মাদক চোরাচালানে একাধিক বিয়ে

সাতক্ষীরায় আটক রাজ্জাকের দ্বিতীয় স্ত্রীর অভিযোগ

  সাতক্ষীরা প্রতিনিধি ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

মাদক ব্যবসার জন্য একের পর এক বিয়ে করেছে আবদুর রাজ্জাক টাওয়ার। মাদক চোরাচালানে কিছুদিন ব্যবহারের পর আবার তাদের পরিত্যাগ করেছে সে। রাজ্জাকের বিয়ের প্রতারণায় পড়ে কমপক্ষে ১০ জন নারী এখন পথে পথে ঘুরছেন। ফেনসিডিল পাচারের বহু মামলার আসামি আবদুর রাজ্জাক ওরফে টাওয়ার যশোরের কেশবপুর উপজেলার বাওশালা গ্রামের তাইজুল মাহমুদের ছেলে। মামলায় আটক হয়ে এখন সে কারাগারে। ৪ ফেব্রুয়ারি সাতক্ষীরা সদর থানা পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। ফেনসিডিলসহ আটক মামলায় গ্রেফতারের সময় রাজ্জাক ভুল ঠিকানা দেয়। একইভাবে বহু বিবাহকালেও সে ভুল ঠিকানা দিয়ে প্রতারণা করে আসছে। ফলে এসব মামলা তদন্ত করতে পুলিশও পড়ে বিপাকে।

তার দ্বিতীয় স্ত্রী সাথী বেগম সাতক্ষীরা প্রেস ক্লাবে এসে জানান, আবদুর রাজ্জাক প্রথম বিয়ে করেছিল ডুমুরিয়া উপজেলার কাঞ্চনপুর গ্রামের জোসনা বেগমকে। এখন তার তিন সন্তান। জোসনাকে বিয়ে করার চার বছর পর আবদুর রাজ্জাক ফুসলিয়ে দ্বিতীয় বিয়ে করে তালা উপজেলার মিঠাবাড়ি গ্রামের সাথী বেগমকে। সাথী বেগম অভিযোগ করে বলেন, বিয়ের কিছুদিন পর থেকে তার স্বামী তার ওপর নির্যাতন চালায়। তাকে মারধর করে। ফেনসিডিলসহ অন্যান্য মাদক পাচারের জন্য চাপ দেয়। এ নিয়ে বিরোধ সৃষ্টি হওয়ায় সাথী তার বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেছেন সাতক্ষীরা আদালতে। তিনি জানান, রাজ্জাক তাকে জবাই করে হত্যার চেষ্টাও করেছিল।

সাথী জানান, তার সঙ্গে সম্পর্কের অবনতি হওয়ার সুযোগে বিভিন্ন সময়ে রাজ্জাক ১৩ জন নারীকে বিয়ে করেছে। এ ছাড়াও বিভিন্ন প্রলোভনে আবদুর রাজ্জাক অনেক নারীকে বাড়িতে নিয়ে আসত। সাথী এতে বাধা দিলে তার ওপর নেমে আসত নির্যাতন। কয়েকজন স্ত্রী মামলা করার সাহস না পেয়ে বাপের বাড়ি ফিরে গেছেন বলে জানান তিনি। পুলিশ জানিয়েছে, বিভিন্ন থানায় আবদুর রাজ্জাক টাওয়ারের বিরুদ্ধে ফেনসিডিল পাচারের মামলা রয়েছে ২০টি। এর মধ্যে রয়েছে কেশবপুর থানায় ২০১২ সালে ২টি ও ২০১৩ সালে একটিসহ তিনটি ফেনসিডিল মামলা, ২০০৯ সালে রাজবাড়ি জেলার দৌলতদিয়া থানায় একটি, ২০১৪ সালে তালা থানায় দুটি মামলা, ২০১৭ সালে পাটকেলঘাটা থানায় দুটি মামলা এবং একই সালে সাতক্ষীরা সদর থানায় আরও একটি ফেনসিডিল মামলা।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

E-mail: [email protected], [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter