধরনের কথা বলে থাকেন বলে বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের কাছ থেকে জেনেছেন। বিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থী হাবিবা আক্কার ইমা বলেন, শুধু বিজ্ঞান বিভাগের স্যারেরা বিষয়টি বেশি করে থাকেন। বিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থী এবং অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তা মো. তাহিদুল ইসলাম বলেন, এমন সমস্যা প্রতিটা স্কুলেই শোনা যাচ্ছে বা হচ্ছে। আরও কিছু সমস্যা যেমন অতিরিক্ত ভর্তি ফিস কিংবা গাইড বই কেনার বিষয়ে স্কুল থেকে নিুমানের কিছু গাইড বইয়ের নাম তুলে দেয়া হয় শিশুদের হাতে। আর বলা হয় এই গাইড ছাড়া ভালো রেজাল্ট করতে পারবে না। স্কুল ড্রেস বানানোর জন্য অমুক টেইলারের কাছে যাবে। তাই আমাদের উচিত সবাই মিলে একটা ব্যবস্থা নেয়া। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শতাধিক মন্তব্যকারী ঘটনার নিন্দা জানিয়ে, জড়িত শিক্ষকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়েছেন। নবীন চন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয়ের অভিযুক্ত দু’শিক্ষকের একজন সেলিম আহমদ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিজের অভিযোগ প্রসঙ্গে বলেন, বলার কারণ না খোঁজ করে নিউজ করে দিলেন। যেহেতু আমাকে চিনেন, আমাকে বিষয়টা বলতে পারতেন।

নবীন চন্দ্র সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আমির হোসেন জানান, আমি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিষয়টি দেখেছি। বিষয়টি নিয়ে শনিবার তিনি স্টাফ মিটিং ডেকেছেন। তাছাড়া তিনি নিজেই বিষয়টি তদন্ত করছেন। তদন্তক্রমে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান তিনি।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×