কাউখালীতে খাদ্যগুদাম ঝুঁকিপূর্ণ মজুদ নিয়ে শঙ্কা

  কাউখালী (পিরোজপুর) প্রতিনিধি ০২ জুন ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

কাউখালী উপজেলার চারটি খাদ্যগুদামের তিনটিই পরিত্যক্ত অবস্থায় রয়েছে। বাকি একটি গুদামের ফ্লোর স্যাঁতসেঁতে হওয়ায় নষ্ট হচ্ছে মজুদকৃত খাদ্য। জানা গেছে, আশির দশকের দিকে উপজেলার কুমিয়ান গ্রামে সন্ধ্যা নদীর পাড় ঘেঁষে তিনটি এবং উপজেলা সদরে একটি খাদ্যগুদাম নির্মাণ করা হয়। এর মধ্যে উপজেলার সামনের গুদামটি অনেক আগেই পরিত্যক্ত অবস্থায় রয়েছে। আর নদীর পাড়ের গুদাম তিনটির দুটিও কয়েক বছর ধরে পরিত্যক্ত অবস্থায় রয়েছে। উপজেলার খাদ্য চাহিদা অনুসারে এবং আপৎকালীন খাদ্য মজুদ হিসেবে দেড় হাজার টনের খাদ্য মজুদ রাখার লক্ষ্য নিয়ে ভবনগুলো নির্মাণ করা হলেও বর্তমানে তিনটি ভবন ব্যবহারের অনুপযোগী। ফলে খাদ্য মজুদ ঝুঁকিতে রয়েছে কাউখালী উপজেলা। উপজেলায় কাবিখা, টিআর, ভিজিটি, ভিজিএফ, মৎস্য কার্ড, ফেয়ার প্রাইজ কার্ড, ওএমএস, সরকারি রেশনসহ আপৎকালীন মজুদ নিয়ে শঙ্কায় রয়েছে কর্তৃপক্ষ। এ ব্যাপারে উপজেলা খাদ্যগুদাম কর্মকর্তা দিপক কুমার মিস্ত্রি জানান, ২০০৭ সালে ভবনগুলো সংস্কার করা হলেও বর্তমানে দুটি ভবন ব্যবহারের অনুপযোগী এবং দুটি ভবনে খাদ্য রাখা যায় তাও ঝুঁকির মধ্যে থাকে। বারবার সংস্কারের জন্য কর্তৃপক্ষের কাছে চিঠি পাঠানো হলেও এখনও কোনো সুরাহা হয়নি।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×