নিয়ামতপুরে ডায়রিয়ার প্রকোপ

চাটমোহরে হাসপাতালে বাড়ছে রোগীর সংখ্যা

  নিয়ামতপুর ও চাটমোহর প্রতিনিধি ১২ মে ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ডায়রিয়া

তীব্র দাবদাহে নওগাঁর নিয়ামতপুর উপজেলায় ডায়রিয়া রোগের প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। গত সপ্তাহ থেকে শুরু করে প্রতিদিন গড়ে ২৫ থেকে ৩০ জন রোগী ভর্তি হচ্ছেন হাসপাতালে। দিন দিন এ রোগে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে বলে জানান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসকরা। নিয়ামতপুর স্বাস্থ্যকেন্দ্র সূত্রে জানা গেছে, ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে প্রায় ২৫-৩০ জন করে রোগী প্রতিদিন ভর্তি হচ্ছেন হাসপাতালে।

এদের মধ্যে শিশু ও বয়োবৃদ্ধের সংখ্যাই বেশি। এপ্রিল মাসের শেষের দিক থেকেই ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে রোগী আসা শুরু করে। তবে কয়েকদিন থেকে রোগী আসছে বেশি। এছাড়াও তীব্র্র গরমে বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়ে আউটডোরেও রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে। এমতাবস্থায় চিকিৎসা দিতে হিমশিম খেতে হচ্ছে চিকিৎসকদের। স্বাস্থ্য কমপেক্সে কর্মকর্তা ডা. বিপ্লব কুমার ভৌমিক জানান, প্রচণ্ড গরমে ডায়রিয়ায় আক্রান্তদের চাপ বেড়েছে হাসপাতালে। ভর্তিও রয়েছে অনেকে। ডাক্তাররা তাদের পক্ষ থেকে সর্বোচ্চ সেবা দিচ্ছেন।

এদিকে পাবনার চাটমোহরে তীব্র দাবদাহে জনজীবন অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে। তীব্র রোদ ও ভ্যাপসা গরমে অ্যাজমা, পেটের পীড়া, বমি, হিটস্ট্রোক, সর্দি-কাশি ও জ্বরে আক্রান্ত শিশু ও বয়োবৃদ্ধরা হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছেন। বিপাকে পড়েছেন শ্রমজীবী মানুষ। অতিরিক্ত গরমে দুপুরের আগেই ফাঁকা হয়ে যাচ্ছে রাস্তাঘাট। ঘরে-বাইরে কোথাও স্বস্তি নেই। শিশু ছাড়াও গরমে সবচেয়ে বেশি কাবু হয়ে পড়ছেন বয়স্করা। খুব বেশি প্রয়োজন ছাড়া বাড়ি থেকে কেউ বের হচ্ছেন না। ধান কাটতে গিয়ে কৃষি শ্রমিকরা অসুস্থ হয়ে পড়ছেন। বেশি পারিশ্রমিক দিয়েও মিলছে না কৃষি শ্রমিক। এদিকে তীব্র রোদ ও ভ্যাপসা গরমের সুযোগ নিয়ে তরমুজ, ডাবসহ নানা ফলের দাম বাড়িয়ে দিয়েছেন মৌসুমি ব্যবসায়ীরা। জানা গেছে, গত এক সপ্তাহে প্রায় শতাধিক রোগী হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা নিয়েছেন। এর মধ্যে ভর্তি হয়েছেন প্রায় অর্ধশতাধিক। যাদের মধ্যে শিশু ও বয়স্ক রোগী বেশি। তবে হাসপাতালে গত দু’দিনে ডায়রিয়া ও শ্বাসকষ্টে আক্রান্ত রোগী ভর্তি হয়েছে সবচেয়ে বেশি।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×