ভুরুঙ্গামারীতে ঝুঁকিপূর্ণ সেতু দিয়ে পারাপার

  ভুরুঙ্গামারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি ২৫ জুন ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

কুড়িগ্রামের ভুরুঙ্গামারীতে ঝুঁকিপূর্ণ সেতু দিয়ে চলাচল করছে হাজার হাজার মানুষ। যে কোনো সময় সেতু ভেঙে ঘটতে পারে বড় রকমের দুর্ঘটনা। উপজেলার সোনাহাট ইউনিয়নের ক্যাম্পের মোড়ে আশির দশকে প্রায় ২০ মিটার দীর্ঘ একটি সেতু নির্মাণ করা হয়। সেতুটি দিয়ে কচাকাটা থানার কচাকাটা, মাদারগঞ্জ, সুবল পাড় এবং ভুরুঙ্গামারী থানার সোনাহাট, শাহীবাজার, বলদিয়া, কাশিম বাজার এলাকার হাজার হাজার মানুষ প্রতিনিয়ত যাতায়াত করে। কয়েক বছর আগে সেতুর পাটাতনের কয়েক স্থান ভেঙে গর্তের সৃষ্টি হয়। যোগাযোগ ব্যবস্থা সচল রাখতে বেইলী ব্রিজ নির্মাণে ব্যবহৃত ইস্পাতের প্লেট দিয়ে গর্তগুলো ঢেকে দেয়া হয়। যানবহনের চাপে ইস্পাতের প্লেট ক্ষয়ে পুনরায় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। এছাড়াও সেতুর পাটাতনের আরও কয়েক স্থানে ভেঙে গিয়ে গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। সেতুর পিলারে ফাটল ধরেছে এবং এক পাশের রেলিং ভেঙে গেছে। সোনাহাট স্থলবন্দর চালু হওয়ায় সেতুটির ওপর দিয়ে যানবাহন চলাচলের মাত্রা বেড়ে গেছে। প্রয়োজনের তাগিদে মানুষজন প্রতিনিয়ত জানমালের ঝুঁকি নিয়ে ঝুঁকিপূর্ণ সেতু দিয়ে চলাচল করছে। সোনাহাট ইউপি চেয়ারম্যান শাহজাহান আলী মোল্লা জানান, দুই উপজেলার পাঁচ ইউনিয়নের লোকজন সেতুটি দিয়ে যাতায়াত করে। সেতুর বিষয়ে কথা বলতে উপজেলা প্রকৌশলী এন্তাজুর রহমানের মুঠোফেনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি। কুড়িগ্রাম জেলা সওজ নির্বাহী প্রকৌশলী আমির হোসেন জানান, সেতুটি আয়তন বৃদ্ধিসহ যাবতীয় কাজের নকশা প্রণয়ন করা হয়েছে, জুলাই মাসে অনুমোদনের জন্য পাঠানো হবে।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×