মির্জাপুরে প্রশ্নপত্র ফাঁসের দায়ে কলেজছাত্রের জেল

ময়মনসিংহ ও রাউজানে আটক ১০

  ময়মনসিংহ ব্যুরো, সিলেট ব্যুরো, মির্জাপুর ও রাউজান প্রতিনিধি ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ময়মনসিংহে প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগে পরীক্ষার্থীসহ ৮ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে তিনজন পরীক্ষার্থী ও পাঁচজন অভিভাবক রয়েছেন। এরা ময়মনসিংহ সদর উপজেলার দাপুনিয়া কাওয়ালটি ইসলামিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের পরীক্ষার্থী খাইরুল ইসলাম, জাকারিয়া ও ফজলে রাব্বি। রোববার দুপুরে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে জেলা ডিবি পুলিশের ওসি আশিকুর রহমান জানান, শনিবার গণিত পরীক্ষার সময় ময়মনসিংহ জিলা স্কুলের গেটের সামনে ইসরাত জাহান নামে এক অভিভাবকের মোবাইলের ফেসবুক মেসেনজারে প্রশ্ন পান পরীক্ষায় দায়িত্বরত কর্মকর্তারা। পরে তার দেয়া তথ্য অনুযায়ী দাপুনিয়া এলাকা থেকে তিন পরীক্ষার্থীসহ ছয়জন ও সদরের বিদ্যাগঞ্জ এলাকা থেকে একজনকে আটক করে পুলিশ।

শনিবার গণিত পরীক্ষা শুরুর পূর্বে শহরের জিলা স্কুলের গেটে ইসরাত জাহান নামে একটি অভিভাবককে ঘিরে কিছুসংখ্যক পরীক্ষার্থী ও অভিভাবকের জটলা দেখতে পায় পুলিশ। এ সময় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য ও বিজ্ঞ ম্যাজিস্ট্রেট ওই মহিলাকে স্কুলের ভেতর নিয়ে যান এবং তার মোবাইলের মেসেনজারে চলমান গণিত পরীক্ষার প্রশ্নের হুবহু মিল পেয়ে তাকে আটক করেন। জিজ্ঞাসাবাদে আটককৃত ইসরাত জাহান প্রশ্নপত্র ফাঁসের কথা স্বীকার করে এবং তার দেয়া তথ্য অনুযায়ী সদর উপজেলার দাপুনিয়া কাওয়ালটি ইসলামিয়া উচ্চ বিদ্যালয় থেকে খাইরুল ইসলাম (১৬), জাকারিয়া (১৬) ও ফজলে রাব্বি (১৬) নামে তিন পরীক্ষার্থী এবং আরিফুল ইসলাম, রাকিব মিয়া ও রফিকুল ইসলাম নামে তিন অভিভাবককে আটক করে। পরে রাতে সদর উপজেলার সুতিয়াখালী বড় বিলার পাড় রাজবালা বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের সৌরভ বর্মণ নামে আরও এক অভিভাবককে আটক করে। এদের কাছেও মোবাইলের মেসেনজারে চলমান পরীক্ষার হুবহু প্রশ্নের মিল পাওয়া যায়।

এদিকে সিলেটে প্রশ্নফাঁসের অভিযোগে গ্রেফতার হওয়া কলেজ শিক্ষার্থী দেলোয়ার হোসেন ও তার এক সহযোগীকে আসামি করে মামলা ও তাকে ৫ দিনের রিমান্ডে নেয়ার আবেদন জানিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, গ্রেফতারকৃত দেলোয়ার হোসেনের মূল বাড়ি কিশোরগঞ্জ জেলার অষ্টগ্রামে। তবে পড়াশোনা করে সিলেটের মদনমোহন কলেজে। মোবাইলে যোগাযোগ মাধ্যম ইমোর মাধ্যমে প্রশ্নপত্রটি সংগ্রহ করেন দেলোয়ার। গত শনিবার সকালে নগরীর হাউজিং এস্টেট এলাকার আম্বরখানা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের সামনে থেকে দেলোয়ারকে গ্রেফতার করা হয়। তিনি কিশোরগঞ্জ জেলার কালিমপুর উপজেলার হুমায়ুন কবিরের ছেলে।

এছাড়া টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে এসএসসি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসের অপরাধে বাবুল হোসেন নামে কলেজ পড়ুয়া এক ছাত্রকে দুই বছরের কারাদণ্ড ও এক হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। বাবুল হোসেন করটিয়া সা’দত কলেজের এমবিএর ছাত্র ও উপজেলার বাঁশতৈল ইউনিয়নের গাইরাবেতিল সোনালীয়া গ্রামের শুকুর মাহমুদের ছেলে।

রাউজানে এসএসসি প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগে দুই যুবককে আটক করেছে র‌্যাব-৭। রোববার ডাবুয়ার বাইন্যাহাট থেকে তাদের আটক করা হয়। আটকরা হল- বাইন্যাহাটের রোশন গোমস্তার বাড়ির শাহ আলমের ছেলে মনির হোসেন ও একই বাড়ির মৃত নুরুচ্ছাফার ছেলে মো.সবুজ।

pran
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
bestelectronics

 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter