চোরাই মোটরসাইকেল নিয়ে পুলিশ-বিজিবি মুখোমুখি

দামুড়হুদায় এসআইসহ দু’জন ক্লোজড : তদন্ত কমিটি

  চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি ২৩ মে ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

দামুড়হুদার কার্পাসডাঙ্গায় পুলিশের কাছ থেকে ভারতীয় চোরাই মোটরসাইকেল উদ্ধার করেছে বিজিবি। কার্পাসডাঙ্গা বাজারের একটি গ্যারেজ থেকে মোটরসাইকেলটি জব্দ করে স্থানীয় ফুলবাড়ী সীমান্ত বিজিবি। মোটরসাইকেলটির দাবিদার কার্পাসডাঙ্গা পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এসআই অচিন্ত কুমার পাল ও তার ক্যাম্পের কনস্টেবল লিটন এ সময় বিজিবির ওপর চড়াও হয়। এ ঘটনায় অভিযুক্ত কার্পাসডাঙ্গা ফাঁড়ি পুলিশের ইনচার্জ এসআই অচিন্ত কুমার পাল ও কনস্টেবল লিটনকে পুলিশ লাইনে প্রত্যাহার করা হয়েছে। একই সঙ্গে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে জেলা পুলিশ। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন দামুড়হুদা মডেল থানার ওসি সুকুমার বিশ্বাস। মোটরসাইকেলসহ গ্যারেজ মিস্ত্রি আল আমিনকে আটক করলেও রাাতেই ছেড়ে দেয় বিজিবি। মঙ্গলবার চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা সীমান্তবর্তী কার্পাসডাঙ্গা বাজারে এ ঘটনা ঘটে। জানা গেছে, কার্পাসডাঙ্গা ক্যাম্প পুলিশের ইনচার্জ এসআই অচিন্ত কুমার পাল ২৫০ সিসির কালো রঙের এফজেড ইয়ামাহা ও কনস্টেবল লিটন লাল রঙের আরপিআর মোটরসাইকেল চলে বেড়াচ্ছিলেন কয়েকদিন ধরে। মোটরসাইকেল দুটি ভারত থেকে চোরাইপথে আনা। মঙ্গলবার কার্পাসডাঙ্গা বাজারের আল আমিনের মোটর গ্যারেজে রাখা ছিল মোটরসাইকেল দুটি। এ সময় স্থানীয় ফুলবাড়ী সীমান্ত বিজিবি ক্যাম্পের নায়েক কবির হোসেন গ্যারেজে অভিযান চালান। ভারতীয় মোটরসাইকেল জব্দকালে তাতে পুলিশ স্টিকার লাগানো ছিল। বিজিবির উপস্থিতির পরপরই এসআই অচিন্ত কুমার পাল সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে হাজির হন ওই গ্যারেজে। অচিন্ত কুমার পাল একটি মোটরসাইকেল নিজের বলে দাবি করলে শুরু হয় পুলিশ-বিজিবির মধ্যে কথা কাটাকাটি। বিজিবির চ্যালেঞ্জের মুখে নিজেকে গুটিয়ে নিতে শুরু করেন অচিন্ত কুমার পাল। এক প্রকার তড়িঘড়ি করেই মোটরসাইকেলে লাগানো পুলিশ স্টিকার ও নম্বরপ্লেটটি খুলে ফেলেন তিনি। একপর্যায়ে পুলিশ পিছু হটলে বিজিবি মোটরসাইকেলটি উদ্ধার করে। সেই সঙ্গে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ক্যাম্পে নেয়া হয় গ্যারেজ মালিক আল আমিনকে। অভিযুক্ত অচিন্ত কুমার পালের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান, খবর পেয়েই মোটরসাইকেল উদ্ধারের জন্য গিয়েছিলাম।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×