ভালুকা-পনাশাইল সড়ক ঈদের আগে সংস্কার শুরু

ঘরমুখো মানুষের চরম দুর্ভোগ

  ভালুকা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি ০৩ জুন ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ঈদের আগে ময়মনসিংহের উপজেলার ব্যস্ততম ভালুকা-পনাশাইল সড়কটি সংস্কার কাজ শুরু করায় ঈদে ঘরমুখো মানুষ চরম দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন। জুন ক্লোজিংয়ের কারণে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের সুবিধার দিক আমলে নিয়ে ভালুকা পৌর কর্তৃপক্ষ ঈদের আগে কাজটি শুরু করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ঈদে শেষে কর্মস্থলে ফেরার সময় একই ধরনের বিড়ম্বনায় পড়তে হবে।

জানা যায়, উপজেলার জন গুরুত্বপূর্ণ ভালুকা-পনাশাইল সড়কটির ভালুকা থানা মোড় থেকে দক্ষিণ ভালুকা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পর্যন্ত ৫৭০ মিটার রাস্তা সংস্কার, রাস্তার পাশের ৩৭০ মিটার এবং টিঅ্যান্ডটি সড়কে এক হাজার ৭৫ মিটার ড্রেনের জন্য দরপত্র আহ্বান করা হয়। বিশ্বব্যাংকের অর্থায়নে মিউনিসিপ্যাল গভর্ন্যান্স অ্যান্ড সার্ভিসেস (এমজিএসপি) প্রকল্পের আওতায় ভালুকা পৌরসভা গত বছরের নভেম্বরে চার কোটি ২৫ লাখ ৮২ হাজার ১১০ টাকা ব্যয়ে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান এমআরবি-এমএমএইচ-জেবির সঙ্গে সড়কের আরসিসি ঢালায় ও ড্রেনসহ সংস্কার কাজের চুক্তিবদ্ধ হন। কিন্তু এক বছর কাজের মেয়াদ থাকার পরও রহস্যজনক কারণে ঈদের এক সপ্তাহ আগেই তড়িঘড়ি সংস্কার কাজ শুরু করায় বিপাকে পড়েছেন ওই রাস্তায় চলাচলরত যানবাহনের সাধারণ যাত্রী ও ঈদে ঘরমুখো মানুষ। ঈদ শেষে কর্মস্থলে ফেরার সময় একই বিড়ম্বনায় পড়তে হবে রাজধানীমুখী মানুষের। ওই রাস্তায় ভুক্তভোগী সবার একই কথা- ঈদের ঘরমুখো মানুষের কথা চিন্তা না পৌর মেয়র কেন রাস্তার কাজ ধরলেন? ঈদের এক সপ্তাহ পড় রাস্তার কাজ ধরলে কী এমন অসুবিধা হতো? পৌর মেয়র ঠিকাদারের বিষয়টিই চিন্তা করে এ কাজটি করেছেন।

স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর শাহাব উদ্দিন খান বলেন, আমার ওয়ার্ডে আমি কাজ করাব, যখন ইচ্ছে, তখন করাব, এতে কার কী? ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি মিল্টন বলেন, জুন মাসের মাঝে কাজ না ধরলে টাকা লেফস হয়ে যাবে। তাই জুন মাসের আগেই কাজ ধরা হয়েছে। ভালুকা পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী মুন্নু আহমেদ জানান, পৌর কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী কাজ শুরু করা হয়েছে। ঈদের এক সপ্তাহ আগে কাজ শুরু করায় অনেক অসুবিধা হয়েছে, এক সপ্তাহ পরে শুরু করলে পাবলিকের কী-ই বা সুবিধা হতো? ভালুকা পৌর মেয়র ডা. একেএম মেজবাহ উদ্দিন কাইয়ূম জানান, ঈদের আগে কাজটি শুরু করায় জনসাধারণের একটু অসুবিধা হবে ঠিক আছে, কিন্তু জোন ক্লোজিংয়ের কারণে কাজটি শুরু করতে হয়েছে।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×