ফুলবাড়ীতে ছোট যমুনা নদীর বালু উত্তোলন

হুমকিতে বন্যানিয়ন্ত্রণ বাঁধ

  দিনাজপুর প্রতিনিধি ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলার ছোট যমুনা নদীতে সরকারি নিয়মনীতিকে উপেক্ষা করে অবৈধভাবে যত্রতত্র চলছে বালু উত্তোলন। এতে বর্ষা মৌসুমে নদী ভাঙনের আশঙ্কাসহ যেখানে-সেখানে ট্রাক্টর নামায় বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ হুমকির মুখে পড়েছে। ফুলবাড়ী উপজেলা ভূমি অফিস সূত্রে জানা যায়, ফুলবাড়ী উপজেলার শিবনগর ইউনিয়নের ছোট যমুনা নদীর তীরবর্তী বেলতলী ও গোপালপুর নামক দুটি স্থান বালু মহালের জন্য নির্দিষ্ট করে আতিয়ার রহমান মিন্টু নামে এক ব্যক্তিকে সরকারিভাবে ঘাট ইজারা প্রদান করা হয়েছে। শর্তানুযায়ী ইজারাকৃত নির্দিষ্ট ঘাট ব্যতীত অন্য স্থানে বালু উত্তোলন সম্পূর্ণ অবৈধ। অভিযোগ উঠেছে সরকারি নিয়মিত না মেনে ইজারাদার আতিয়ার রহমান মিন্টু নির্দিষ্ট স্থান থেকে বালু উত্তোলনের পাশাপাশি উপজেলার দৌলতপুর, খয়েরবাড়ী ইউনিয়নসহ ছোট যমুনা নদীর বিভিন্ন স্থানে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করছে। অভিযোগ উঠেছে খয়েরবাড়ী ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের সভাপতি এনামুল হক ড্রেজার মেশিন দিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে নদীর পাশে স্তূপ করে রেখে বিক্রি করছে। বারাইপাড়া গ্রামের মতি ও তোজাম্মেল হাজী নামে দুইজনও বারাইপাড়া ঘাট থেকে অবৈধভাবে বালু তুলছে। এদিকে নদী থেকে যত্রতত্র বালু উত্তোলনের ফলে একদিকে যেমন কৃষকের কৃষি জমি নদীগর্ভে বিলীন হচ্ছে। অন্যদিকে বালু বোঝাই ট্রাক্টর যত্রতত্র চলাচল করায় বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ হুমকির মুখে পড়েছে এবং গ্রামীণ রাস্তাঘাট ভেঙে যাতায়াতের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। এদিকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনকারী বারাইপাড়া গ্রামের মতির সঙ্গে কথা বললে তিনি জানান, শুধু আমরাই নয় আরও অনেকেই এভাবে বালু উত্তোলন করছে। অপরদিকে বালুমহালের ইজারাদার আতিয়ার রহমান মিন্টুর সঙ্গে কথা বললে তিনি জানান নদীতে পানি থাকায় বালু তোলা সম্ভব হচ্ছে না সে কারণেই মেশিন দিয়ে বালু তোলা হচ্ছে। তবে সারা দেশে মেশিন দিয়ে বালু তোলা হচ্ছে অন্যরা যদি তুলতে পারে তা হলে আমরা কেন পারব না। ইজারাকৃত নির্দিষ্ট ঘাট ছাড়া অন্য কোথাও বালু উত্তোলনের কথা অস্বীকার করেন তিনি। ইজারাকৃত স্থান বাদ দিয়ে কারা কিভাবে বালু উত্তোলন করতে তা তিনি জানেন না বলে জানান। এ ব্যাপারে ইউএনও আবদুস সালাম চৌধুরী জানান, ইজারাকৃত নির্ধারিত ঘাট ব্যতীত অন্য জায়গা থেকে বালু উত্তোলন সম্পূর্ণ অবৈধ।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×