মৃত ব্যক্তিকে জীবিত দেখিয়ে জমি রেজিস্ট্রি

ভালুকায় এলাকাবাসীর মানববন্ধন

  ভালুকা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি ২৫ জুন ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ময়মনসিংহের ভালুকায় কৃষক লীগ নেতার নেতৃত্বে জালিয়াতির মাধ্যমে একটি দলিলে পাঁচ ভূমি মালিককে ভুয়া দাতা সাজিয়ে ১৭ কোটি টাকা মূল্যের ২৭ বিঘা জমি সাব-রেজিস্ট্রার জাহাঙ্গীর আলম নিবন্ধন করেছেন। প্রতিবাদে ঝড়ু নিয়ে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেছেন এলাকাবাসী। সোমবার দুপুরে উপজেলার কাদিগড় গ্রামে মল্লিকবাড়ি-কাচিনা সড়কে তারা এ মানববন্ধন করেন।

ভুক্তভোগী জমির মালিক ও পরিবারের লোকজন জানান, স্থানীয় ভূমি দালাল উপজেলা কৃষক লীগের যুগ্ম সম্পাদক কাদিগড় গ্রামের জাকির হোসেন জুয়েল, একই এলাকার হীরা মিয়া ও সাইফুলের নেতৃত্বে একটি সঙ্ঘবদ্ধ দল ভূমি অফিসের অসাধু ব্যক্তিদের যোগসাজশে ওই গ্রামের সমর আলী, মোতাহার আলী, আতাউর, মীর শামছুল হক ও কামরুন্নাহার চৌধুরীর ২৭ বিঘা জমি অগ্রণী ব্যাংক মতিঝিল শাখার কাছে ১৩ মে ভালুকা সাব-রেজিস্ট্রি অফিসে বন্ধকী দলিলে ১৭ কোটি টাকা উত্তোলন করেন। সাব-রেজিস্ট্রার জাহাঙ্গীর আলম মোটা অঙ্কের সেরেস্তার নামে ঘুষ নিয়ে এ দলিলটি নিবন্ধন করেন। এলকাবাসী জানান, দলিলে উল্লিখিত দাতা মীর শামছুল হক ও আতাউর রহমান বহু আগেই মারা গেছেন। মানববন্ধনে জালিয়াত চক্রের হোতা জুয়েলসহ হীরা ও সাইফুলের হাত থেকে ওই জমি রক্ষায় ও তাদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানানো হয়। অভিযোগের বিষয়ে উপজেলা কৃষক লীগের যুগ্ম সম্পাদক জাকির হোসেন জুয়েল জানান, আমাকে রাজনৈতিকভাবে হয়রানি করার জন্য প্রতিপক্ষরা আমার বিরুদ্ধে মিথ্যে অভিযোগ করেছেন। সাব-রেজিস্ট্রার জাহাঙ্গীর আলম জানান, আমি দলিলটি নিবন্ধন করেছি। শনাক্তকারী দাতাকে শনাক্ত করেছে। এ ক্ষেত্রে আমার কী করার আছে?

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

 
×