সিলেটে মন্দিরে নিয়ে যুবককে পুলিশের মারধর

  সিলেট ব্যুরো ১৬ জুন ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

সিলেটে মন্দিরে নিয়ে এক যুবককে মারধরের অভিযোগ উঠেছে দুই পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে। এ সময় তার সঙ্গে থাকা ১০ হাজার টাকা পুলিশ সদস্যরা ছিনিয়ে নিয়েছে বলে অভিযোগ করছেন ভুক্তভোগী ওই যুবক। শনিবার নগরীর জিন্দাবাজার মোড়ের জগন্নাথ জিউর আখড়ায় এ ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত পুলিশ সদস্যকে প্রত্যাহার (ক্লোজড) করা হয়েছে।

এদিকে, পুলিশের হাতে ওই যুবক লাঞ্ছিত হওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয় বাসিন্দারা জিন্দাবাজার পয়েন্টে এসে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন। পরে পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে এসে সুষ্ঠু বিচারের আশ্বাস দিলে তারা সড়ক অবরোধ তুলে নেন। মারধরের শিকার যুবক হিতাংশু দাস ইমন ওরফে এইচডি ইমন নগরীর দাড়িয়াপাড়া এলাকার মেঘনা সি-২০ এর বাসিন্দা ও ধরনী দাসের ছেলে। ইমন মডেলিংয়ের পাশাপাশি অনলাইনভিত্তিক ব্যবসায় জড়িত। এ ঘটনায় কোতোয়ালি মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন মডেল ইমন। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শনিবার বিকালে জিন্দাবাজার মোড়ে এসে রিকশা থেকে নামেন দুই যুবক। এ সময় মোড়ে রিকশা পার্কিং করা নিয়ে রিকশাচালক ও যাত্রী ইমনের সঙ্গে তর্কে জড়ান চেকপোস্ট ডিউটিরত সিলেট মহানগর পুলিশের (ট্রাফিক) এটিএসআই মাসুম। পরে একসময় তার সঙ্গে এসে যোগ দেন সাদা পোশাকের থাকা আরেক পুলিশ সদস্য। একপর্যায়ে জিন্দাবাজার মোড়ের পাশে থাকা মন্দিরে নিয়ে তাকে মারধর করেন পুলিশের দুই সদস্য।

মারধরের ঘটনায় অভিযুক্ত এটিএসআই মাসুম বলেন, রিকাশা পার্কিং নিয়ে তর্কের একপর্যায়ে সে উত্তেজিত হয়ে যায়। পরে যুবককে শান্ত রাখতে মন্দিরের ভেতরে নিয়ে যাই। তাকে মারধর করিনি।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×